বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

সেকশন

 

আমাদের লক্ষ্য এখন বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা করা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:৪২

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহান শহীদ দিবস শ্রদ্ধাজ্ঞাপন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে তথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ছবি: আজকের পত্রিকা বাংলাদেশর লক্ষ্য এখন বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা— এমনটি জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ বুধবার সকালে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি।

হাছান মাহমুদ বলেন, পৃথিবীর অন্যতম ভাষা বাংলা ভাষা। সারা পৃথিবীতে ৩৫ কোটির বেশি বাংলা ভাষাভাষী মানুষ আছেন। বাংলা ভাষা সম্ভবত ৬ কিংবা ৭ নম্বর অবস্থানে আছে। বাংলাদেশের লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জেলখানায় বসে সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন ২১ ফেব্রুয়ারি প্রতিবাদ দিবসটি পালিত হবে। এরপর  কানাডা প্রবাসী দুজন বাঙালির উদ্যোগ এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তড়িৎ সিদ্ধান্তে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাঠানোর পর এটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    শান্তিপূর্ণ ইন্দো-প্যাসিফিক গড়তে একসঙ্গে কাজ করবে ঢাকা-ক্যানবেরা

    সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের নীতিমালায় অবশ্যই পরিবর্তন দরকার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    কলকাতার সেই ফ্ল্যাটে এমপি আনোয়ারুলের লাশ মেলেনি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    দালালদের অর্থ না দেওয়ার আহ্বান ইতালির রাষ্ট্রদূতের

    প্রেসিডেন্ট রাইসির মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক বৃহস্পতিবার 

    দুর্নীতির অভিযোগে জেনারেল আজিজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা সেনাবাহিনীর বিষয়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

    দ্বিতীয় ধাপের ভোটে যাঁরা চেয়ারম্যান হলেন

    সিলেটে নির্বাচনে হেরে আ.লীগ নেতাকে বেইজ্জতি করার হুমকি

    সিলেট থেকে সরাসরি হজ ফ্লাইট চালু

    পুনের পোর্শেকাণ্ড: আড়াই হাজার টাকার জন্য লাইসেন্স ছিল না সাড়ে ৩ কোটির গাড়িটির

    এমপি আনোয়ারুল আজীমকে খুন করতে ৫ কোটি টাকার চুক্তি

    যেসব কারণে ভ্রমণ ও পর্যটন সূচকে তলানিতে বাংলাদেশ