সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

সেকশন

 

ক্ষমতায় ও বিরোধী দলে থাকবে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি: নানক

আপডেট : ০৭ মে ২০২৪, ২৩:২৭

মঙ্গলবার গাজীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক সংসদ সদস্য আহসানউল্লাহ মাস্টারের ২০ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভায় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি: আজকের পত্রিকা আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ‘জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে পুনর্বাসন করেছিল। আজকের বাংলার মানুষ, নতুন প্রজন্মের সিদ্ধান্ত পরিষ্কার—ক্ষমতায় থাকবে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি, বিরোধী দলেও থাকবে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি।’

আজ মঙ্গলবার গাজীপুর মহানগরীর হায়দরাবাদে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক সংসদ সদস্য আহসান উল্লাহ মাস্টারের ২০ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় তিনি বিএনপি-জামায়াতকে উদ্দেশ করে নানক বলেন, ‘কাজেই আপনাদের বাংলার জনগণ যে রেড কার্ড দেখিয়েছে, সেটা আপনাদের উপলব্ধিতে আসতে হবে। আর যদি উপলব্ধিতে না আসে, তাহলে আপনারা ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হতে বাধ্য।’

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী অভিযোগ করে বলেন, ‘ওরা আমাদের ২১ হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যা করেছিল। সেই ২১ হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যাকারীরা এখন বলে গণতন্ত্রের কথা, মানবতার কথা!’

শহীদ আহসানউল্যাহ মাস্টারের বড় ছেলে সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপির সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন—আওয়ামী লীগের কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি আলাউদ্দিন মিয়া, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্যাহ খান, সাধারণ সম্পাদক আতাউল্যাহ মণ্ডল, জেলা যুব লীগের আহ্বায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল প্রমুখ।

এ দিন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মশিউর রহমান, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবরে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়।

মঙ্গলবার দিনব্যাপী শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারের কবরে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, স্মরণসভা, মিলাদ-দোয়া এবং খাবার বিতরণ করা হয়।

এ ছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আহসানউল্লাহ মাস্টার স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ৭ মে একদল সন্ত্রাসী নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে আহসানউল্ল্যাহ মাস্টারকে। ২০০৫ সালের ১৬ এপ্রিল দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের রায়ে বিএনপির নেতা নূরুল ইসলাম সরকারসহ ২২ জনের মৃত্যুদণ্ড, ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। মৃত্যুদণ্ড পাওয়াদের মধ্যে আল আমিন ও রতন ওরফে ছোট রতন মারা গেছেন। 

পরে ২০১৬ সালের ১৫ জুন এ মামলার আপিলের রায় হয়। আপিলে ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড ও দুজনের যাবজ্জীবন বহাল থাকে। মৃত্যুদণ্ড পাওয়া ৭ জনের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয় এবং ১১ জন খালাস পেয়েছেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    সেন্ট মার্টিনে যুদ্ধজাহাজ দেশের সার্বভৌমত্বের ওপর হুমকি: মির্জা ফখরুল

    সেন্ট মার্টিন ইস্যুতে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: ওবায়দুল কাদের

    সেন্ট মার্টিন নিয়ে সরকারের নীরবতা ‘দাসসুলভ’ মনোভাব: মির্জা ফখরুল

    আমরা আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেব না: সেন্ট মার্টিন নিয়ে ওবায়দুল কাদের

    নিজে সুফল পাবে না বলে বিএনপিকে নির্বাচনে যেতে দেয় না তারেক: কাদের

    ঢাকা-চট্টগ্রাম-বরিশাল মহানগর বিএনপি ও যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত

    পাটকেলঘাটায় বিদ্যুতায়িত হয়ে শ্রমিক নেতার মৃত্যু 

    সাবধানে মাংস কাটাকাটি করতে অনুরোধ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

    ‘বাড়ি বদলেছি ২১ বার, ভাঙন দেখতে দেখতে চুল সাদা হয়ে গেল’

    আগামীকালের মধ্যে কোরবানি শেষ করার আহ্বান মেয়র আতিকের

    খাবারে ব্লেড পাওয়া যাত্রীকে অফার দিয়ে শান্ত করতে চাইল এয়ার ইন্ডিয়া