মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

মরা গাছে সড়কে ঝুঁকি

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫৭

তানোর-তালন্দ সড়কের গুবিরপাড়া টিবিএম কলেজের সামনে মরে যাওয়া বেশ কয়েকটি গাছ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে তোলা ছবি। আজকের পত্রিকা রাজশাহীর তানোর-তালন্দ সড়কের দুই পাশে রোপণ করা গাছগুলোর মধ্যে ৮ থেকে ১০টি গাছ মরে গেছে। অত্যন্ত বিপজ্জনকভাবে রয়েছে সেই গাছগুলো। মরে যাওয়া কয়েকটি গাছ আবার হালকা বাতাস ও বৃষ্টিতে হেলেও পড়েছে। ফলে ওই সড়কে চলাচলকারী ছোট-বড় যাত্রীবাহী যানবাহন; বিশেষ করে অটোরিকশা, মোটরসাইকেল, ভ্যান ও বাইসাইকেলের যাত্রীরা আতঙ্কে থাকেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তানোর-তালন্দ সড়কের উপজেলা পরিষদ গেট থেকে তালন্দ বাজার পর্যন্ত সড়ক ঘুরে ও চলাচলকারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিদিন এই সড়কে প্রায় হাজারখানেক যাত্রীবাহী ও মালবাহী যান চলাচল করে। রাস্তাটির দুই পাশে থাকা রেইনট্রিসহ বেশ কয়েকটি গাছ শুকিয়ে মরে গেছে। এখন হালকা বাতাসেই সেগুলো ভেঙে পড়ছে। মারা যাওয়া কয়েকটি গাছ বৃষ্টিতে হেলে পড়ে বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে।

তালন্দ এলাকার সারুয়ার জাহান সোহেল বলেন, বেশ কয়েক দিন আগে গুবিরপাড়া কালভার্ট সংলগ্ন রাস্তায় মরা একটি গাছের বড় ডাল ভেঙে পড়ে যায়। সেই সময় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান অটোরিকশার এক চালক। সড়কে নিরাপদে চলাফেরার জন্য তানোর উপজেলাজুড়েই সড়কের পাশে মরে যাওয়া গাছগুলো অতি দ্রুত কর্তৃপক্ষের কেটে ফেলা উচিত।

তানোরে চাপরা এলাকার সিরাজুল ইসলাম বলেন, তিনি সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালান। বেশ কিছুদিন আগে তানোর-তালন্দ সড়কের টিবিএম কলেজের একটু সামনের রাস্তায় বৃষ্টির মধ্যে একটি বড় গাছ উপড়ে পড়ে। এই সময় তিনি অল্পের জন্য দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পান।

তানোর রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি বকুল মাস্টার বলেন, তানোর থেকে তালন্দ সড়কের দুই পাশের মরা গাছের ডালগুলো প্রায়ই ভেঙে রাস্তার ওপর পড়ে। যেকোনো সময় সেগুলো পথচারীদের ওপর পড়ে প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। তাই গাছগুলো দ্রুত কেটে ফেলা উচিত।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পংকজ চন্দ্র দেবনাথ বলেন, জনসাধারণের জানমাল রক্ষার স্বার্থে দ্রুততম সময়ের মধ্যে শুকিয়ে মরে যাওয়া বিপজ্জনক ঝুঁকিতে থাকা গাছগুলো কেটে ফেলার পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    জেলায় শনাক্ত ও মৃত্যুহীন একদিন

    মাসে অর্ধকোটি টাকা কেনাবেচা

    ফেরেনি ৩ হাজার শিক্ষার্থী

    চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বাড়াতে নতুন উদ্যোগ

    ১৮ দিনেও উদ্ঘাটন হয়নি খুনের রহস্য, আইনি জটিলতায় থানা হেফাজতে অটোরিকশা 

    আবাসিক এলাকায় গ্যাস সংযোগ দিতে রুল

    ভুলে মোবাইলে আসা ১ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে প্রশংসিত যুবক

    বগুড়ায় ট্রাকচাপায় নিহত ১, আহত ২ 

    সৌদি যুবরাজকে সাইকোপ্যাথ, খুনি বললেন সাবেক শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তা