শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

এনজিওর ঋণের চাপে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা করেন আলী: পুলিশ 

আপডেট : ২৩ মে ২০২৪, ১৮:০৫

ত্রিশালে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার স্বামী আলী হোসেন (২৫)। ছবি: আজকের পত্রিকা ময়মনসিংহের ত্রিশালে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার ঘটনায় স্বামী আলী হোসেনকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। গ্রেপ্তার আলী হোসেন হত্যাকাণ্ডে নিজের সম্পৃক্ততা স্বীকার করে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।  

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুর পৌনে ৩টায় জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) শামীম হোসেন। 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আলী হোসেন ২০১২ সালে দায়ের হওয়া আরও একটি ধর্ষণ ও হত্যা মামলার আসামি। ওই মামলায় তিনি টানা পাঁচ বছর কারাভোগ করে ২০১৭ সালের আগস্টে জামিনে মুক্তিলাভ করেন। এরপর তিনি ২০১৯ সালে তাঁর আপন মামাতো বোন আমেনা খাতুনকে বিয়ে করে দিনমজুরি করে জীবিকা নির্বাহ করছিলেন। এরই মাঝে তাঁদের সংসারে আবু বক্কর সিদ্দিক ও আনাছ নামে দুটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। ফলে তাঁর চার সদস্যের সংসারে অভাব-অনটন লেগেই থাকত। 

এ কারণে সম্প্রতি তিনি একটি এনজিও থেকে এক লাখ ৭০ হাজার টাকা ঋণ নেন। ওই ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পারায় প্রায়ই তাঁদের অপমান করা হতো। এতে হতাশ হয়ে আলী হোসেন স্ত্রী-সন্তানদের হত্যা করে নিজেও আত্মহত্যার পরিকল্পনা করেন। এরই মাঝে গত ১৬ মে রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হলে গভীর রাতে স্ত্রীকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করেন আলী হোসেন। এরপর মৃত স্ত্রীর ওড়না দিয়ে ঘুমন্ত দুই সন্তানকে হত্যা করে বাড়ির পাশের নির্জন স্থানে গর্ত করে মাটিতে পুতে রেখে পালিয়ে যান। 

এ ঘটনায় নিহত আমেনা খাতুনের মা হাসিনা খাতুন গত ২২ মে ত্রিশাল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ আসামি গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করে। এরপর গতকাল ২২ মে বিকেলে গাজিপুর জেলার শ্রীপুর বাজার এলাকা থেকে আলী হোসেনকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। 

এর আগে, গত ২১ মে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কাকচর নয়াপাড়া গ্রামে একটি ধানের খেতে কুকুর শিয়ালের টানাহেঁচড়ায় এক নারী ও দুই শিশুকে মাটি খুঁড়ে পুতে রাখার ঘটনার সন্ধান পায় এলাকাবাসী। এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে। 

নিহতরা হলেন—ঘাতক আলী হোসেনের স্ত্রী আমেনা খাতুন (৩০), তার শিশুপুত্র আবু বক্কর সিদ্দিক (৪) ও আনাছ (২)।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মোহাইমেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) ফাল্গুনী নন্দী, সহকারী পুলিশ সুপার তাহমিনা, জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফারুক হোসেনসহ এই গ্রেপ্তার অভিযানে অংশ নেওয়া ডিবি পুলিশের সদস্যরা।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    কারাগারে বন্দী মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামির মৃত্যু

    কুমারখালীতে আড়াই মাসের শিশুটির লাশ বিলে ফেলে দিয়েছিলেন মা

    ছিনতাইয়ের অভিযোগ দিতে গিয়ে পুলিশের চড়-থাপ্পড় খেলেন যুবক

    চট্টগ্রামে নিখোঁজের তিন দিন পর গুদামঘর থেকে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

    সিলেটে চিনি ছিনতাইকাণ্ডের ফোনালাপ ফাঁস, ছাত্রলীগের ২ কমিটি বিলুপ্ত

    ঈশ্বরগঞ্জে পৃথক তিন অভিযানে ৮১০ বস্তা অবৈধ চিনি জব্দ, আটক ৪ 

    পশুর হাটে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা গেল দুটি গরু, শিশুসহ আহত খামারি

    ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কে ২১ কিলোমিটারজুড়ে যানজট 

    জাপানি ব্যান্ডের মিউজিক ভিডিও নিয়ে আপত্তি, কোক স্টুডিও থেকে প্রত্যাহার

    ঘরে বসেই কোরবানির পশু কেনা যাবে নগদে

    ঈদের আগমুহূর্তে জমজমাট ওয়ালটন ফ্রিজের বিক্রি

    বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানের বিদায়, সুপার এইটে যুক্তরাষ্ট্র