শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

পুঁজিবাজারের মূলধনি মুনাফায় করারোপ চান না বিনিয়োগকারীরা

আপডেট : ২৯ মে ২০২৪, ২২:০৮

পুঁজিবাজারের মূলধনি মুনাফায় করারোপ চান না বিনিয়োগকারীরা আসছে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারের শেয়ার বিক্রি থেকে অর্জিত মূলধনি মুনাফায় (ক্যাপিটাল গেইন) করারোপ না করার আহ্বান জানিয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। আজ বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানায় পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী জাতীয় ঐক্য ফাউন্ডেশন (ক্যাপমিনাফ)। 

এছাড়া আসছে বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য ৫০ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা, নতুন কোম্পানির তালিকাভুক্তি বন্ধ রাখা ও বাইব্যাক আইন কার্যকর করাসহ ১২ দফা দাবি তুলে ধরেন সংগঠনটির সভাপতি রুহুল আমিন আকন্দ। 

ক্যাপমিনাফ সভাপতি বলেন, ‘আগামী বাজেটে ব্যক্তি বিনিয়োগকারীর ওপর ক্যাপিটাল গেইনে ট্যাক্স আরোপ হতে যাচ্ছে, এমন একটি নিউজ দেশের সকল জাতীয় পত্রিকায় এসেছে। যদি এই মুহূর্তে গেইন ট্যাক্স আরোপ করা হয়, তবে বাজার দীর্ঘমেয়াদের জন্য আকর্ষণ হারাবে।

তিনি বলেন, এখন অনেক বিনিয়োগকারীর অপ্রদর্শিত অর্থ রয়েছে পুঁজিবাজারে। তাছাড়া পুঁজিবাজারের সূচক ব্যাপক পড়ে যাওয়ায় অনেকে অপ্রদর্শিত আয় নিয়ে পুঁজিবাজারে ঢোকার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই অবস্থায় ব্যক্তি বিনিয়োগকারীর ওপর গেইন ট্যাক্স আরোপ করা হলে সেসব অর্থ আর বাজারে আসবে না, যা পুঁজিবাজারকে দীর্ঘ মেয়াদের জন্য মন্দা অবস্থার দিকে ঠেলে দেবে।  

পুঁজিবাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা একেবারে শূন্যের কোঠায় নেমেছে দাবি করে রুহুল আমিন আকন্দ বলেন, বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে আনতে হলে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে সরকারকে। কলসির নিচে যদি ফুটা থাকে, তাহলে পানি যতই ঢালেন, কলসি ভরবে না। কলসের ফুটা বন্ধ করতে হবে। তেমনি পুঁজিবাজারের টাকা বের হয়ে যাওয়ার ছিদ্রগুলো বন্ধ করতে হবে। তবেই বাজার দীর্ঘমেয়াদে ভালো হবে।’

পতনের ধারা থামিয়ে শেয়ারবাজারকে স্থিতিশীল করা সম্ভব বলে মনে করেন রুহুল আমিন আকন্দ। তিনি বলেন, বর্তমান পুঁজিবাজারের মন্দা পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনায় ১২ দফা দাবি উত্থাপন করছি। 

তিনি বলেন, আসন্ন বাজেটে পুঁজিবাজার স্থিতিশীলতায় ৫০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ বরাদ্দের ব্যবস্থা করতে হবে। আগামী একবছর সব ধরনের আইপিও অনুমোদন বন্ধ রাখতে হবে। টেকনো ড্রাগস লিমিটেডের আইপিও দ্রুত বন্ধ করতে হবে। ক্যাপিটাল গেইন ট্যাক্স আরোপ বন্ধ করতে হবে। বাইব্যাক আইন কার্যকর করতে হবে। শেয়ার দর বৃদ্ধি পেলে যেমন কারণ দর্শানো হয়, তেমনি কমলেও এর কারণ দর্শানোর নোটিশের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, পরিচালনা পর্ষদ পরিবর্তনের ইস্যু দেখিয়ে যেসব কোম্পানির শেয়ারদর আকাশচুম্বী করা হয়েছে, সে সকল কোম্পানির শেয়ার কারসাজি চক্রের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। মিউচুয়াল ফান্ড উন্নয়নে দৃশ্যমান কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে এবং আর্থিক সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও কোনো ডিভিডেন্ড দেয়া কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। 

রুহুল বলেন, ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড বাজার উন্নয়নে ব্যবহার করতে হবে। পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারীদের পুঁজির নিরাপত্তা ও সুরক্ষা তহবিল গঠন করতে হবে। স্মার্ট বাংলাদেশে স্মার্ট পুঁজিবাজার ও স্বচ্ছ্বতা আনয়নে বিএসইসিতে বিনিয়োগকারীদের প্রতিনিধি রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। বাজেটে অপ্রদর্শিত অর্থ সম্পূর্ণ নিঃশর্তভাবে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে। 

সংবাদ সম্মেলনে ক্যাপমিনাফের উপদেষ্টা আলী জামান ও সাধারণ সম্পাদক আছাহাব মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    সৌদি আরবের অর্থনীতির প্রশংসায় পঞ্চমুখ আইএমএফ

    ঘরে বসেই কোরবানির পশু কেনা যাবে নগদে

    ঈদের আগমুহূর্তে জমজমাট ওয়ালটন ফ্রিজের বিক্রি

    বগুড়ার উপশাখায় চুরির ঘটনায় আইএফআইসি ব্যাংকের বক্তব্য

    বিশ্বায়নের যুগে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী 

    বিকাশে সম্মানী পাবেন ৪র্থ অর্থনৈতিক শুমারির কর্মীরা

    কী ঘটেছিল তালেবানদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো সেই নারীদের ভাগ্যে

    ঈদের ছুটিতে মহিলা সমিতির মঞ্চে প্রাঙ্গণেমোরের ‘অভিনেতা’

    ইংল্যান্ডপ্রবাসী তরুণীর ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

    সশস্ত্র সংগ্রামের পক্ষে অধিকাংশ ফিলিস্তিনি, বেড়েছে হামাসের সমর্থন: জরিপ 

    বিশ্বকাপের মাঝপথে বড় ধাক্কা খেল আফগানিস্তান

    গরুর মাংস আমদানিতে ব্রাজিলের বিকল্প উৎসের খোঁজে চীন