মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে নিহত

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১২

প্রতীকী ছবি কিশোরগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বানেছা বেগম (৬০) নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সদর উপজেলার রশিদাবাদ ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত বানেছা ওই গ্রামের মৃত নূর মিয়ার স্ত্রী। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার সন্ধ্যার পর শিমুলিয়া গ্রামের শুকুর মামুদের ছেলে সাদেক (১৮) বাড়ির পাশে খোলা জায়গায় মলমূত্র ত্যাগ করছিলেন। এ সময় প্রতিবেশী রতনের ছেলে শামীম (৮) টর্চলাইট চালু করলে আলো সাদেকের ওপর পড়ে। ক্ষিপ্ত হয়ে সাদেক লাঠি দিয়ে আঘাত করলে শামীম পানিতে পড়ে যায়। পরে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শামীমের স্বজনরা সাদেকের বাড়িতে অভিযোগ দিতে যান। সেখানে প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দু’পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। বৃদ্ধা বানেছা বেগম সংঘর্ষ থামাতে যান। তার মাথায় লাঠির আঘাত পড়ে। সংঘর্ষের ঘটনায় বৃদ্ধাসহ পাঁচজন আহত হন। তাদের কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বানেছার মৃত্যু হয়। আহত অন্যরা হলেন একই গ্রামের রতন, আবু হানিফ, বকুল ও নাজমা।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

স্থানীয় রশিদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইদ্রিস মিয়া আজকের পত্রিকাকে বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের বিষয়টি ন্যক্কারজনক। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে প্রতিবেশী বৃদ্ধা নিহতের ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। পুলিশ প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের সম্মুখীন করবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    জেলায় শনাক্ত ও মৃত্যুহীন একদিন

    মাসে অর্ধকোটি টাকা কেনাবেচা

    ফেরেনি ৩ হাজার শিক্ষার্থী

    নওয়াববাড়ি এখন রিসোর্ট

    নকলায় ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন ঘোষণা

    অস্ত্রোপচার বন্ধ, দুশ্চিন্তা

    গান্ধী পরিবারের হাতে ভরসা কমছে কংগ্রেসের

    তাণ্ডবে আশ্রয় মিলেছিল ধানখেত ও মুসলিম প্রতিবেশীর ঘরে

    ‘স্পিড মানি’র গতি

    স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডেঙ্গুপ্রতিবেদন নিয়ে প্রশ্ন

    ছানার পুডিং

    অভিনয়ের নেশা