রোববার, ১৯ মে ২০২৪

সেকশন

 

ধবলধোলাই হওয়ার আগে মিরাজের লড়াই  

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩:৩৮

১১০ বলে ৮১ রান করে অপরাজিত থাকেন মেহেদী হাসান মিরাজ। মিরাজের ষষ্ঠ টেস্ট ফিফটি চট্টগ্রামে বাংলাদেশের হারের ব্যবধানটাই কমাতে পেরেছে। ছবি: এএফপি 

সিলেট, চট্টগ্রাম দুই টেস্টেই বাংলাদেশকে ৫১১ রানের লক্ষ্য দিয়েছে শ্রীলঙ্কা। প্রথম টেস্টে অবশ্য লঙ্কানরা জিতেছে চার দিনের মধ্যেই। পার্থক্য হচ্ছে, চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টেস্টটা গড়িয়েছে পাঁচ দিনে। শেষের দিকে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজের লড়াইয়ে পরাজয়ের ব্যবধানটাই শুধু কমাতে পেরেছে বাংলাদেশ। ১৯২ রানে জিতে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশকে ২-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই করল লঙ্কানরা।

৫১১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গতকাল চতুর্থ দিন বাংলাদেশ শেষ করে ৭ উইকেটে ২৬৮ রানে। হাতে ৩ উইকেট ও ২৪৩ রান প্রয়োজন—এমন সমীকরণ নিয়ে আজ পঞ্চম দিনে খেলতে নামে স্বাগতিকেরা।  অসম্ভবকে সম্ভব করার লক্ষ্যে স্বাগতিকেরা ম্যাচটা কত দূর টেনে নিতে পারে, সেটাই ছিল দেখার। সেখানে শেষ দিনে লাঞ্চের আগেই বাংলাদেশের ইনিংস থেমে গেল ৩১৮ রানে। মিরাজ অপরাজিত রইলেন ৮১ রানে।  

বাংলাদেশ আজ যখন শেষ দিনে খেলতে শুরু করে, তাদের নামের পাশে ৬৭ ওভার থেকে।  দিনের খেলা শুরুর পঞ্চম ওভারেই মিরাজ ফিফটির দেখা পেয়েছেন। ইনিংসের ৭২তম ওভারের তৃতীয় বলে কামিন্দু মেন্ডিসকে কাভার ড্রাইভে চার মেরে ষষ্ঠ ফিফটি তুলে নেন মিরাজ। বাংলাদেশের অলরাউন্ডারের ফিফটি পেতে লেগেছে ৬২ বল। একই ওভারে স্বাগতিকেরা হারায় অষ্টম উইকেট। ওভারটির পঞ্চম বলে কামিন্দুকে কাট করতে যান তাইজুল। প্রথম স্লিপে দ্রুততার সঙ্গে বল তালুবন্দী করেন নিশান মাদুশকা। তাতে ভেঙে যায় অষ্টম উইকেটে মিরাজ-তাইজুলের ৬২ বলে ৩৮ রানের জুটি।

তাইজুল আউট হয়েছেন ১৪ রান করে। বাংলাদেশের স্কোর হয়ে যায় ৭১.৫ ওভারে ৮ উইকেটে ২৮১ রান।  দশ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামা হাসান মাহমুদকে নিয়েও লড়াই চালিয়ে যান মিরাজ। চট্টগ্রামের ব্যাটিং যে রানপ্রসবা, সেটা আজ পঞ্চম দিনেও মিরাজ প্রমাণ করলেন সাবলীল ব্যাটিংয়ে।  ৭৫তম ও ৮২তম—এ দুই ওভারে মিরাজ চার মেরেছেন দুটি করে। নবম উইকেট জুটিতে হাসানকে নিয়ে ৬৫ বলে ৩১ রানের জুটি গড়তে অবদান রাখেন মিরাজ। হাসানকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন লাহিরু কুমারা। ৮৩তম ওভারের চতুর্থ বলে কুমারার অসাধারণ এক বাউন্সারে দিশেহারা হয়ে যান হাসান। এজ হওয়া বল ফরোয়ার্ড শট লেগে তালুবন্দী করেন মাদুশকা। হাসান করেন ২৫ বলে ৬ রান। এই জুটি ভাঙার পর দ্রুতই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। ৮৫তম ওভারের শেষ বলে খালেদ আহমেদকে অসাধারণ এক ইয়র্কারে বোল্ড করে স্বাগতিকদের ইনিংসের ইতি টানেন কুমারা।  বাংলাদেশের ৩১২ রানের মধ্যে মিরাজের ৮১ রানই ইনিংস সর্বোচ্চ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন মুমিনুল।

ম্যাচসেরা, সিরিজসেরা দুটিই হয়েছেন কামিন্দু। চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টেস্টে করেন ১০১ রান, যার মধ্যে প্রথম ইনিংসে ৯২ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। বোলিংযে নিয়েছেন ২ উইকেট। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১২২.৩৩ গড়ে কামিন্দু করেন ৩৬৭ রান। সিলেটে প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসেই করেন সেঞ্চুরি।

চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। বাংলাদেশের ফিল্ডারদের পিচ্ছিল হাতের সুযোগ নিয়ে প্রথম ইনিংসে ৫৩১ রানের পাহাড় গড়ে লঙ্কানরা। ইনিংস সর্বোচ্চ ৯৩ রান করেন কুশল মেন্ডিস।

বাংলাদেশ তাদের প্রথম ইনিংসে ১৭৮ রানে  অলআউট হয়েছে। ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৪ রান এসেছে জাকির হাসানের ব্যাট থেকে। ৩৫৩ রানে এগিয়ে থেকেও  লঙ্কানরা ফলো-অন করায়নি বাংলাদেশকে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৫৭ রানের পর ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারীরা। ৫৬ রান করা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসই লঙ্কানদের ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    পাপনের চোখে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের একাদশ

    ঘরের মাঠে বসুন্ধরা কিংসের রাজকীয় শিরোপা উল্লাস

    নতুন রেকর্ডের জন্য কোহলির ৭৬ রানের অপেক্ষা

    প্রিমিয়ার লিগের মৌসুম সেরা সিটির ফোডেন 

    ঝড়ে লন্ডভন্ড বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সিরিজের ভেন্যু

    লিটন-সৌম্য-মাহমুদউল্লাহরা কে কেমন, শুনুন হাথুরুর মুখে

    ৭২ লাখ টাকা জরিমানা দিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর ছাড়ল বিদেশি জাহাজ

    শরীয়তপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ১০ 

    মাকে হত্যার আসামি হওয়ার পর জানলেন তিনি আসলে পালিত কন্যা

    চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

    কিরগিজস্তানে বিদেশি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নেপথ্যে

    ইরানে দুই নারীসহ সাতজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর, ফাঁসিতে ঝুলতে পারে আরেক ইহুদি