শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

ভাঙন আতঙ্কে কৃষকের স্বপ্ন

আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩৫

পাংশায় পদ্মা নদীর তীরবর্তী এলাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে আখের। ছবি: আজকের পত্রিকা  রাজবাড়ীর পাংশায় পদ্মা নদীর তীরবর্তী এলাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে আখের। বাম্পার ফলন হওয়ায় স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিল কৃষকেরা। সেই স্বপ্নই এখন দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে ভাঙন আতঙ্কে। 

উপজেলার বাহাদুরপুর ও হাবাসপুর ইউনিয়নের পদ্মা নদীর তীরবর্তী এলাকার পাঁচটি গ্রামের আখ খেত নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে। শুধু আখ খেতই নয় বসত ভিটাও এখন নদী ভাঙনের আশঙ্কা। সম্প্রতি নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। পানি কমার ভাঙন আতঙ্কে ফসলি জমি। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছেন পদ্মাপারের কৃষকেরা। 

গতকাল শুক্রবার সরেজমিনে গেলে কৃষক আলামিন হোসেন বলেন, এবার আখের বাম্পার ফলন হয়েছিল। ফসলের বাম্পার ফলন হওয়ায় স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলাম আমরা। সেই স্বপ্ন এখন দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে। নদীর পানি কমায় ভাঙন আতঙ্কে রয়েছি আমরা। 

উপজেলা কৃষি অফিসার রতন কুমার ঘোষ জানান, নদীর তীরবর্তী দুটি ইউনিয়ন। দুটি ইউনিয়নে ৫৫ হেক্টর আখ ও সাড়ে ১০ হেক্টর বামন ধানের চাষ হয়েছে। ইতিমধ্যে নদীর তীব্র স্রোতে বাহাদুরপুর ইউনিয়নের বালুঘাট এলাকায় প্রায় চার হেক্টর জমির আখের ফসল নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এতে করে কৃষকের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এখনো হুমকির মুখে রয়েছে বাকি ফসলি জমি গুলো।  

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    প্রতিবেশী দুই পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বৃদ্ধা নিহত

    প্রতিবেশী দুই পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বৃদ্ধা নিহত

    তেজগাঁওয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

    তেজগাঁওয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

    প্রস্তুতি নিয়ে বিএনপিকে নির্বাচনে আসতে বললেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী

    প্রস্তুতি নিয়ে বিএনপিকে নির্বাচনে আসতে বললেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী

    ঐতিহ্যের নৌকা বাইচে প্রাণের উৎসব

    ঐতিহ্যের নৌকা বাইচে প্রাণের উৎসব

    আন্দোলনে ঢাকার সিএনজি চালকেরা

    আন্দোলনে ঢাকার সিএনজি চালকেরা

    ৯৮ লাখ টাকা ইভ্যালিতে, সব হারানোর শঙ্কায় বিথী

    ৯৮ লাখ টাকা ইভ্যালিতে, সব হারানোর শঙ্কায় বিথী

    ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুণ

    ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুণ

    করোনায় ব্যাংকে লাভ ছাঁটাই উভয়েই রেকর্ড

    করোনায় ব্যাংকে লাভ ছাঁটাই উভয়েই রেকর্ড

    ‘নাট্যকলায় পড়তে আমি ঘর পালাইছিলাম’

    ‘নাট্যকলায় পড়তে আমি ঘর পালাইছিলাম’

    ইমো এবং আরও কিছু

    ইমো এবং আরও কিছু

    নিজেই তো বুইসতে পাচ্ছি নাকো আপা!

    নিজেই তো বুইসতে পাচ্ছি নাকো আপা!

    ২০২৩ সাল থেকে নিশ্চিত হবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ

    ২০২৩ সাল থেকে নিশ্চিত হবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ