বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

উত্তরায় বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মাদকের আখড়া

আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১১

দেয়াল টপকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মাদক সেবন করছে মাদকসেবীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা করোনা মহামারির কারণে দেড় বছরেরও অধিক সময় ধরে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। যার ফলে পরিত্যক্ত অবস্থায় পরে থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মাদকের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। সেই সঙ্গে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চুরি ও ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটছে অহরহ। 

রাজধানীর উত্তরখানের বালুরমাঠ এলাকায় অবস্থিত 'উত্তরখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়'। বিদ্যালয়টি ১৯১২ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত হলেও নেই কোনো দপ্তরি ও পাহারাদার (দারোয়ান)। যার ফলে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা প্রাথমিক বিদ্যালয়টিতে এখন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। সেই সঙ্গে স্কুল এলাকাতেই একের পর এক ঘটছে চুরি ও ছিনতাইয়ের মতো ঘটনা ঘটনা। 

এসব মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের বাঁধা দিলেই ভাঙচুর করা হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আসবাবপত্রসহ অন্যান্য জিনিস। বাদ পড়েনি শহীদ মিনারটিও। এলাকার স্থানীয় ছেঁচড়ে চোরেরা ওয়াইফাইয়ের রাউটারের তারসহ বিভিন্ন লোহার জিনিসপত্রও চুরি করে নিয়ে গেছে বলে জানা যায়। 

শনিবার বিকেলে উত্তরখান প্রাথমিক বিদ্যালয়টিতে গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলাকে কেন্দ্র করে আগের দিন পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ। ছিটানো হচ্ছে কীটনাশক। সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ফগার মেশিন দিয়ে মশা মারার কীটনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভাঙা শহীদ মিনারটির নির্মাণকাজ চলছে। যার অধিকাংশের কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। শুধু এই প্রতিষ্ঠানই নয় উত্তরখান হাই স্কুলসহ আশে আশের প্রতিটি প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলেছে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কার্যক্রম। 

উত্তরখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রাবেয়া খাতুন আজকের পত্রিকাকে বলেন, 'করোনায় লকডাউনের কারণে দীর্ঘ দিন আমাদের প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। যার ফলে বন্ধ থাকা প্রতিষ্ঠানটি মাদকের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। প্রতিদিনই এলাকার বখাটে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবীদের আড্ডার স্থানে পরিণত হয়েছে। এ ছাড়া সব সময়ই রাতে বন্ধ থাকা বিদ্যালয়টির বিভিন্ন জায়গায় চলে মাদক সেবন ও মাদক বিক্রি।' তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের বাউন্ডারি টপকিয়ে ওপর দিয়ে ঢুকে তাঁরা এসব করে। পুলিশ আসলে পালিয়ে যায়, আবার চলে গেলেই শুরু হয় একই কর্মকাণ্ড। 

প্রতিবাদ করার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কয় দিন আগেও গেট চুরির ঘটনা ঘটেছে। সেই সঙ্গে গেটের পাশের গ্রিল ভেঙে ফেলা হয়েছে। অন্য দিকে ক্লাব রুমের বাইরের ও ভেতরের সব লাইট ও বোর্ড ভেঙে ফেলেছে। এ ছাড়াও জানালার সব গ্লাস ভেঙে ফেলেছে। বাদ পড়েনি শহীদ মিনারও। ইতিমধ্যে আমরা উত্তরখান থানায় বেশ কয়েকবার অভিযোগও করেছি। কিন্তু কোনো পরিবর্তন হয়নি। বিষয়টি থানা–পুলিশও জানে। 

রাবেয়া খাতুন বলেন, আগে গার্মেন্টসের নারী কর্মীরা গেলে তাঁদের মোবাইল টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিত। বর্তমানে শহীদ মিনারের নির্মাণকাজ চলছে। গেট মেরামতের কাজ করা হয়েছে। 

উত্তরায় বন্ধ শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোকে মাদক সেবনের জন্য ব্যবহার করছে দুর্বৃত্তরা। ছবি: আজকের পত্রিকা  শিক্ষার্থী প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিদ্যালয়টিতে শিশু শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ৯২০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। যার মধ্যে পঞ্চম শ্রেণির সবাই ক্লাসে উপস্থিত থাকবে বলে আশা করছি। কিন্তু অন্যান্য ক্লাসের অনেককেই খুঁজে পাচ্ছি না। অনেকেই মাদ্রাসায় ভর্তি হয়েছে, আবার কেউ কেউ লেখাপড়া ছেড়েও দিয়েছে। করোনায় বন্ধ থাকা দেড় বছরে কত জন শিক্ষার্থী আছে, তা ক্লাস খুললেই বোঝা যাবে। 

উত্তরখান হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল আখের আজকের পত্রিকাকে বলেন, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক দুই শিফটে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর জন্য সকল প্রস্তুত গ্রহণ করেছি। তবে কতজন শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হবে তা খোলার পরই বোঝা যাবে। 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জয়নাল আবেদিন আজকের পত্রিকাকে বলেন, 'শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে তাই প্রতিটি প্রতিষ্ঠানই আমার লোকজন দিয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। ফগার মেশিন দিয়ে স্প্রে করে দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিটি সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ৫০০ করে মাস্ক বিতরণ করেছি।' প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি ও মাদকের আখড়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নিয়ম হলো প্রতিটি প্রাইমারি স্কুলে একজন করে গার্ড থাকা। কিন্তু উত্তরখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেন গার্ড নেই, তার সদুত্তর দিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। 

অপরদিকে উত্তরখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ আজকের পত্রিকাকে বলেন, 'উত্তরখান প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাদক বিক্রির অভিযোগ আমরা অনেক দিন আগে পেয়েছিলাম। তখন অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করেছিলাম। এখন সেখানে মাদক বিক্রি বা সেবন হচ্ছে বলে জানা নেই। তবে এখন থেকে আবার খোঁজখবর নেওয়া হবে, এমন পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।' 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    যাত্রীর জ্যাকেটের ভেতরে মিলল ২ কোটি টাকার স্বর্ণ

    যাত্রীর জ্যাকেটের ভেতরে মিলল ২ কোটি টাকার স্বর্ণ

    মাগুরায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জলাবদ্ধতায় ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

    মাগুরায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জলাবদ্ধতায় ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

    ইভ্যালির ব্যবসায় ভুল স্বীকার রাসেলের

    ইভ্যালির ব্যবসায় ভুল স্বীকার রাসেলের

    যাত্রীর জ্যাকেটের ভেতরে মিলল ২ কোটি টাকার স্বর্ণ

    যাত্রীর জ্যাকেটের ভেতরে মিলল ২ কোটি টাকার স্বর্ণ

    তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনে শক্তিশালী আইন জরুরি

    তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনে শক্তিশালী আইন জরুরি

    মাগুরায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জলাবদ্ধতায় ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

    মাগুরায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জলাবদ্ধতায় ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

    ইভ্যালির ব্যবসায় ভুল স্বীকার রাসেলের

    ইভ্যালির ব্যবসায় ভুল স্বীকার রাসেলের

    সেই গার্দিওলাকেই ফেরাতে চায় বার্সেলোনা!

    সেই গার্দিওলাকেই ফেরাতে চায় বার্সেলোনা!

    আলীপুরে জেলেদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫

    আলীপুরে জেলেদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫