হত্যা। প্রতীকী ছবি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ক্যাম্পাসে আরিফ হোসেন (১৫) নামের এক কিশোকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নিহত আরিফ কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার হেলাল মিয়ার ছেলে।

১৫ মার্চ শুক্রবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদুল্লাহ হলের সামনে তাকে মারধরের পর ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় কিছু যুবক। আরিফ পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে থাকতেন। একটি জুতার কারখানায় কাজ করতেন তিনি।

আরিফের বড় ভাই আওলাদ হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, বিকালে হাইকোর্ট মাঠে ক্রিকেট খেলতে গিয়েছিল আরিফ ও তার কয়েকজন বন্ধু। সেখান থেকে শহিদুল্লাহ হলের সামনের রাস্তা দিয়ে ফিরছিল তারা।

এ সময় ১০ থেকে ১৩ জন যুবকের মধ্যে একজন আরিফের পায়ে লাথি দেয়। আরিফ প্রতিবাদ করলে প্রথমে তাকে মারধর করে ওই যুবকরা। পরে আরিফের বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় তারা। এরপর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে সে মারা যায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের কর্মকর্তা উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আজকের পত্রিকা/শায়েল