শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

লিটন-শান্তদের নতুন করে প্রমাণের কিছু নেই, বলছেন বিসিবি নির্বাচক

আপডেট : ২৩ মে ২০২৪, ১৮:৪৪

নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস রয়েছেন অফফর্মে। ছবি: আজকের পত্রিকা হিউস্টনে বাংলাদেশের সমর্থকেরা নিঃসন্দেহে প্রথম ম্যাচের পুনরাবৃত্তি চাইবেন না আজ। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের কাছে সবারই হয়তো প্রত্যাশা থাকবে এমন—প্রথম ম্যাচের দুঃস্মৃতি ভুলিয়ে দেওয়ার মতো জয়। নাজমুল হোসেন শান্ত-লিটন দাসরা সে প্রত্যাশা মেটাতে পারবেন কি না সেই শঙ্কা অবশ্য এই ম্যাচেও থাকছে। 

প্রথম টি-টোয়েন্টি হারের ক্ষতে প্রলেপ দিতে হলে টপ অর্ডারের রানে ফেরাও জরুরি। প্রথম ম্যাচ হারের বড় কারণও ছিল লিটন, সৌম্য ও শান্তর ব্যাট থেকে চাহিদা মতো রান না পাওয়া। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে টিম ম্যানেজমেন্টর চিন্তার জায়গাও এটি। প্রেইরি ভিউ ক্রিকেট কমপ্লেক্সে ছন্দে ফেরার আরেকটি সুযোগ পাচ্ছেন তাঁরা। নির্বাচক হান্নান সরকারও জানিয়েছেন, লিটন-শান্তদের ফর্মে ফেরার অপেক্ষায় আছেন তাঁরা এবং পুরো দেশ। 

শান্ত-লিটনরা প্রমাণিত ক্রিকেটার। তাঁদের প্রমাণ নয়, ফর্মে ফেরা জরুরি মনে করছেন হান্নান। কিছুটা হতাশার সুরেই বললেন, ‘আমরা দেখছি আমাদের এক, দুই, তিন নম্বরে যেভাবে রান চাচ্ছি, সেভাবে পাচ্ছি না। তানজিদ তামিম কিছুটা অবদান রেখেছে অভিষেকের পর। সৌম্য, লিটন সংগ্রাম করছে। শান্তর ব্যাটে আমরা খুব একটা রান পাচ্ছি না। কিন্তু প্রমাণিত খেলোয়াড়। এখানে যদি তানজিদ তামিম ব্যর্থ হতো, তখন বিষয়টা অন্য রকমভাবে আসত। যারা আমাদের প্রমাণিত খেলোয়াড়—লিটন, সৌম্য, শান্ত এরা এমন না যে নতুন ক্রিকেট খেলছে। অনেক দিন খেলে নিজেদের প্রমাণ করেছে।’ 

লিটন-সৌম্যদের রানে ফেরার অপেক্ষায় বিসিবির নির্বাচকেরা। হান্নান বললেন, ‘এ পর্যায়ে এসে তাদের আর প্রমাণ না, তাদের ফর্মে ফেরাটা সময়ের ব্যাপার। আমরা সেই ফর্মে ফেরার অপেক্ষায় আছি এবং সে ফর্ম যদি বিশ্বকাপের আগে ফিরে আসতে পারে, সেটাও আমাদের প্রাপ্তি হবে। শুধু আমি না, আমরা নির্বাচকেরা না, আমরা পুরো দেশ আশা করছি তারা ফর্মে ফিরে আসুক। মন থেকে সবাই চাচ্ছে। তাদের ফর্মে ফেরাটা সময়ের ব্যাপার। আমার বিশ্বাস, মূল ইভেন্টে ঢোকার আগে সে ফর্মটা ফিরে পাবে ইনশা আল্লাহ।’ 

দলের মিডল অর্ডারকে পূর্ণ নম্বরই দিচ্ছেন হান্নান। রাখঢাক না রেখে টপ অর্ডার প্রসঙ্গে বললেন, ‘ব্যাটাররা রান করেনি, এর সঙ্গে পুরোপুরি একমত হব না। ব্যাটাররা রান করেছে। যদি নির্দিষ্ট করে বলতে চান, টপ অর্ডারে আমাদের রানটা হয়নি। মাঝখানে রিয়াদ, হৃদয়, জাকের এরা কিন্তু রান করেছে। টপ অর্ডারে আমরা সংগ্রাম করছি, এটা লুকানোর কিছু নেই। লজ্জার কিছু নেই। এটা বাস্তবতা।’ 

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে হারের পর আজ এক অনুষ্ঠানে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বেশ হতাশা প্রকাশ করেছেন হান্নান। যদিও হারের কারণ হিসেবে ‘অচেনা’ কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার কথাও বললেন তিনি, ‘দল প্রথম ম্যাচ হেরেছে। এটা আসলে কোনোভাবেই প্রত্যাশা করি না দল যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে হারবে। কন্ডিশন ভিন্ন ছিল, যেটা চ্যালেঞ্জ ছিল। আমরা দেখেছি প্রচুর বাতাস ছিল, খোলা মাঠ ছিল।’ 

প্রস্তুতির ঘাটতির কথা উল্লেখ করে হান্নান বলেন, ‘দল যখন সেখানে গিয়েছে, যাওয়ার পর প্রস্তুতির যে বিষয়টা, সে দুই দিনও মাঠে নামতে পারেনি সেভাবে করে। প্রস্তুতির একটা ঘাটতি ছিলই, সেখানে যাওয়ার পর কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারটা। সেটার একটা প্রভাব প্রথম ম্যাচে পড়েছে আমরা দেখেছি। খেলোয়াড়দের ব্যাটিং-বোলিং প্রতিটা জায়গায় সংগ্রাম করেছে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানের বিদায়, সুপার এইটে যুক্তরাষ্ট্র

    ইংল্যান্ডকে বিদায় করতে চেতনাবিরোধী কিছু করবে না অস্ট্রেলিয়া

    আজ শুরু ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ

    ম্যাচসেরা

    ইংল্যান্ডকে রেকর্ড জয় এনে দিয়েও আক্ষেপ আদিল রশিদের

    ম্যাচসেরা

    আফগানিস্তানকে সুপার এইটে তুলে গর্বিত ফজলহক ফারুকি

    তামিমের বুদ্ধির তারিফ করছে আইসিসি

    পশুর হাটে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা গেল দুটি গরু, শিশুসহ আহত খামারি

    ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কে ২১ কিলোমিটারজুড়ে যানজট 

    জাপানি ব্যান্ডের মিউজিক ভিডিও নিয়ে আপত্তি, কোক স্টুডিও থেকে প্রত্যাহার

    ঘরে বসেই কোরবানির পশু কেনা যাবে নগদে

    ঈদের আগমুহূর্তে জমজমাট ওয়ালটন ফ্রিজের বিক্রি

    বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানের বিদায়, সুপার এইটে যুক্তরাষ্ট্র