শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

মন্ত্রী-এমপিদের ফেসবুক আইডি ভেরিফায়েড করার পরামর্শ আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর

আপডেট : ০৯ মে ২০২৪, ২২:০৪

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ফাইল ছবি ফেক আইডি দিয়ে অপপ্রচার বন্ধে এমপি-মন্ত্রীদের ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফায়েড করার পরামর্শ দিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, ‘আপনারা (এমপি-মন্ত্রী) ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, ইউটিউব চ্যানেল ভেরিফায়েডের জন্য পাঠালে, আমরা ফেরিফাই করে দেব। ফলে ফেক আইডি দিয়ে আপনার নামে কেউ অপপ্রচার করতে পারবে না।’ 

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। 

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সম্পূরক প্রশ্নে বলেন, ফেক ফেসবুক আইডি খুলে জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ীদের চরিত্র হনন করা হচ্ছে। ইউটিউব আইডি খুলে মানুষের সম্মান নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। এটা বন্ধে মন্ত্রণালয়ের পদক্ষেপ সম্পর্কে জানতে চান তিনি। 

জবাবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এ সমস্যা শুধু বাংলাদেশের নয়, সারা পৃথিবীর সমস্যা। যেখানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুল তথ্য, ফিশিং, মাসকিং, এ ধরনের অপরাধ করা হচ্ছে। অপপ্রচার, গুজব ছড়িয়ে অনেকের প্রাণহানি হচ্ছে, অনেকেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদদের নামে অপপ্রচার হয়। ছাত্রী, বোন, কন্যাদের অনেক ডিপফেক ভিডিও বানিয়ে অথবা ইমেজটা ফটোশপ করে অপপ্রচার, মানহানিকর কনটেন্ট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। যে জন্য অনেক ছাত্র-ছাত্রী, কিশোরীর জীবন দিতে হচ্ছে। সেই জন্য সময়ের প্রয়োজনে সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট করেছি। কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হলে আইনের আশ্রয় নিতে পারে।’ 

এমপি-মন্ত্রীদের উদ্দেশে পলক বলেন, ‘এই প্ল্যাটফর্মটা মাল্টিন্যাশনাল, তাদের অফিস বাংলাদেশে রেজিস্ট্রেশন নেই। এই জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করছি। যাতে করে বাংলাদেশের কোনো ব্যক্তির বা প্রতিষ্ঠানের তথ্য অনুমতি না নিয়ে দেশের বাইরে নিয়ে যেতে না পারে এবং অপব্যবহার করতে না পারে। অভিযোগ করলে শক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ইন্টারনেটের ব্যয় পৃথিবীর অন্যতম সস্তা। যার অবদান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের।

বাংলাদেশের ৯৮ শতাংশ এলাকা ফোর-জি নেটওয়ার্কের আওতাধীন বলেও দাবি করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, এখন দেশে ১৯ কোটি সিম ব্যবহারকারী।

 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে টিকিট বিক্রি করেন কালোবাজারিরা

    ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত ১ হাজারের বেশি স্কুল-কলেজ

    গোয়েন্দা তথ্য না থাকলে ঈদযাত্রায় যানবাহনে তল্লাশি নয় 

    ইউনিফর্মে পুলিশ টিকটক করলে কঠোর ব্যবস্থা

    বেনজীরের অবৈধ সম্পদের প্রমাণ মিলেছে, দুদকের মামলা শিগগির

    তদন্তে সুস্পষ্ট অভিযোগ না পেলে কাউকে ডাকা হয় না: হারুন

    ছোট গরুর বিক্রি বেশি, দামও চড়া 

    কী ঘটেছিল তালেবানদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো সেই নারীদের ভাগ্যে

    ঈদের ছুটিতে মহিলা সমিতির মঞ্চে প্রাঙ্গণেমোরের ‘অভিনেতা’

    ইংল্যান্ডপ্রবাসী তরুণীর ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

    সশস্ত্র সংগ্রামের পক্ষে অধিকাংশ ফিলিস্তিনি, বেড়েছে হামাসের সমর্থন: জরিপ 

    বিশ্বকাপের মাঝপথে বড় ধাক্কা খেল আফগানিস্তান