শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

একটি স্কুলের একজনই শিক্ষক 

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:১৯

কুমারখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের একাই পাঠদান করছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাজল রেখা। ছবি: আজকের পত্রিকা  ভোলার লালমোহনে ১৯৯১ সালে ১৬৩ নম্বর কুমারখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে বিদ্যালয়টি জাতীয়করণ করা হয়। কিন্তু বর্তমানে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত মোট ১২৪ শিক্ষার্থীর পাঠদানের জন্য রয়েছে মাত্র একজন শিক্ষক। 

জানা যায়, এই বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকাল থেকে একজন প্রধান শিক্ষক ও ৩ জন সহকারী শিক্ষক ছিলেন। তবে পর্যায়ক্রমে ২০২০ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির প্রধানসহ একে একে তিনজন শিক্ষক অবসর গ্রহণ করেন। বাকি আছেন একজন শিক্ষক কাজল রেখা। তিনি ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। এরপর থেকে পুরো বিদ্যালয়ের ৫টি শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঠদানের পাশাপাশি যাবতীয় দায়িত্ব এসে পড়ে তাঁর কাঁধে। এমনকি বিদ্যালয়টি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নও করেন তিনি। কারণ বিদ্যালয়টিতে নেই চতুর্থ শ্রেণির কোন কর্মচারী। এরই মধ্যে গত ১২ সেপ্টেম্বর বিদ্যালয় খোলার পর পুরো বিদ্যালয়ের পাঁচ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের একাই পাঠদান করাচ্ছেন কাজল রেখা। এতে চরম বিপত্তিতে পড়েছেন তিনি। 

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের  শিক্ষার্থীরা বলেন, একজন শিক্ষক দিয়ে পুরো স্কুলশিক্ষার্থীদের পাঠদান করা সম্ভব না। এতে করে একজনের ওপর যেমন মানসিক চাপ সৃষ্টি হয়। অপরদিকে শিক্ষার্থীদেরও পাঠদানে সমস্যা হচ্ছে। তাই অতি দ্রুত বিদ্যালয়ে আরও শিক্ষক বাড়ানোর দাবি জানাচ্ছি।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাজল রেখা বলেন, বিদ্যালয়ের প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত  ১২৪ জন শিক্ষার্থীকে একা পাঠদান করাতে অনেক কষ্ট হয়। বিদ্যালয়ে আরও শিক্ষকের প্রয়োজন। 

বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিদ্যালয়ের সমস্যার কথা উপজেলা শিক্ষা অফিসে জানানো হয়েছে। শিগগিরই এ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা।

এ নিয়ে লালমোহন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আক্তারুজ্জামান মিলন বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না, এখন জেনেছি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সেখানে নতুন শিক্ষক নিয়োগ করা হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    কানাডায় উচ্চশিক্ষার আবেদনে অযোগ্যদের তালিকায় কুবির নাম নিয়ে বিভ্রান্তি

    কানাডায় উচ্চশিক্ষার আবেদনে অযোগ্যদের তালিকায় কুবির নাম নিয়ে বিভ্রান্তি

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    ঘুরতে এসে বাস চাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

    ঘুরতে এসে বাস চাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

    তিন ব্যাংক থেকে ৩৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে পলাতক শিক্ষক, বেতন তুলছেন নিয়মিত

    তিন ব্যাংক থেকে ৩৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে পলাতক শিক্ষক, বেতন তুলছেন নিয়মিত

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    কণ্ঠ হারিয়েছেন বাপ্পী লাহিড়ি? ছেলে বললেন, ‘একেবারেই মিথ্যে’

    কণ্ঠ হারিয়েছেন বাপ্পী লাহিড়ি? ছেলে বললেন, ‘একেবারেই মিথ্যে’

    সিগারেটের আগুন না দেওয়ায় হোটেল মালিককে ঘুষি মেরে হত্যা

    সিগারেটের আগুন না দেওয়ায় হোটেল মালিককে ঘুষি মেরে হত্যা

    বৈরী আবহাওয়ার বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি নিখোঁজ ১

    বৈরী আবহাওয়ার বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি নিখোঁজ ১