শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

টঙ্গীর ঝরে পড়া শিশু স্কুল খোলেনি, উঠেছে দখলের অভিযোগ

আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৫৪

গাজীপুরের টঙ্গীর ‘ঝরে পড়া শিশু স্কুল’ এখনো খোলেনি। স্কুলটি দখলের অভিযোগ উঠেছে। ছবি: আজকের পত্রিকা করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ায় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে ১২ সেপ্টেম্বর। কিন্তু এখনো খোলেনি টঙ্গীর ‘ঝরে পড়া শিশু স্কুল’। গাজীপুরের টঙ্গীর এ স্কুলটি দখলের অভিযোগ উঠেছে। টঙ্গীর খরতৈল শরিফ মার্কেট এলাকার ফেরদৌসী বেগম নামের এক নারী নিজেকে স্কুলটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক দাবি করে থানায় এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে দখলের অভিযোগ করার বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান তিনি।

সরেজমিনে দেখা যায়, গার্মেন্টস শ্রমিকদের উন্নয়নে প্রায় ২০ বছর আগে বাংলাদেশ সংযুক্ত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনকে একটি বিদেশি সংস্থা ১ কোটি টাকা অনুদান দেয়। অনুদানের ৩৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ওই এলাকায় সংগঠনটি ৩৩ শতাংশ জমি কেনে। পরে ২০০৮ সালে ওই জমিতে সংগঠনটি ‘ঝরে পড়া শিশু স্কুল’ নামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি পদে তখন ছিলেন ফেরদৌসী বেগম। 

২০২০ সালে করোনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেলে ওই সংগঠনের টঙ্গী পশ্চিম থানা আঞ্চলিক সভাপতি তাসলিমা বেগম ও সাধারণ সম্পাদক হাসেম স্কুলটি জবর দখল করে নেন বলে অভিযোগ উঠেছে। স্কুলটির মূল গেটে দোকান তুলে তা ভাড়াও দিয়েছেন তাঁরা। এ সময়ে প্রতিষ্ঠানটিতে আসেননি কোনো শিক্ষক। স্কুলটির পাঠদান বন্ধ থাকায় ১২৩ জন শিক্ষার্থীর পড়াশোনা এখন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক অভিভাবক বলেন, স্কুলটি দখলের ঘটনায় স্থানীয় কাউন্সিলরকে অবগত করা হয়েছে। সব স্কুল খুলে দিলেও আমাদের বাচ্চারা এখনো স্কুলে আসতে পারছে না। 

স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ফেরদৌসী বেগম বলেন, গার্মেন্টস শ্রমিকদের ও আমার আর্থিক সহায়তায় স্কুলটি পরিচালনা হতো। স্কুল খোলার আগেই তাসলিমা, সোলেমান খান ও হাসেম স্কুলটির জায়গা দখল করে দোকান ভাড়া দিয়েছেন। শ্রেণি কক্ষে থাকা বেঞ্চ ও অফিস কক্ষে থাকা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চুরি করে আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে দখলকারীরা। আমাকেও স্কুলে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। 

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমজাদ হোসেন বলেন, বিষয়টি সমাধানের জন্য একাধিকবার সালিসের আয়োজন করা হয়। কিন্তু কোনো সমাধান হয়নি। 

এদিকে ফেরদৌসী বেগমের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ এনেছেন তাসলিমা বেগম। এ বিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। উভয় পক্ষ থেকে থানায় পৃথক দুটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তাঁদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’ 

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সংগঠনটির টঙ্গী পশ্চিম থানা আঞ্চলিক সভাপতি তাসলিমা বেগম। তিনি বলেন, ‘ফেরদৌসী বেগম আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছেন। আমরাও থানায় মামলা করেছি। ফেরদৌসী বেগমকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সংগঠনের সম্পত্তিতে গড়ে ওঠা স্কুল পরিচালনার দায়িত্ব এখন আমাদের। আমরা স্কুল দখল করিনি। উল্টো ফেরদৌসী বেগম স্কুলটিতে থাকা ছয়টি সেলাই মেশিন চুরি করেছেন।’ 

এ বিষয়ে টঙ্গী থানা শিক্ষা অফিসার শিখা বিশ্বাস বলেন, ‘দখলের বিষয়টি আমার জানা ছিল না। বিষয়টি জেনে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেব।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    সিগারেটের আগুন না দেওয়ায় হোটেল মালিককে ঘুষি মেরে হত্যা

    সিগারেটের আগুন না দেওয়ায় হোটেল মালিককে ঘুষি মেরে হত্যা

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    ৩ ফুটের বর-কনে, ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এলাকাবাসী

    তালেবানের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি: ইমরান খান

    তালেবানের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি: ইমরান খান

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা

    অনেকদিন পর পাওয়া গেল শখের দেখা

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    মুখে অ্যাসিড ঢেলে পানিতে চুবিয়ে বড় ভাইকে হত্যা করেন রিপন

    কণ্ঠ হারিয়েছেন বাপ্পী লাহিড়ি? ছেলে বললেন, ‘একেবারেই মিথ্যে’

    কণ্ঠ হারিয়েছেন বাপ্পী লাহিড়ি? ছেলে বললেন, ‘একেবারেই মিথ্যে’