সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

বাড়তি আয়ের জন্য হাত দিয়ে মাছ শিকার নারীদের

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৪২

যমুনায় নেমে হাত দিয়েই মাছ শিকার করেন এই নারীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা ভোরবেলায় জীবিকার সন্ধানে ছোটেন দিনমজুর স্বামী। সারা দিন শ্রম বেচে ফেরেন সন্ধ্যায়। এদিকে স্বামীকে বিদায় দিয়ে গৃহস্থালির কাজ শেষ করতেই বেজে যায় সকাল ১০টা। এ সময় হাতে তেমন কাজও থাকে না। তাই নারীরা ছোটেন বাড়তি আয়ের আশায় যমুনার দিকে। সঙ্গে একটি পাতিল। উদ্দেশ্য মাছ ধরা হলেও বড়শি বা জালের মতো তেমন কিছু নেই। হ্যাঁ এই যমুনায় মাছ শিকারে এই নারীদের ভরসা দুই হাতের ওপরই। 

সকালে বিভিন্ন বাড়ি থেকে পাতিল হাতে নদীর কূলে একত্রিত হন নারীরা। দল বেঁধে মাছ ধরতে নামেন যমুনার জলে। হাত দিয়ে শিকার করেন নানা প্রজাতির মাছ। যমুনা চরের নারীদের নিত্যদিনের চিত্র এটা। এভাবে মাছ ধরেই তাঁরা অভাব অনটনের সংসারে বাড়তি আয়ের চেষ্টা করেন। 

বগুড়ার ধুনট উপজেলার যমুনা নদীর চর এলাকায় সরেজমিনে মাছ শিকারি নারীদের সঙ্গে কথা হয়। নিজেদের এই চেষ্টার কথা জানান বৈশাখী চরের কুলসুম বেওয়া, জেলাতন খাতুন, মালেকা বেওয়ার সঙ্গে। তাঁরা বলেন, এক সময় তাঁদের সবকিছু ছিল। প্রতি বছরের ভাঙনে যমুনা নদী সবকিছু গিলে খেয়েছে। আজ তাঁরা আজ নিঃস্ব। জমির মালিকেরা আজ কুলি-শ্রমিকে পরিণত হয়েছেন। অভাবের কারণে ছোট হয়ে এসেছে ঘর-সংসার। আগের মতো আর হাসি-খুশিতে দিন কাটে না। দুবেলা দুমুঠো ভাতের জন্য কাজের সন্ধাতে ঘুরতে হয়। অভাবের সংসারে কাজও নেই। তাই অন্যের বাড়ি কিংবা জমিতে কাজ করতে হয়। সম্প্রতি যমুনার পানি বেড়ে যাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত চর এলাকায় এখন কোনো কাজ নেই। পুরুষেরা শহর কিংবা অন্য গ্রামে কাজ করতে যান। কিন্তু চরের নারীদের পক্ষে কাজের সন্ধানে বাইরে যাওয়া হয় না। তাই গৃহস্থালি কাজের ফাঁকে যমুনায় মাছ ধরে বাড়তি আয়ের পথ খুঁজে পেয়েছেন। 

সরেজমিনে দেখা যায়, নদীর কুলে অল্প পানিতে হাঁটু গেড়ে বসেছে এক দল নারী। সবার সামনে একটি করে পাতিল ভাসছে। পানির নিচে হাতিয়ে হাতিয়ে এগিয়ে চলেছেন তাঁরা সামনের দিকে। এভাবেই হাতের নিচে ধরা পড়ছে বালিয়া, টাকি, পুটি, ট্যাংরা, শিং, চিংড়ি, ঘাড়িয়াসহ নানা প্রজাতির মাছ। 

রাধানগর চরের মাছ শিকারি সোনাভান ও খাদিজা খাতুন আজকের পত্রিকাকে বলেন, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হাতিয়ে একজন নারী কমপক্ষে দেড় থেকে দুই কেজি করে মাছ ধরেন। এই মাছ নিজেদের খাবার চাহিদা মিটিয়ে বিক্রি করেন তাঁরা। এতে প্রতিদিন অন্তত গড়ে ২৫০-৩০০ টাকার মাছ বিক্রি করা যায়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    পাবনায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে বৃদ্ধ নিহত 

    পাবনায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে বৃদ্ধ নিহত 

    ই-কমার্স রেগুলেটরি অথোরিটি গঠন করতে হাইকোর্টে রিট

    ই-কমার্স রেগুলেটরি অথোরিটি গঠন করতে হাইকোর্টে রিট

    কাপ্তাই লেকে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর সাবেক ইউপি সদস্যের মরদেহ উদ্ধার

    কাপ্তাই লেকে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর সাবেক ইউপি সদস্যের মরদেহ উদ্ধার

    কক্সবাজারে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ২, পাঁচ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ 

    কক্সবাজারে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ২, পাঁচ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ 

    ধর্ষণের অভিযোগে ময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি গ্রেপ্তার

    ধর্ষণের অভিযোগে ময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি গ্রেপ্তার

    ভাঙ্গায় ৬টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে চলছে ভোটগ্রহণ 

    ভাঙ্গায় ৬টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে চলছে ভোটগ্রহণ 

    রাশিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীদের গুলিতে কমপক্ষে ৮ জন নিহত

    রাশিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীদের গুলিতে কমপক্ষে ৮ জন নিহত

    পাঞ্জাবে প্রথম দলিত মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন চান্নি

    পাঞ্জাবে প্রথম দলিত মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন চান্নি

    পাবনায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে বৃদ্ধ নিহত 

    পাবনায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে বৃদ্ধ নিহত 

    ই-কমার্স রেগুলেটরি অথোরিটি গঠন করতে হাইকোর্টে রিট

    ই-কমার্স রেগুলেটরি অথোরিটি গঠন করতে হাইকোর্টে রিট

    কাপ্তাই লেকে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর সাবেক ইউপি সদস্যের মরদেহ উদ্ধার

    কাপ্তাই লেকে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর সাবেক ইউপি সদস্যের মরদেহ উদ্ধার