সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

সেকশন

 

হাওরে কৃষক ছাউনি নির্মাণের দাবি কৃষকদের

আপডেট : ০৪ মে ২০২৪, ১৫:৪৮

হাওরে বসে দুপুরের খাবার খাচ্ছেন এক কৃষক। জগন্নাথপুর উপজেলার নলুয়ার হাওরে। ছবি: আজকের পত্রিকা  হাওরে কৃষকদের প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে সুরক্ষায় ও বিশ্রামের সুযোগ করে দিতে কৃষক ছাউনি নির্মাণের দাবি তুলেছেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সর্ববৃহৎ নলুয়ার হাওরের কৃষকেরা। 

উপজেলা কৃষি কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার ধান চাষের সব চেয়ে বড় উৎস এই উপজেলার নলুয়ার হাওর। এ হাওর উপজেলার চিলাউড়া-হলিদপুর, কলকলিয়া ইউনিয়ন ও পৌরসভার এলাকা ছাড়াও দিরাই এবং ছাতক উপজেলায় বিস্তৃত। প্রায় ১০ হাজার হেক্টর আয়তনের এ হাওরে আবাদ করা জমির পরিমাণ ৪ হাজার ৪১০ হেক্টর। চলতি বোরো মৌসুমে ওই হাওরে প্রায় ২৮ হাজার ৩২০ মেট্রিকটন ধান উৎপাদন হয়েছে। 

কৃষকেরা জানান, বিশাল এ হাওরজুড়ে কোথাও নেই কোনো ঘর-বাড়ি বা গাছপালা। নেই বিশ্রামের নির্দিষ্ট কোনো স্থান। তীব্র গরম, ঝড়বৃষ্টি কিংবা বজ্রপাতের সময়ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কৃষকদের হাওরে কাজ করতে হয়। ফলে প্রতি বছরেই নানা বিপত্তিকর অবস্থায় পড়তে হয় তাঁদের। ঘটে প্রাণহানির ঘটনা। এ সব প্রতিকূল অবস্থা থেকে রক্ষা পেতে ও বিশ্রামের সুযোগ করে দিতে হাওরের বুকে কৃষক ছাউনি নির্মাণের দাবি তাঁদের। 

স্থানীয় কৃষক রহমান আলী আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘ঝড়-বৃষ্টি বজ্রপাতেও আমাদের মাঠে কাজ করতে হয়। কোথাও নেই একটু নিরাপদ আশ্রয়স্থল। বৃষ্টি শুরু হলে কোথাও যাওয়ার উপায় নেই। নলুয়ার হাওরে দুই একটি ছাউনি নির্মাণ করা হলে নিরাপদে বিশ্রাম নিতে পারব।’ 

 ‘কৃষক ছাউনি নির্মাণ করা হলে হাওরের কৃষকেরা বজ্রপাতের সময় আশ্রয় নিতে পারবেন। রোদ-বৃষ্টিতে হাওরের খোলা আকাশের নিচে বসে খাওয়া-দাওয়া করতে হয়। কৃষকদের জন্য হাওরে ছাউনি নির্মাণের দাবি জানাই।’ বলেন আরেক কৃষক জাহেদ মিয়া। 

চিলাউড়া-হলিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শাহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, কৃষকেরা সাধারণত সারা দিন মাঠে কাজ করেন। দুপুরে বাড়ি যাওয়ার সময় পান না। তাই রোদে কিংবা বৃষ্টির সময় নিরাপদে বসার কোনো জায়গা নেই। হাওরগুলোতে যদি কৃষক ছাউনি নির্মাণ করা হয় কৃষকেরা খুবই উপকৃত হবেন। 

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কাওসার আহমেদ বলেন, ‘আমরা প্রায় সংবাদমাধ্যমে দেখি কৃষকেরা মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে মারা যাচ্ছেন। হাওরে যদি ছাউনি নির্মাণ করা হয় অন্তত কৃষকেরা কিছুটা হলেও বজ্রপাত ও ঘূর্ণিঝড় থেকে রক্ষা পাবেন। ছাউনি নির্মাণে কৃষকদের পক্ষ থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছে দাবি জানানো হয়েছে।’ 

এদিকে গত ১৮ এপ্রিল নলুয়ার হাওরে বোরো ধান কাটা উৎসবে সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের কাছে কৃষকদের পক্ষ থেকে কৃষক ছাউনি নির্মাণ ও নলকূপ স্থাপনের দাবি জানান উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কাওসার আহমদ। এ দাবির প্রেক্ষিতে সংসদ সদস্য কৃষকদের আশ্বস্ত করেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    পাহাড়ি ঢল ও ভারী বৃষ্টিতে সিলেটের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

    কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে গোসলে নেমে কিশোর নিখোঁজ 

    বিরামপুরে ঈদের সেমাই কিনতে যাওয়ার পথে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ নিহত ২ 

    জীবননগরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মুসল্লি নিহত

    নিয়ামতপুরে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা, তরুণ নিহত

    ভারী বৃষ্টিতে সিলেট নগরীতে জলাবদ্ধতা, নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে

    খাবারে ব্লেড পাওয়া যাত্রীকে অফার দিয়ে শান্ত করতে চাইল এয়ার ইন্ডিয়া

    পাহাড়ি ঢল ও ভারী বৃষ্টিতে সিলেটের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

    মসজিদের শয়নকক্ষে ঢুকে ইমামকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

    এবার লেখিকার ভূমিকায় আলিয়া ভাট

    বাংলাদেশ এত বেশি ম্যাচ আর কোনো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জেতেনি

    ঈদুল আজহা কোন দেশে কেমন