সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

সেকশন

 

সন্ন্যাসী পালক পুত্রের সঙ্গে বিছানায় থাই রাজনীতিবিদ, ভিডিওসহ স্বামীর অভিযোগে দেশজুড়ে তোলপাড়

আপডেট : ০২ মে ২০২৪, ১৮:৩২

প্রাপাপোর্ন চোয়েইওয়াডকো ও তাঁর পালক পুত্র ফ্রা মাহা। ছবি: সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট থাইল্যান্ডের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলো সয়লাব হয়ে গেছে একটি ভিডিওচিত্রে। এতে দেখা যাচ্ছে, দেশটির জনপ্রিয় এক নারী রাজনীতিবিদ তাঁর পালক পুত্রের সঙ্গে একটি বিছানায় অপ্রস্তুত অবস্থায় রয়েছেন। ভিডিও থেকে নিজেদের লুকানোর চেষ্টা করছেন তাঁরা। 

এ বিষয়ে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভিডিওচিত্রের নারীটি আর কেউ নন, থাইল্যান্ডের ৪৫ বছর বয়সী রাজনীতিবিদ প্রাপাপোর্ন চোয়েইওয়াডকো। আর যে পালক পুত্রের সঙ্গে তিনি বিছানায় ছিলেন ২৪ বছর বয়সী ফ্রা মাহা নামের সেই যুবক একজন সন্ন্যাসী। চাঞ্চল্যকর তথ্য হলো—যিনি ভিডিওটি করেছেন, তিনি হলেন প্রাপাপোর্নের স্বামী। স্ত্রীকে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত অবস্থার মধ্যে হাতেনাতে ধরে ফেলেছেন তিনি। পরে ওই ভিডিও তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়ে দিয়েছেন। 

স্বামীর অভিযোগ, তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই পালক পুত্রের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের বিষয়ে প্রাপাপোর্নকে সন্দেহ করছিলেন। পরে তাঁদের হাতেনাতে ধরতে একটি পরিকল্পনা করেন। শেষ পর্যন্ত তাঁর অনুমানই ঠিক হয়েছে। দুজনকে একসঙ্গে নগ্ন অবস্থায় বিছানায় আবিষ্কার করেছেন তিনি।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট জানিয়েছে, প্রাপাপোর্ন এবং তাঁর স্বামী গত বছর একটি আশ্রম থেকে সন্ন্যাসী ফ্রা মাহাকে দত্তক নিয়েছিলেন। কারণ, ফ্রাকে দেখে প্রাপাপোর্নের মনে খুব মায়ার উদ্রেক হয়েছিল বলে স্বামীকে জানিয়েছিলেন। এবার হাতেনাতে ধরা পড়ার পর অবশ্য পালিয়ে গেছেন সেই ফ্রা মাহা। 

এ ঘটনাটি থাইল্যান্ডসহ আশপাশের কয়েকটি দেশের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের বড় ধরনের ধাক্কা দিয়েছে। এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে একজন লিখেছেন, ‘নানা কারণে এই খবরটি বিস্ফোরক। এটাকে সত্যিকারের একটি উপাখ্যান মনে হচ্ছে। ধনী মানুষদের পৃথিবী আসলে চিত্তাকর্ষক এবং বিশৃঙ্খল।’ 

আরেকজন লিখেছেন, ‘৬৪ বছরের স্বামী, ৪৫ বছরের স্ত্রী এবং ২৪ বছরের পালক পুত্র—যে কি না আবার সন্ন্যাসী! এটা এমনই জগাখিচুড়ি। দত্তক নেওয়ার চেয়ে একটি টয়-বয় নিলেই বরং ভালো হতো। নাটকগুলো পর্যন্ত এমন কাহিনি তৈরির সাহস পায় না।’ 

যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে গেছে, সেটিতে দেখা যাচ্ছে, ভিডিও করা ব্যক্তি (স্বামী) বিব্রতকর অবস্থায় থাকা প্রাপাপোর্ন এবং ফ্রা মাহাকে জিজ্ঞেস করছেন, ‘তোমরা দুজন কি এবার সুখী?’

প্রাপাপোর্ন এ সময় আত্মপক্ষ সমর্থনের চেষ্টা করছিলেন এবং দাবি করেন, তাঁরা কোনো যৌনতায় লিপ্ত হননি, শুধু গল্প করছিলেন। 

এ সময় পালক পুত্র ফ্রা মাহাও নিজেকে নির্দোষ দাবি করছিলেন এবং বলছিলেন, ‘কিছুই ঘটেনি।’

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাপাপোর্ন চোয়েইওয়াডকো সেন্ট্রাল থাইল্যান্ডের সুখোথাই প্রদেশের জনপ্রিয় একজন রাজনীতিবিদ। শুধু তা-ই নয়, স্থানীয় চেম্বার অব কমার্সেরও সভাপতি তিনি। গত বছরের মার্চ মাস থেকে তিনি দেশটির ডেমোক্র্যাট পার্টির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ঘটনার জের ধরে ইতিমধ্যে পার্টি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে প্রাপাপোর্নকে। এ ঘটনা নিয়ে একটি তদন্তও শুরু হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    ফ্রিজে গরুর মাংস পেয়ে ১১ মুসলিমের বাড়ি ভাঙল মধ্যপ্রদেশের পুলিশ

    কী ঘটেছিল তালেবানদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো সেই নারীদের ভাগ্যে

    ভগবান বিজেপিকে থামিয়ে দিয়েছেন, মন্তব্য আরএসএস নেতার

    শপথের পরদিনই সিকিমের বিধানসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রীর পদত্যাগ, নানা প্রশ্ন

    কেন অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমাচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের মানুষ

    মিয়ানমারের জান্তা সরকারকে ৬ পেট্রল বোট দিল চীন 

    মানিকছড়িতে ঘুরতে গিয়ে হ্রদের পানিতে ডুবে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

    অভিবাসীকে গ্রিক কোস্টগার্ডের সমুদ্রে ছুড়ে ফেলার প্রমাণ পেল বিবিসি

    এক লাফে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেরা দশে তানজিম সাকিব-মোস্তাফিজ

    ‘দরদ’ সিনেমার টিজার, বুকে কাঁপন ধরিয়েছেন শাকিব খান

    ঈদ সাধারণ মানুষের জন্য আনন্দের বার্তা আনেনি: মির্জা ফখরুল

    দখলদারদের পেটে ২০ হাজার পুকুর-দিঘি, হারাচ্ছে আসকারদীঘি-বলুয়ারদীঘিও