বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

সেকশন

 

রোলেক্স ঘড়ি দুর্নীতি: অভিশংসন এড়ালেন পেরুর প্রেসিডেন্ট

আপডেট : ০৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:০০

পেরুর প্রেসিডেন্ট দিনা বোলুয়ার্তে। ছবি: সংগৃহীত বিলাসবহুল রোলেক্স ঘড়ি এবং গয়না সংক্রান্ত দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে পেরুর প্রেসিডেন্ট দিনা বোলুয়ার্তের বিরুদ্ধে। এ প্রেক্ষিতে পেরুর পার্লামেন্টে তাকে অভিশংসনের প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছিল। তবে এই অভিশংসন প্রচেষ্টা এড়াতে পেরেছেন দিনা বোলুয়ার্তে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এক প্রতিবেদনে খবরটি দিয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিনা বোলুয়ার্তের বিরুদ্ধে অভিশংসন বিতর্কের প্রস্তাব তোলা হয়েছিল দুইবার। পেরুর আইনপ্রণেতারা দুইবারই এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। প্রথমবার ৪৯-৩৩ ভোটে এবং দ্বিতীয়বার ৫৯-৩২ ভোটে প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যাত হয়। প্রথম ভোটে ১২ এবং দ্বিতীয়বার ১১ জন ভোট দেননি।

লাতিন আমেরিকার দেশটিতে নেতাদের বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রচেষ্টা ক্রমবর্ধমানভাবে বাড়ছে। দেশটিতে ২০১৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট হয়েছেন ছয়জন। পেরুর সংবিধানে নৈতিক অক্ষমতা নামক এক অস্পষ্ট বিধানের ভিত্তিতে অভিশংসনের প্রক্রিয়া চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর জন্য আইনিভাবে অন্যায় প্রমাণিত হওয়ার প্রয়োজন হয় না। অভিশংসনের জন্য পার্লামেন্টের ১৩০ সদস্যের চেম্বার থেকে মাত্র ৮৭টি ইতিবাচক ভোটের প্রয়োজন।

বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পেরুর প্রেসিডেন্ট দিনা বোলুয়ার্তের হাতে যেসব ঘড়ি দেখা যায় সেগুলো এতটাই দামি যে তাঁর বেতন–ভাতা বা আয়ের সঙ্গে কোনোভাবেই সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। তাই এই অপ্রকাশিত সম্পদ বা বিলাসবহুল ঘড়ির পেছনে সম্ভাব্য দুর্নীতি তদন্তের অংশ হিসেবে প্রেসিডেন্টের বাসভবনে গত শনিবার অভিযান চালিয়েছিল প্রায় ৪০ জন পুলিশ কর্মকর্তা।

পেরুর স্থানীয় নিউজ আউটলেট লা এনসাররোনাতে প্রতিবেদন প্রকাশের পর কর্তৃপক্ষ গত মাসে প্রেসিডেন্ট বোলুয়ার্তের সম্পদের বিষয়ে তদন্ত শুরু করে। ওই সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্টকে রোলেক্স ঘড়ি পরতে দেখা গেছে।

সরকারি বেতনে কীভাবে এত ব্যয়বহুল ঘড়ি পরতে পারেন সে প্রশ্নের জবাবে, প্রেসিডেন্ট সংবাদমাধ্যমটিকে বলেছিলেন, ১৮ বছর বয়স থেকে কঠোর পরিশ্রমের ফল এটি। শোনা যায়, ব্যক্তিগত বিষয়গুলো ঘাঁটাঘাঁটি না করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন প্রেসিডেন্ট।

আল জাজিরার সাংবাদিক মারিয়ানা সানচেজ লিমা থেকে জানান, বিশেষজ্ঞরা অনুমান করছেন, প্রেসিডেন্টের ওই ঘড়ির দাম প্রায় ৫ লাখ মার্কিন ডলার।

মারিয়ানা সানচেজ বলেন, প্রেসিডেন্ট বা ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে বোলুয়ার্তে একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রধান ছিলেন। সেখানে তাঁর মাসিক বেতন ছিল ১ হাজার ডলার। আর এখন প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রতি মাসে প্রায় ৪ হাজার ৩০০ ডলার ভাতা পান। ফলে অনেকে বলছেন, প্রেসিডেন্ট এই ঘড়ি কেনার সামর্থ্য রাখেন না।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ইরানের দ্বিতীয় পবিত্রতম শহরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে রাইসির মরদেহ

    রাইসিকে উদ্ধারে যোগ না দেওয়ার কারণ জানাল যুক্তরাষ্ট্র 

    ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

    রাইসির মৃত্যুতে তেল ও সোনার বাজারে প্রভাবের শঙ্কা

    রাইসিকে খুঁজে পাওয়ার পর আকাশে চাঁদ-তারা আঁকল তুর্কি ড্রোন

    রাইসির জন্য আমরা এক ফোঁটা অশ্রুও ফেলব না: ইসরায়েলি রাজনীতিক

    উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

    দ্বিতীয় ধাপের ভোটে যাঁরা চেয়ারম্যান হলেন

    সিলেটে নির্বাচনে হেরে আ.লীগ নেতাকে বেইজ্জতি করার হুমকি

    সিলেট থেকে সরাসরি হজ ফ্লাইট চালু

    পুনের পোর্শেকাণ্ড: আড়াই হাজার টাকার জন্য লাইসেন্স ছিল না সাড়ে ৩ কোটির গাড়িটির

    এমপি আনোয়ারুল আজীমকে খুন করতে ৫ কোটি টাকার চুক্তি

    যেসব কারণে ভ্রমণ ও পর্যটন সূচকে তলানিতে বাংলাদেশ