শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

জাতিসংঘে ৫ ইস্যুতে জোর দেবে ঢাকা

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৯

জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে ১৯ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল। এতে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের সাধারণ অধিবেশনে ৫ ইস্যুতে জোর দেবে ঢাকা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সূত্র জানিয়েছে, করোনা মহামারির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এবার স্মরণকালের সবচেয়ে ছোট প্রতিনিধিদল পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ। যাঁদের না গেলেই নয়, সেই মানুষগুলোকে প্রতিনিধিদলে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া দীর্ঘ দেড় বছর পর প্রথমবারের মতো বিদেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে স্বাস্থ্যসংক্রান্ত ঝুঁকি মোকাবিলায় সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। সফর শেষে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের আগামী ১ অক্টোবর দেশে ফেরত আসার কথা রয়েছে। ২৪ অথবা ২৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দিতে পারেন।
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সফর নিয়ে এই মুহূর্তে কেউ আনুষ্ঠানিক মন্তব্য করতে রাজি হননি। ১৬ সেপ্টেম্বর এ নিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে, সেই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আজকের পত্রিকাকে জানান, এবারের সাধারণ অধিবেশনে করোনা ও টিকা, রোহিঙ্গা, জলবায়ু, আফগানিস্তান এবং স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ বিষয়ে জোর দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

ওই কর্মকর্তা বলেন, এই মুহূর্তে আঞ্চলিক দৃষ্টিকোণে আফগানিস্তান ইস্যুটি গুরুত্ব পাবে। করোনা মহামারিতে বিশ্বের সবার জন্য টিকার অধিকারের বিষয়টিও অগ্রাধিকারে থাকতে পারে। তবে কোনো কিছুই চূড়ান্ত নয়, বর্তমানে ফাইল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে রয়েছে। ইস্যু থেকে শুরু করে সফরের যাবতীয় বিষয়ে কিছু সংযোজন-বিয়োজন হতে পারে। তবে মোটাদাগে এগুলোই থাকার কথা।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে আঞ্চলিক নিরাপত্তার দৃষ্টিকোণে আফগানিস্তান ইস্যুটিতে জোর দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ইতিমধ্যে আফগানিস্তানে জাতিসংঘ ও ইইউর সংলাপে পক্ষ হতে রাজি রয়েছে বাংলাদেশ। ফলে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার জন্য এর সুষ্ঠু সমাধানে জোর দেওয়া হবে। এ ছাড়া বাংলাদেশ শুরু থেকেই করোনার টিকা ইস্যুতে সোচ্চার। এখন পর্যন্ত মোট টিকা উৎপাদনের ৯৭ শতাংশের বেশি ধনী দেশগুলো পেয়েছে। ফলে এর ন্যায্য বিতরণ এবং টিকার ওপর যাতে মেধাস্বত্ব না দেওয়া হয় এবং টিকা বিশ্বের সব মানুষের অধিকার, সেই বিষয়টি ৭৬তম অধিবেশনে তুলে ধরা হবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে। 

অধিবেশনে প্রতিবারের মতোই রোহিঙ্গা নিয়ে সোচ্চার থাকবে। রোহিঙ্গাসংকট সমাধান না হওয়ায় এই জনগোষ্ঠীর ভোগান্তিসহ আঞ্চলিক নিরাপত্তাসহ অন্যান্য ঝুঁকির বিষয়টি সামনে আনবে বাংলাদেশ। সেই সঙ্গে সংকট সমাধানে বাংলাদেশের প্রস্তাবিত পাঁচটি পয়েন্টে জাতিসংঘসহ বিশ্বের ভূমিকার বিষয়টি সামনে আনবে ঢাকা। এ ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশে বিরূপ প্রভাব ও জলবায়ু তহবিলের প্রতিশ্রুতির বিষয়টি তুলে ধরবে। আর স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের পর বাংলাদেশি পণ্য শুল্ক ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকারবিষয়ক সুবিধা আরও কয়েক বছর রাখার জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হবে। কারণ করোনা মহামারি অর্থনীতিতে যে বিরূপ প্রভাব ফেলেছে তা কাটিয়ে উঠতে বাড়তি সময় চাওয়া হবে।

জাতিসংঘের এবারের অধিবেশনে স্বল্পসংখ্যক দেশকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার বিষয়টিতে স্বাস্থ্যবিষয়ক কঠোর বিধিনিষেধ মেনে চলতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, এবারের অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ কমিউনিটির সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকের মাধ্যমে সাক্ষাৎ করবেন। তবে তিনি কোনো সমাবেশ বা নাগরিক সংবর্ধনায় অংশ নেবেন না। এবারের সাধারণ অধিবেশনের সাইডলাইনে কয়েকটি দেশের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা বলেন, এখনো কোনো কিছু চূড়ান্ত হয়নি। কারণ, কোন কোন নেতা এবারের বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন, তা নিশ্চিত হতে আরও দু-এক দিন সময় লাগবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ‘সিভিল সোসাইটি বলে এখন কিছু নেই, কথা বললেই হয়রানি’

    ‘সিভিল সোসাইটি বলে এখন কিছু নেই, কথা বললেই হয়রানি’

    আজ প্রচারণা শেষ, ১৬১ ইউপিতে ভোট সোমবার

    আজ প্রচারণা শেষ, ১৬১ ইউপিতে ভোট সোমবার

    ১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজারের টিকার ব্যবস্থা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী 

    ১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজারের টিকার ব্যবস্থা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী 

    মামলা জটিল, সমাধান অনেক দূর

    মামলা জটিল, সমাধান অনেক দূর

    এরশাদের নতুন বান্ধবী
    আষাঢ়ে নয়

    এরশাদের নতুন বান্ধবী

    ঘুরতে আসা ৪ তরুণ-তরুণীকে তুলে নিয়ে ফোন টাকা ছিনতাই

    ঘুরতে আসা ৪ তরুণ-তরুণীকে তুলে নিয়ে ফোন টাকা ছিনতাই

    বান্দরবানে পর্যটকবাহী গাড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলি, আহত ৫

    বান্দরবানে পর্যটকবাহী গাড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলি, আহত ৫

    চোরের জ্বালায় অতিষ্ঠ, উপায় খুঁজতে আলোচনায় এলাকাবাসী

    চোরের জ্বালায় অতিষ্ঠ, উপায় খুঁজতে আলোচনায় এলাকাবাসী

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    তালেবানের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি: ইমরান খান

    তালেবানের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি: ইমরান খান

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা