শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

ইউরোপকে যুদ্ধে ঠেলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে ন্যাটো-ওয়াশিংটন

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ১৬:৪৫

হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্তর অরবান। ছবি: কোসুথ রেডিও হাঙ্গেরির ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট ভিক্তর অরবান বলেছেন, ইউরোপকে যুদ্ধে ঠেলে দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে ব্রাসেলস (ন্যাটোর সদর দপ্তর) ও ওয়াশিংটনে। গতকাল শুক্রবার হাঙ্গেরির স্থানীয় গণমাধ্যম কোসুথ রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন। তিনি এ সময়, ব্রাসেলসে ন্যাটোর প্রস্তুতি প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর আগের প্রস্তুতির সঙ্গেও তুলনা করেন। 

অরবান বলেন, ‘আজ ব্রাসেলস ও ওয়াশিংটনে যা কিছু ঘটছে—বিশেষ করে ওয়াশিংটনের চেয়ে ব্রাসেলসে বেশি ঘটছে—তা মূলত একধরনের সম্ভাব্য সামরিক সংঘাতের পূর্বপ্রস্তুতি। আপনি যদি সহজ ভাষায় এটিকে বলতে চান তাহলে আপনি বলতে পারেন, ইউরোপকে যুদ্ধে ঠেলে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।’ 

এ সময় হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী সতর্ক করে বলেন, এ ধরনের কর্মকাণ্ডের প্রত্যক্ষ ফলাফল হবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোর সঙ্গে রাশিয়ার সরাসরি সংঘাত। আর এই সংঘাতে পারমাণবিক অস্ত্রও ব্যবহৃত হতে পারে এবং এর ফলাফল হবে খুবই ভয়াবহ। এ সময় অরবান প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘কেউ আমাকে বলুন কেন এই সংঘাতকে দূরে ঠেলে দেওয়ার পরিবর্তে আমরা এই যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে বেছে নিচ্ছি?’ 

ন্যাটোর উদ্দেশ্য প্রসঙ্গে অরবান বলেন, এই জোট সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে আক্রমণকারীদের হাত থেকে রক্ষা করার উদ্দেশ্যে গঠন করা হয়েছিল, বাইরের কারও সঙ্গে যুদ্ধ করার জন্য নয়। ইউক্রেনকে পরাজিত করার পর রাশিয়া ইউরোপ আক্রমণ করতে পারে—এমন পশ্চিমা দাবির বিষয়ে মন্তব্য করে অরবান বলেন, এমনটা হওয়ার আশঙ্কা অত্যন্ত ক্ষীণ এবং এ ধরনের অজুহাত কেবল ইউক্রেন সংঘাতে সরাসরি জড়িত হওয়ার পটভূমি তৈরির জন্য ব্যবহার করা হয়। 

ন্যাটো জোটে হাঙ্গেরির অবস্থান ব্যক্ত করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এখন ন্যাটোতে হাঙ্গেরির অবস্থান বর্ণনা করার জন্য একটি নতুন শব্দ উদ্ভাবন করা হয়েছে, এটিকে অ-অংশগ্রহণ (নন-পার্টিসিপেন্ট) বলা হয়। আমরা এখন আর ন্যাটোতে সরাসরি অংশগ্রহণকারী দেশ নই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যদি ন্যাটোতে অবাঞ্ছিত বলে পরিগণিত হই, তাহলে ন্যাটোর সামরিক কাঠামোতে আমাদের অংশগ্রহণ, আমাদের অবস্থান, পরিবর্তিত হবে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়ার হয়ে লড়ছে ৭ লাখ সেনা, জানালেন পুতিন

    উড়োজাহাজের যন্ত্রাংশে ভেজাল টাইটানিয়াম, তদন্তের মুখে বোয়িং-এয়ারবাস

    পুতিনকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করে শান্তি প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলেন জেলেনস্কি

    পারমাণবিক সক্ষমতা আরও বাড়াচ্ছে ইরান: আইএইএ

    যুদ্ধবিরতির জন্য ইউক্রেনকে শর্ত দিলেন পুতিন

    ঈশ্বরকে নিয়ে রসিকতায় কোনো সমস্যা নেই: পোপ

    ঈদের ছুটিতে মহিলা সমিতির মঞ্চে প্রাঙ্গণেমোরের ‘অভিনেতা’

    ইংল্যান্ডপ্রবাসী তরুণীর ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

    সশস্ত্র সংগ্রামের পক্ষে অধিকাংশ ফিলিস্তিনি, বেড়েছে হামাসের সমর্থন: জরিপ 

    বিশ্বকাপের মাঝপথে বড় ধাক্কা খেল আফগানিস্তান

    গরুর মাংস আমদানিতে ব্রাজিলের বিকল্প উৎসের খোঁজে চীন

    ঈদের দিন কি বৃষ্টি হবে, গরম কেমন থাকবে—জানাল আবহাওয়া অধিদপ্তর