বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

সেকশন

 

হাতের লেখা সুন্দর করার ৫ কৌশল

আপডেট : ২২ মে ২০২৪, ০৮:৫০

হাতের লেখা সুন্দর করার ৫ কৌশল কোনো বিষয়ে লেখার ক্ষেত্রে ধরন ও অক্ষর সুন্দর না হলে দেখতে খারাপ লাগে। পড়তেও অসুবিধা হয়। হাতের লেখা সুন্দর হলে পরীক্ষায় শিক্ষকের মনে ইতিবাচক প্রভাব তৈরি হয়। তাই শিক্ষার্থীদের জন্য হাতের লেখা সুন্দর করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। হাতের লেখা সুন্দর করার পাঁচটি কৌশল নিয়ে লিখেছেন তাসনুভা চৌধুরী।

কলম ধরার ধরন 
আঙুলের মাধ্যমে চাপ দিয়ে কলম ধরে বেশিক্ষণ লিখলে হাত ব্যথা করে। হাত ক্লান্ত হয়ে যায়। এতে শুরুর দিকের লেখার সঙ্গে পরের লেখার ধরন আর মেলে না। অনেক সময় অপর পৃষ্ঠায়ও ছাপ পড়ে যায়। তাই লেখাও সুন্দর হয় না। বিপরীতে হাতের লেখা সুন্দর করতে চাইলে শুরুতেই ঠিকমতো কলম ধরা শিখতে হবে। এর জন্য নিজের সুবিধামতো কৌশলে কলম ধরতে পারেন। তবে হালকা শক্তি ব্যবহারের মধ্য দিয়ে কলম ধরার অভ্যাস করা ভালো, যেন হাতের ওপর খুব বেশি চাপ না পড়ে। 

বর্ণ লেখা শেখা
যেকোনো ভাষায় লেখার জন্য আগে বর্ণমালা শেখা জরুরি। একইভাবে হাতের লেখা সুন্দর করার জন্যও আগে বর্ণমালার প্রতিটি বর্ণ যথাযথভাবে লেখা আয়ত্ত করতে হবে। এর জন্য কারোর সুন্দর হাতের লেখা, কিংবা কম্পিউটারে পছন্দমতো কোনো ফন্টের প্রিন্ট সংগ্রহ করে অনুরূপ লেখার অনুশীলন করতে পারেন।

জায়গা বজায় রেখে লেখা
লেখা সুন্দর হলেও যদি প্রতিটি শব্দ ও লাইনের মাঝে পর্যাপ্ত ফাঁকা জায়গা না থাকে, তাহলে সে লেখাটি পড়তে অসুবিধা হয়। এমনকি দেখতেও খারাপ লাগে। তাই শব্দ ও লাইনের ব্যবধানে নির্দিষ্ট পরিমাণ জায়গা ফাঁকা রাখতে হবে। তবে খুব বেশি জায়গা ফাঁকা রাখলেও সমস্যা, দেখতে বেখাপ্পা লাগবে। আবার খুব কম জায়গাও ফাঁকা রাখা যাবে না যেন লেখাটি হিজিবিজি মনে না হয়। দেখা যায়, খাতায় লেখার সময় অনেকের লাইনগুলো বাঁকা হয়ে যায়। এর সমাধানে অভ্যাস তৈরির জন্য দাগ টানা খাতা ব্যবহার করে অনুশীলন করতে পারেন। লেখার সব অক্ষর সুন্দর না হলেও, প্রেজেন্টেশন সুন্দর হওয়ার সুবাদে দেখতেও সুন্দর লাগবে।

সঠিক কাগজ ও কলম নির্বাচন
হাতের লেখা সুন্দর করার জন্য সঠিক কাগজ ও কলম নির্বাচন করা খুব জরুরি। ওজনে হালকা কলম লেখার জন্য বেশ আরামদায়ক। তাই দেখতে সুন্দর কলম না কিনে; বরং লিখতে সুবিধা হবে এমন কলম দিয়ে লেখার অভ্যাস তৈরি করা উচিত। এ ছাড়া লেখার সময় কারোর হাত ঘেমে ওঠার সমস্যা থাকতে পারে। এই সমস্যা সমাধানে গ্রিপার কলম বাছাই করতে পারেন। এতে দীর্ঘ সময় সুন্দর করে লেখা যায়। পাশাপাশি লেখার জন্য ভালো কাগজও জরুরি। খেয়াল রাখতে হবে যে বেশি পাতলা কাগজে লেখা সুন্দর হয় না।

সময় নিয়ে লেখা ও অনুশীলন
হাতের লেখা সুন্দর করার জন্য কিছুদিন সময় নিয়ে প্রতিটি অক্ষর ধরে ধরে অনুশীলন করতে পারেন। তবে শুরুতেই খুব তাড়াতাড়ি লেখার চেষ্টা করা যাবে না। কিছুদিন অনুশীলনের পর ধীরে ধীরে লেখার গতি বাড়াতে হবে। মনে রাখবেন, খুব দ্রুত পরিবর্তন ঘটা জিনিস কখনো স্থায়ী হয় না। তাই সুন্দর করে লেখার অভ্যাস করার জন্য সময় ও অনুশীলনের বিকল্প নেই।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ট্রাস্ট ব্যাংকে চাকরির সুযোগ

    রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে চাকরির সুযোগ

    জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ পদে চাকরির সুযোগ

    অভিজ্ঞতা ছাড়াই ৬০,০০০ টাকা বেতনে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার নেবে ট্রাস্ট ব্যাংক

    জাতীয় বাতজ্বর ও হৃদ্‌রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে চাকরি

    বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি

    সিঙ্গাপুরে পালিয়ে আসিনি, চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরব: ভিডিও বার্তায় আছাদুজ্জামান মিয়া

    গাইবান্ধায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাড়ির ধাক্কায় বৃদ্ধার মৃত্যু

    মার্কোসের মন্ত্রিসভা থেকে দুতার্তে কন্যার পদত্যাগ, রাজনৈতিক সংকটের শঙ্কা

    ঈদের ছুটি শেষেও ঢাকা ছাড়ছে মানুষ

    চিলমারীতে ঝড়ে প্রায় শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত