শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

খুলেছে স্কুল হয়নি ক্লাস, স্কুলে যায়নি শিক্ষক

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০৪

শ্রেণি কক্ষে বসে আছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা করোনা মহামারি বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার গত বছরের মার্চের ১৮ তারিখ বন্ধ ঘোষণা করে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। দীর্ঘ ১৭ মাস বন্ধ থাকার পর ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। 

সারা দেশের ন্যায় কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলার সকল প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শুরু হয়েছে পাঠদান কার্যক্রম। কিন্তু সকাল থেকে কুতুবদিয়া উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো ঘুরে দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী আসলেও অনুপস্থিত ছিলেন শিক্ষক-শিক্ষিকা। 

এ দিকে কুতুবদিয়া উপজেলার বেশির ভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিত ছিল বেশি, তবে হয়নি ক্লাস। দেখাও যায়নি কোনো শিক্ষককে। একই চিত্র দক্ষিণ ধূরুং জলিলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। দেখা মেলেনি একজন শিক্ষকেরও, শিক্ষার্থীরা জানান তাঁদের শিক্ষক উপজেলায় মিটিং গেছে। 

উত্তর লেমশীখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় কয়েকজন শিক্ষক ক্লাস নিলেও, তাড়াহুড়ো করে শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে দেয়। তাড়াহুড়ো করে ছুটি দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে স্কুলের সহকারী শিক্ষক ছাইফুল্লাহ খালেক বলেন, সকল শিক্ষককে নির্বাচনের ট্রেনিং এ যোগ দিতে হবে। 

কুতুবদিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম আজকের পত্রিকাকে বলেন, আগামী ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে তাঁর স্কুলে নির্বাচনে দায়িত্ব প্রাপ্তদের ট্রেনিং চলছে তাই ক্লাস কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। 

জানা গেছে, আগামী ২০ সেপ্টেম্বর কুতুবদিয়া উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত নির্বাচনে ৭৮১ জন ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করবেন। ১২ সেপ্টেম্বর রোববার কুতুবদিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা হয়। নির্বাচনে বেশির ভাগ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষকেরা দায়িত্ব পালন করে। শিক্ষকেরা নির্বাচনের ট্রেনিং এ অংশ নেওয়ায় ক্লাস রুমে অংশ নিতে পারেনি। 

তবে কুতুবদিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি ছিল চোখে পড়ার মত, স্কুল আঙিনায় ঢুকে বেসিনে হাত পরিষ্কার করছে শিক্ষার্থীরা। স্কুলের শিক্ষক দাঁড়িয়ে রয়েছে তাপমাত্রা মাপার যন্ত্র নিয়ে এবং একে একে সবার তাপমাত্রা মেপে মাস্ক পরিয়ে প্রবেশ করানো হচ্ছে ক্লাস রুমে। এক বেঞ্চে দুজন করে শিক্ষার্থী বসানো হচ্ছে। দীর্ঘ দিন পর সহপাঠীদের পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীরাও। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    মাদ্রাসা ও দলে উপেক্ষিত শফি

    মাদ্রাসা ও দলে উপেক্ষিত শফি

    নাটোরে যুবলীগের বর্ধিত সভায় চেয়ার ছোড়াছুড়ি

    নাটোরে যুবলীগের বর্ধিত সভায় চেয়ার ছোড়াছুড়ি

    তেজগাঁওয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

    তেজগাঁওয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

    বিয়ে বাড়িতে গান-বাজনা নিয়ে দ্বন্দ্বে নিহত ১ 

    বিয়ে বাড়িতে গান-বাজনা নিয়ে দ্বন্দ্বে নিহত ১ 

    হাসপাতালে প্রাথমিক  চিকিৎসা শেষে ফের থানায় রাসেল 

    হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফের থানায় রাসেল 

    নিখোঁজের পর চাচার ঘরের গর্ত থেকে মিলল শিশুর মরদেহ, চাচি গ্রেপ্তার

    নিখোঁজের পর চাচার ঘরের গর্ত থেকে মিলল শিশুর মরদেহ, চাচি গ্রেপ্তার

    ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুণ

    ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুণ

    করোনায় ব্যাংকে লাভ ছাঁটাই উভয়েই রেকর্ড

    করোনায় ব্যাংকে লাভ ছাঁটাই উভয়েই রেকর্ড

    ‘নাট্যকলায় পড়তে আমি ঘর পালাইছিলাম’

    ‘নাট্যকলায় পড়তে আমি ঘর পালাইছিলাম’

    ইমো এবং আরও কিছু

    ইমো এবং আরও কিছু

    নিজেই তো বুইসতে পাচ্ছি নাকো আপা!

    নিজেই তো বুইসতে পাচ্ছি নাকো আপা!

    ২০২৩ সাল থেকে নিশ্চিত হবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ

    ২০২৩ সাল থেকে নিশ্চিত হবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ