শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

সেকশন

 

জুজুৎসুর সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নারী খেলোয়াড়দের যতো অভিযোগ

আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ২১:১৩

গ্রেপ্তার মো. রফিকুল ইসলাম নিউটন। ছবি: সংগৃহীত বিদেশে ভ্রমণের প্রলোভন দেখিয়ে নারী খেলোয়াড়দের ধর্ষণের অভিযোগে বাংলাদেশ জুজুৎসু অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম নিউটনসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-১২। 

রফিকুল ইসলামকে রাজধানীর শাহ আলী এবং তাঁর এক নারী সহযোগীকে মিরপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। 

জুজুৎসু অ্যাসোসিয়েশনের একজন নারী খেলোয়াড় রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। এরপর র‍্যাব অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করে। 

গ্রেপ্তার রফিকুল ইসলাম নিউটন একজন জুজুৎসু খেলার প্রশিক্ষক। পাশাপাশি তিনি রাজধানীর শ্যামলীতে অবস্থিত বাংলাদেশ জুজুৎসু অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। অ্যাসোসিয়েশনের অধিকাংশ প্রশিক্ষণার্থীই নারী। 

আজ শনিবার সন্ধ্যায় র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার আরাফাত ইসলাম এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গ্রেপ্তার রফিকুল অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের মতো পদে থেকে প্রশিক্ষণার্থীদের ভালো অবস্থানে নিয়ে যাওয়া এবং বিদেশ ভ্রমণের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতনের মতো অপকর্ম করতেন বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন।

এ ছাড়া অ্যাসোসিয়েশনের অপ্রাপ্তবয়স্ক খেলোয়াড়রা গর্ভবতী হলে তাদের গর্ভপাত করানোর মতো ভয়ংকর কাজও করেছেন বলে জানা যায়। এমনকি তিনি অনুশীলনের আগে মেয়েদের পোশাক পরিবর্তনের কক্ষে প্রবেশ করে তাঁদের ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ ও নগ্ন ছবি তুলে রাখতেন। পরবর্তীতে ধারণকৃত নগ্ন ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করতেন। এ রকম একাধিক ঘটনা ঘটেছে। 

অ্যাসোসিয়েশনের গ্রেপ্তার অপর এক নারী খেলোয়াড়ের সহায়তায় যৌন হয়রানিসহ জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করতেন তিনি। 

রফিকের বিরুদ্ধে মামলা করা ওই ভুক্তভোগী গত দুই বছর ধরে জুজুৎসু অ্যাসোসিয়েশনে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে আসছিল। এ সময়ে রফিক বিভিন্ন অজুহাতে ভুক্তভোগীকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করতেন। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী প্র্যাকটিস শেষে চেঞ্জিং রুমে পোশাক পরিবর্তন করার সময় রফিকের সহযোগী এক নারী খেলোয়াড় ভুক্তভোগীকে রুমের মধ্যে আটকে রাখেন। এরপর রফিকুল ইসলামকে ডেকে আনে। রফিক রুমে প্রবেশ করে ভুক্তভোগীকে ধর্ষণ করেন বলে মামলায় ওই নারী অভিযোগ করেছেন। 

এমনকি ধর্ষণের সময় মোবাইলে ভিডিও ধারণ করেন। পরবর্তীতে নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে আরও ব্ল্যাকমেল করে। পরে ওই নারীকে তার একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    রূপগঞ্জে মেয়র প্রার্থীর প্রচারণায় ব্যবসায়ী নেতারা

    বিশ্বনাথ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আশ্রয় নেওয়া অর্ধশত বানভাসিকে তাড়িয়ে দিলেন কর্মকর্তা

    ঢাকায় ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা তরুণ গ্রেপ্তার

    সিলেটে চিনি ছিনতাই কাণ্ডে এবার পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রেপ্তার

    ‘পাঁচ টাকা কমে ধুন্দল বিক্রি’, চাচাকে পিটিয়ে হত্যা করল ভাতিজা

    সাদা অ্যাপ্রোন পরে গাইনি ওয়ার্ডে সন্দেহজনক ঘোরাঘুরি, তরুণীর বিরুদ্ধে মামলা

    ট্রেনের ছাদে উঠে ভ্রমণ, মাথায় আঘাত পেয়ে তরুণের মৃত্যু

    গভীর রাতে খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি 

    সাক্ষাৎকার

    আমাদের আরও অনেক কিছু দেওয়ার আছে: টিপু

    ফেরদৌসের আয়োজনে আজ ‘উচ্ছ্বাসে উৎসবে’

    ৫০০ কোটি টাকার ইভিএম যাচ্ছে ভাঙারিতে

    সিনেমা: তুফানের আন্তর্জাতিক মুক্তি ২৮ জুন