রোববার, ১৬ জুন ২০২৪

সেকশন

 

কুষ্টিয়া আওয়ামী লীগের সেই সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

আপডেট : ১৯ মে ২০২৪, ১৪:০৩

কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খান। ছবি: সংগৃহীত কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী তাঁর ছোট ভাইয়ের নির্বাচনী পথসভায় ‘আমার সঙ্গে যারা বিরোধিতা করবে আল্লাহর সঙ্গে তারা বিরোধিতা করবে’ এমন বক্তব্য দেওয়ায় তাঁকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। 

গত ১১ মে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত নোটিশ থেকে এ তথ্য জানা গেছে। বিষয়টি গতকাল শনিবার জানাজানি হয়। 

কারণ দর্শানোর নোটিশে বলা হয়েছে, সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত আপনার বক্তব্য আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে এবং তা সংগঠনের রীতিনীতি ও আদর্শের পরিপন্থী। শিষ্টাচারবহির্ভূতভাবে প্রদত্ত আপনার বক্তব্য সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী এবং আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। 

নোটিশে আরও বলা হয়েছে, আপনার বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব আগামী ১৫ দিনের মধ্যে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে পাঠানোর জন্য সাংগঠনিক নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হচ্ছে। 

কারণ দর্শানোর নোটিশের অনুলিপি পাওয়া কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কয়েক দিন আগেই তিনি নোটিশটি হাতে পেয়েছেন। 

এর আগে ১ মে সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের গোসাইডাঙ্গি গ্রামে ছোট ভাই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রহিম উদ্দিন খানের নির্বাচনী পথসভায় তাঁর বক্তব্যের ২ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। 

বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আল্লাহ পাক উন্নয়ন করাবে আমাকে দিয়ে। আমার সঙ্গে যারা বিরোধিতা করবে, তারা আল্লাহর সঙ্গে বিরোধিতা করবে। শয়তানরাও মসজিদে আসবে, শয়তানরাও গোরস্থানে শোবে। শয়তানরা মসজিদে এসে সুখে থাকতে পারবে না। কোনো অক্তে যাবে, কোনো অক্তে যাবে না। আর গোরস্থানে গেলে শয়তানদের যেভাবে মাটিচাপা হবে, আপনারা কল্পনাই করতে পারবেন না।’ 

আওয়ামী লীগের এই নেতা আরও বলেন, ‘আমি শয়তানের অনুসারীদের বলব, শয়তানের সঙ্গে থেকে এই শাস্তি ভোগ করার দরকার নেই। যারা শয়তান কয়েকজন আছে থাক, তা বাদে সবাই আপনারা একসঙ্গে আসবেন। একসঙ্গে হয়ে জয় সুনিশ্চিত করেন। আল্লাহ পাকের রহমতে আজকে বলে গেলাম, জয় সুনিশ্চিত।’ 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, সদর উদ্দিন খান তার ভাইকে জেতানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। তার পক্ষে তিনি নির্বাচনী সভা-সমাবেশ করছেন। এর আগে তার ভাইয়ের পক্ষে নির্বাচন করার জন্য থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেনকে তুলে নিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে সদর উদ্দিন খানের বিরুদ্ধে। সে সময় দল থেকে বহিষ্কারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেন আওয়ামী লীগের একাংশের নেতা-কর্মীরা। 

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলে তিনি কলটি কেটে দেন। 

খোকসা উপজেলায় প্রথম ধাপে গত ৮ মে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আল মাসুম মোর্শেদ।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    রাজধানীর মহাখালীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে বাস চালকসহ ৪ জন

    কেন্দ্রীয় কারাগারের এক আসামির ঢামেকে মৃত্যু

    সাভারে উত্তরবঙ্গমুখী সড়কে বেড়েছে শেষ মুহূর্তের চাপ

    পুরান ঢাকার ব্যবসায়ী কেরানীগঞ্জ গিয়ে নিখোঁজ

    কোরবানির জন্য লালন করা গরু নিয়ে বিপাকে খামারিরা

    টিসিবির পণ্যের সংকট, খালি হাতে ফেরত গেলেন ২ ইউনিয়নের ৭ হাজার মানুষ

    রাজধানীতে ঈদের দিন হতে পারে বৃষ্টি

    রাজধানীর মহাখালীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে বাস চালকসহ ৪ জন

    কেন্দ্রীয় কারাগারের এক আসামির ঢামেকে মৃত্যু

    সুদের টাকা দিতে না পারায় কৃষকের ষাঁড় নিয়ে গেল দাদন ব্যবসায়ীরা

    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেরা দশে রিশাদ

    ‘তুফান’ সিনেমার ট্রেলার, শাকিব-চঞ্চলের সেয়ানে সেয়ানে লড়াইয়ের পূর্বাভাস