সোমবার, ২০ মে ২০২৪

সেকশন

 

সুস্থ গণতন্ত্রের চর্চা ও মানবাধিকার রক্ষায় সম্পৃক্ত থাকবে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২০:৪৯

রোববার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে মার্কিন প্রতিনিধিদল। ছবি: সংগৃহীত বাংলাদেশে সুস্থ গণতন্ত্রের চর্চা ও মানবাধিকার রক্ষার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পৃক্ততা অব্যাহত থাকবে। দেশটির একটি প্রতিনিধিদলের সফরের দ্বিতীয় দিন আজ রোববার ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস এক ফেসবুক পোস্টে এই কথা বলা হয়েছে।

আজ সকালে নাগরিক সমাজের একটি প্রতিনিধিদলের বৈঠকের পর দূতাবাস এ বিবৃতি দেয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বিশেষ সহকারী এবং ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের দক্ষিণ এশিয়া বিভাগের ঊর্ধ্বতন পরিচালক রিয়ার অ্যাডমিরাল এলিন লাউবাকের, ইউএসএআইডির এশিয়াবিষয়ক ব্যুরোর সহকারী প্রশাসক মাইকেল শিফার এবং মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ার উপসহকারী মন্ত্রী আফরিন আক্তার বর্তমানে ঢাকা সফরে রয়েছেন। 

নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের মধ্যে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিজের নির্বাহী পরিচালক জিল্লুর রহমান, মানবাধিকার সংস্থা অধিকারের সম্পাদক আদিলুর রহমান খান, গণবিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য শিরিন হক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আমেনা মহসিন। 

বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থা নিয়ে নাগরিক সমাজের সাহসী ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ব্যক্তিদের সঙ্গে মার্কিন প্রতিনিধিদলটির আলোচনা হয়েছে, এমন তথ্য দিয়ে দূতাবাস বলেছে, সুস্থ গণতন্ত্র এবং ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে নাগরিক সমাজ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পৃক্ততা অব্যাহত থাকবে। বাংলাদেশ সরকারকেও এসব বিষয়ে সম্পৃক্ত হতে যুক্তরাষ্ট্র আহ্বান জানায়।

বৈঠকে বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও মানবাধিকারের হালচাল জানতে চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা। নাগরিক সমাজের দুই প্রতিনিধি আজকের পত্রিকাকে জানান, তাঁরা নিজ নিজ অবস্থান ও দৃষ্টিভঙ্গি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের জানার কৌতূহল মেটানোর চেষ্টা করেছেন। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী ও পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে আলাদা বৈঠক করেছেন মার্কিন প্রতিনিধিদল। 

হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, দুই দেশের সম্পর্কে নতুন বিস্তৃত অধ্যায় তৈরির বিষয়ে তাঁরা কথা বলেছেন। 

বৈঠক সূত্র জানায়, র‍্যাবের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য বাংলাদেশ বলেছে। অন্যদিকে মার্কিন কর্মকর্তারা বাহিনীটির সংস্কার ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের জবাবদিহি নিশ্চিত করাসহ কয়েকটি বিষয়ে জোর দেন।

নাগরিক সমাজের সঙ্গে বৈঠক করে মার্কিন প্রতিনিধিদল। ছবি: সংগৃহীত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে এলিন লাউবাকের সাংবাদিকদের বলেন, নিরাপত্তা, শরণার্থী, শ্রমমান ও বাণিজ্যসহ দুই দেশের অগ্রাধিকারগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে কী করে সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়া যায়, সে বিষয়ে কথা হয়েছে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র কড়া অবস্থান নেওয়ার পর এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ৭ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর উচ্চপর্যায়ের মার্কিন কর্মকর্তাদের এটাই প্রথম সফর।

সফরের প্রথম দিন গতকাল শনিবার প্রতিনিধিদলটি বৈঠক করে বিরোধী বিএনপি ও শ্রম অধিকারকর্মীদের সঙ্গে। আগামীকাল সোমবার প্রতিনিধিদলটি ঢাকা ত্যাগ করবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    কিরগিজস্তানে গুরুতর আহতদের মধ্যে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নেই, ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন রাষ্ট্রদূত

    মঙ্গলবার ২ দিনের সফরে আসছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী 

    ছাত্রদের যৌন নিপীড়ন, মার্কিন সংস্থার তথ্যে রাজশাহীতে শিক্ষক গ্রেপ্তার

    ভারত ও চীন যুক্ত হলে রোহিঙ্গাসংকট সমাধান সম্ভব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    র‍্যাবের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করছে না যুক্তরাষ্ট্র: স্টেট ডিপার্টমেন্ট

    কুংফু শেখানোর নামে সম্ভ্রমহানির অভিযোগ তদন্তে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে চিঠি

    রামপুরায় অটোরিকশা চালকদের বিক্ষোভ