বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

সেকশন

 

ডলারভর্তি ব্যাগ পাওয়ার ৮ ঘণ্টা পর এমভি আবদুল্লাহকে মুক্তি দেয় দস্যুরা

আপডেট : ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪:২৯

এমভি আবদুল্লাহ। ফাইল ছবি ৩৩ দিন পর জিম্মি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহর ২৩ নাবিক মুক্ত বাতাসে এলেন। সোমালিয়ার উপকূলে জিম্মি জাহাজ ও নাবিকদের সোমালিয়ান সময় গতকাল শনিবার রাত ১২টা ৮ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ৩টা ৮ মিনিট) দস্যুরা নেমে যাওয়ার পর সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল হারমিয়া বন্দরের উদ্দেশে যাত্রা করে জাহাজটি। এমভি আবদুল্লাহ সোমালিয়া উপকূল পার হওয়ার সময় দুটি যুদ্ধজাহাজ পাহারায় ছিল।

দস্যুদের মুক্তিপণ দেওয়ার পর জাহাজের নাবিকেরা উল্লসিত হয়ে পড়েন। জিম্মি থেকে মুক্ত নাবিকেরা তখনই তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কাছে মোবাইল ফোনে আনন্দের খবরটি জানান। গভীর রাতেই নাবিকদের ঘরে স্বস্তির ঈদ আনন্দ খেলে যায়।

মুক্তিপণের অর্থ পরিশোধের সময় জিম্মি জাহাজটির অদূরে ছিল ইউরোপীয় ইউনিয়নের নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ। আবার স্থলভাগে ছিল সোমালিয়ার পান্টল্যান্ড পুলিশের টহল।

এদিকে পরিবারের সদস্যদের কাছে নাবিকদের দেওয়া তথ্য থেকে জানা গেছে, ছোট উড়োজাহাজ থেকে এমভি আবদুল্লাহর পাশে ডলারভর্তি ব্যাগ ফেলা হয়। জাহাজের পাশে আগে থেকেই স্পিডবোটে করে অপেক্ষায় ছিল দস্যুদের একটি দল। ডলারভর্তি ব্যাগ পানি থেকে সংগ্রহ করার প্রায় আট ঘণ্টা পর গভীর রাতে দস্যুরা জাহাজটিকে মুক্তি দেয়।

ডলারভর্তি ব্যাগ পানিতে দস্যুদের হাতে ফেলার আগে নাবিকদের জাহাজের ডেকে নিয়ে আসা হয়। তাঁদের এক সারিতে দাঁড় করায় দস্যুরা। এ সময় পেছন থেকে নাবিকদের দিকে অস্ত্র তাক করে ছিল দস্যুরা। পরে উড়োজাহাজ থেকে নাবিকদের প্রতি ইশারায় হাত তোলার ইঙ্গিত দেওয়া হয়। এরপর সব নাবিক হাত তোলেন। ২৩ নাবিকের সবাই জীবিত ও ডেকে উপস্থিতি নিশ্চতি হওয়ার পরই উড়োজাহাজ থেকে ডলারের ব্যাগ ফেলা হয়। তবে ব্যাগে কত ডলার ছিল, তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি। মালিকপক্ষ থেকেও বিষয়টি জানানো হয়নি।

এমভি আবদুল্লাহর মালিকপক্ষ কেএসআরএম গ্রুপের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান জাহাজ ও নাবিকদের মুক্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। যুদ্ধজাহাজের পাহারায় জাহাজটি সোমালিয়া উপকূল ত্যাগ করার কথাও জানান তিনি।

কেএসআরএম গ্রুপের এই কর্মকর্তা আজ রোববার ভোর ৪টা ২৫ মিনিটে এক ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘জলদস্যুতার শিকার হওয়া এমভি আবদুল্লাহ মুক্তি পেয়েছে! আলহামদুলিল্লাহ। সকল ক্রু নিরাপদ আছেন এবং শীঘ্রই বাড়ি ফিরে আসবেন।’

তথ্যমতে, ১২ মার্চ মোজাম্বিকের মাপুতো বন্দর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল হারমিয়া বন্দরে যাওয়ার পথে ভারত মহাসাগরে জলদস্যুদের কবলে পড়ে এমভি আবদুল্লাহ। জাহাজটি জিম্মি করার পর সোমালিয়ার গদভজিরান জেলার জেফল উপকূলের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। ৯ দিনের মাথায় দস্যুরা প্রথম মুক্তিপণের দাবি জানায়। প্রায় দুই সপ্তাহ দর-কষাকষির পর মুক্তিপণের অঙ্ক চূড়ান্ত হয়। সেই থেকে মুক্তির প্রহর গুনতে থাকেন নাবিকেরা।

এ বিষয়ে একটি জাহাজের ক্যাপ্টেন আতিক ইউ খান বলেন, আগামী ২১ এপ্রিল এমভি আবদুল্লাহ দুবাইয়ে পৌঁছাবে। সেখান থেকে ফিরবে দেশে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ভারতে দ্বিপক্ষীয় সফরে গিয়ে যা যা করবেন প্রধানমন্ত্রী

    ঈদের ছুটির পর অফিস খুলল, নতুন সময়সূচি ৯টা-৫টা

    ছুটি শেষে বুধবার থেকে খুলছে অফিস, চলবে নতুন সময় অনুযায়ী

    কবি অসীম সাহা মারা গেছেন

    সেক্টর কমান্ডার কে এম সফিউল্লাহ গুরুতর অসুস্থ

    দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

    রাজধানীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

    ম্যাচসেরা

    ইংলিশ সল্টের ঝাঁজ ভালোই টের পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

    দুদিনেও উইকেটের দেখা পাননি শান্তরা

    কোটিপতি কমলেও ক্ষুদ্র হিসাব বেড়েছে

    শুধু শান্ত নয়, অন্য দলের টপ অর্ডারও ভুগছে: হাথুরু