বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপি নির্বাচন

আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২০

কক্সবাজারের চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভা এবং জেলার ১৪ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আগামী সোমবার ভোট। প্রার্থীদের বিরুদ্ধে আচরণবিধি ভেঙে প্রচার, সভা ও সমাবেশ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তা ছাড়া প্রচার ও সমাবেশে প্রার্থীরা একে অপরের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। এতে শেষ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ও দলটির বিদ্রোহী প্রার্থী ও তাঁদের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘাত ও হানাহানির আশঙ্কা করছেন ভোটারেরা। ভোটের দিন কেন্দ্র দখল, ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, কালো টাকা ব্যবহার ও নির্বাচনকে প্রভাবিত করার আশঙ্কা করছেন অনেকে।

চকরিয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সাংসদ জাফর আলমের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে তিনি বলেন, সাংসদ জাফর আলম তাঁর ভাতিজা স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হকের পক্ষে ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে ভোটার ও প্রশাসনকে প্রভাবিত করছেন।

আলমগীর চৌধুরী বলেন, তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন এলাকা থেকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের ভোট কেন্দ্রে জড়ো করছেন। এতে ভোটারেরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে স্বতন্ত্র প্রার্থী জিয়াবুল হক বলেন, ‘আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবল-তাবল কথা বলছেন। বরং তিনি প্রতিদিন আচরণবিধি লঙ্ঘন করে এলাকায় সমাবেশ ও প্রচার চালাচ্ছেন। সেখানে ব্যক্তিগত আক্রমণ ও চরিত্র হনন করে তিনি বক্তৃতা করছেন।’ জিয়াবুল আরও বলেন, ‘আমি সাংসদের ভাতিজা হওয়া তো অপরাধ নয়। কোথাও সাংসদ আমার পক্ষে ভোটও চাননি এবং ক্ষমতার প্রভাবও খাটাননি।’

এদিকে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারে অংশ না নিতে বাধ্যবাধকতা থাকলেও মহেশখালী ও কুতুবদিয়া আসনের সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে প্রতিদিন প্রচারে অংশ নিচ্ছেন এবং নির্বাচনী সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন।

গত বুধবার দুপুরে আলী আকবর ডেইল ইউপির নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সিকদারের পক্ষে ডেইল ঘাঠঘর মাঠে, বিকেলে বড়ঘোপ ইউনিয়নে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালামের পক্ষে কুতুবদিয়া আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে, রাতে কৈয়ারবিল ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আজমগীর মাতবরের ঘিলাছড়ি রাস্তার মাথায় নির্বাচনী সমাবেশে অংশ নেন সাংসদ।

পরদিন বৃহস্পতিবার দুপুরে উত্তর ধূরুং ইউপির নৌকার প্রার্থী ইয়াহিয়া খানের পক্ষে জহির আলী সিকদার পাড়া, বিকেলে দক্ষিণ ধূরুং ইউনিপির নৌকার প্রার্থী আজম শিকদারে পক্ষে ধূরুং আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে, রাতে তাবেলারচর বাজারে নির্বাচনী পথসভায় তিনি বক্তব্য দেন।

এসব প্রচারে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানসহ দলের নেতারা অংশ নেন।

এ ছাড়া টেকনাফেও প্রার্থীরা দিন-রাত হাজার হাজার মানুষ নিয়ে সমাবেশ ও প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। অথচ এসব এলাকায় জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ মতবিনিময় সভা করে নির্বাচনে আচরণবিধি মেনে চলতে প্রার্থীদের উদ্বুদ্ধ করেন। তাতেও কোনো কাজ হয়নি।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, আগামী সোমবার এ নির্বাচনে দুই পৌরসভায় মেয়র পদে আটজন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ২৫ জন, সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ৭৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১৪ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯২ জন, সংরক্ষিত নারী পদে ১৯৯ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৭৭৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এসএম শাহাদৎ হোসেন আজকের পত্রিকাকে জানান, দুই পৌরসভায় ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হবে। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সবধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় এরই মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় প্রার্থীদের জরিমানা করা হয়েছে এবং অধিকাংশ প্রার্থীকে সতর্ক করা হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ‘ভাগনে’র দায়ের কোপে মামা আইসিইউতে

    যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

    ইউপি সদস্য পদে ৫ জনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার

    ১৯ ইউপিতে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ

    বাংলাদেশ ম্যাচের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে হোল্ডার

    ‘আমাদের দিয়ে হচ্ছে না’

    বহিষ্কারের শঙ্কা উড়িয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় বিদ্রোহীরা

    শুল্ক কমানোর পরও চিনির বাজারে অস্থিরতা

    বিশেষ ক্যাম্পেইনের দ্বিতীয় ডোজ আজ

    পাকিস্তানে নিষিদ্ধ ইসলামি গোষ্ঠী টিএলপির সঙ্গে সংঘর্ষে ৪ পুলিশ নিহত, আহত দুই শতাধিক