বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

সেকশন

 
ফ্যাক্টচেক

বয়কটের মুখে পড়ে বর্ণহীন নতুন পানীয় আনল কোকাকোলা?

আপডেট : ২৭ এপ্রিল ২০২৪, ১৪:৫০

গাজায় হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধকে কেন্দ্র করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পশ্চিমা পণ্য বর্জনের ক্যাম্পেইন চলছে বিগত কয়েক মাস ধরে। এসব পণ্যের মধ্যে অন্যতম কোমল পানীয় ব্র্যান্ড কোকাকোলা। সম্প্রতি ব্র্যান্ডটির ‘কোকাকোলা ক্লিয়ার’ নামে একটি সংস্করণের ছবি প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে, বিশ্বজুড়ে বয়কটের মুখে ব্র্যান্ডটি বর্ণহীন পানীয় এনে নতুন রূপে আত্মপ্রকাশ করেছেন। গত ২২ মার্চ ‘বয়কট ইন্ডিয়ান প্রোডাক্টস’ নামের প্রায় ৭৭ হাজার সদস্যের একটি ফেসবুক গ্রুপে এমন দাবিতে করা একটি পোস্ট সবচেয়ে ভাইরাল হয়েছে। বয়কটের মুখে কোকাকোলা বর্ণহীন নতুন পানীয় এনেছে দাবিতে ভাইরাল পোস্ট। ছবি: ফেসবুক ‘কোকাকোলা ক্লিয়ার’-এর ভাইরাল সংস্করণের ছবিটি প্রসঙ্গে কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ম্যাগাজিন এস্কয়ারে ২০১৮ সালের ৬ জুন প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ওই বছরের ১১ জুন কোকাকোলা জাপানে কোকাকোলা ক্লিয়ার নামে নতুন একটি পানীয় আনার ঘোষণা দেয়। পানীয়টি হবে কোকাকোলার প্রচলিত ক্যারামেল উপাদানের বাইরে লেবুর স্বাদ যুক্ত জিরো ক্যালোরিবিশিষ্ট। 

প্রতিবেদনটি থেকে আরও জানা যায়, এটি কেবল জাপানেই আনার পরিকল্পনা ছিল কোম্পানিটির। নতুন নয়, কোকাকোলার বর্ণহীন নতুন পানীয়টি ২০১৮ সাল থেকেই জাপানের বাজারে আছে। ছবি: যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ম্যাগাজিন এস্কয়ার পরে আরও খুঁজে জাপানি সংবাদ মাধ্যম জাপান টুডেতে একই বছরের ১০ জুন প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে কোকাকোলা ক্লিয়ার সম্পর্কে বলা হয়, ওই সময়েই কোকাকোলা জাপানের বাজারে কোমল পানীয়ের এই সংস্করণ আনে। এটি কোকাকোলার প্রচলিত রং ও স্বাদ থেকে ভিন্ন ধরনের। জাপানের বাইরে এই সংস্করণ পাওয়া যাবে কি না তা নিয়ে কোকাকোলা কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি। 

হংকংভিত্তিক ইংরেজি ভাষার সংবাদপত্র সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টে ২০১৮ সালের ৬ জুন প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকেও একই তথ্য পাওয়া যায়। 

অর্থাৎ কোকাকোলা ক্লিয়ার সংস্করণটি বিশ্বজুড়ে বয়কট আন্দোলনের মুখে নতুন করে বাজারে আনা হয়নি। পণ্যটি ২০১৮ সাল থেকেই জাপানের বাজারে বিদ্যমান। 

‘কোকাকোলা ক্লিয়ার’ এই সংস্করণ কী বাংলাদেশে পাওয়া যায়? 

কোকাকোলা বাংলাদেশের ওয়েবসাইট সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশে কোকাকোলার তিনটি সংস্করণ পাওয়া যায়। এগুলো হলো সাধারণ কোকাকোলা, কোকাকোলা জিরো সুগার এবং ডায়েট কোক। অর্থাৎ কোকাকোলা ক্লিয়ারের সংস্করণটি বাংলাদেশে পাওয়া যায় না। 

প্রসঙ্গত, ইতিপূর্বে কোকাকোলা বয়কটকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত একই ভুল তথ্য ছড়িয়ে পড়তে দেখেছে আজকের পত্রিকার ফ্যাক্টচেক বিভাগ। যা পরে অনুসন্ধানে মিথ্যা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। 

এমন কিছু প্রতিবেদন পড়ুন: 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
    ফ্যাক্টচেক

    রাজ–বুবলির বিয়ের গুজব যেভাবে ছড়াল

    ফ্যাক্টচেক

    নাইট ক্লাবের নামে ইয়াজিদিদের ধর্মীয় আচারের ভিডিও ভাইরাল

    ফ্যাক্টচেক

    বঙ্গবন্ধু টানেল ছিদ্র হয়ে পানি ঢুকছে দাবিতে চীনের ভিডিও ভাইরাল

    ফ্যাক্টচেক

    ঘূর্ণিঝড় রিমালে ভাঙা ঘরে মা–সন্তানের করুণ দৃশ্য ভাইরাল, ছবিটি সত্যি নয়

    ফ্যাক্টচেক

    ঐশ্বরিয়া রাই ফের মা হয়েছেন দাবিতে ভাইরাল ছবিগুলো এডিটেড

    ফ্যাক্টচেক

    ময়মনসিংহে ৮০ বছরের বৃদ্ধের অষ্টাদশী স্ত্রী— ভাইরাল ভিডিওটি সত্যি নাকি নাটক

    পোশাক কারখানা এলাকার পানিতে ভয়ানক রাসায়নিক

    ইংল্যান্ড-পাকিস্তানের ম্যাচ দেখবেন কোথায়

    ইসরায়েল থেকে ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার

    নোয়াখালীর ৩ উপজেলায় আওয়ামী লীগের জয়

    বিশ্বকাপে যেকোনো দলকে হারানোর দক্ষতা আছে, বলছেন তানজিম সাকিব