শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

সেকশন

 

মাইকিং করে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ, কেজি ৩৫০ 

আপডেট : ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫৩

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর দেখা মিলছে কাঙ্ক্ষিত ইলিশের। ছবি: আজকের পত্রিকা  অবশেষে বঙ্গোপসাগর ও আশপাশের নদ-নদীতে ধরা পড়তে শুরু করেছে রুপালি ইলিশের ঝাঁক। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর কাঙ্ক্ষিত ইলিশের দেখা মিলেছে, আর এতে মুখে হাসি ফুটেছে উপকূলীয় জেলে, ট্রলার মালিক, পাইকারসহ মৎস্যজীবীদের। বাজারে দামও কমেছে এই মাছের রাজা ইলিশের। 

গত তিন চার দিন ধরে জেলা সদরের মাছ বাজারে বিক্রেতারা মাইকিং করে প্রতি কেজি ইলিশ ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। তবে এসব ইলিশ অপেক্ষাকৃত ছোট সাইজের।  চারটি ইলিশের ওজন এক কেজি হয়।  পাইকাররা বলছেন, সাগর ও নদীতে এই সাইজের প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে।  স্থানীয় বাজারে ছোট ইলিশের চাহিদাও বেশি, দামও ভালো। সে কারণে এসব ইলিশ চালান না করে স্থানীয় বাজারেই বিক্রি হয়। 

তবে বাজারে বড় সাইজের ইলিশের আনাগোনা কম। এর কারণ হিসেবে পাইকাররা বলছেন, দেশের অন্য স্থানে বড় ইলিশের ক্রেতা, চাহিদা ও দাম বেশি। যে কারণে এখানে বড় ইলিশ কম ওঠে।  নয় শ গ্রাম থেকে এক কেজি সাইজের ইলিশ এখনো সাত শ থেকে আটশো টাকা কেজি। তবে আগের  তুলনায় অনেক কম।  আগস্ট মাসের শেষের দিকে ও ইলিশের দাম ছিল ১৪০০ থেকে ১৬০০ টাকা।  ইলিশ বিক্রেতা ইমরান বলেন, মূলত এই ইলিশগুলো সাগরের। নদীর চেয়ে সাগরের ইলিশের চাহিদা কম, তাই দামও কম। ট্রলারভর্তি এসব ইলিশ লোকাল বাজারে বিক্রিতে খরচ কম। তাই স্থানীয় বাজারে এসব ইলিশ বিক্রি করতে এনেছেন।  

আরিফুর রহমান নামে ইলিশ ক্রেতা বলেন, সাগরের ইলিশ নদীর তুলনায় স্বাদ কম, তাই কম দামে বিক্রি হচ্ছে।  অন্য এক ক্রেতা সাইদুল বলেন,  বাজারে প্রচুর ইলিশ আছে তাই কম দামে বিক্রি হচ্ছে। ভালো মানের মাছের দাম এখনো বেশি। 

জেলেদের মুখেও হাসি ফুটেছে ইলিশের আনাগোনায়। গোটা জেলে পল্লীতে এখন খুশির ধুম। নড়চড়ে বসেছেন পাইকার আড়তদারেরাও । বছরব্যাপী দাদন দিয়ে যেন এ সময়টারই অপেক্ষায় ছিলেন মৎস্য ব্যবসায়ীরা।

পাথরঘাটার কালমেঘা ইউনিয়নের দক্ষিণ কুপদোন গ্রামের জেলে সিদ্দিক আকন বলেন, তিন ট্রিপে সাগরে যাইয়া ৫০ হাজার টাহা পাইছি, আরও মাসখানেক এইরহম ইলিশ পাইলে মোগো আর কষ্ট থাকপেনা। 

ট্রলার মালিক মাসুম কোম্পানী বলেন, লস কাটিয়ে উঠেছি, অবরোধের আগ পর্যন্ত যদি এ রকম করে ইলিশ ধরা পড়ে তাহলে ভালোই কাটবে সারা বছর। 

বাংলাদেশ ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি মোস্তফা চৌধুরী বলেন,  মৌসুমের শেষের দিকে ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করেছে। প্রতিদিন সহস্রাধিক ট্রলার ইলিশ শিকার করে তীরে ফিরছে। বড় সাইজের ইলিশ ২৪ থেকে ২৬ হাজার,  মাঝারি সাইজের ১৮ থেকে ২২ এবং ছোট সাইজ ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা মনে এখন বিক্রি হয়। 

দেশের বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র পাথরঘাটার পরিচালক নৌবাহিনীর লে. কমান্ডার এম লুৎফর রহমান বলছেন, মৌসুমের শেষের দিকে সাগরে নদীতে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করেছে। বিশেষ করে সাদা জালের ট্রলারে অগভীর সমুদ্রে ও নদ-নদীতে এখন ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে।  

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    ঘুরতে এসে বাস চাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

    ঘুরতে এসে বাস চাপায় প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

    তিন ব্যাংক থেকে ৩৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে পলাতক শিক্ষক, বেতন তুলছেন নিয়মিত

    তিন ব্যাংক থেকে ৩৪ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে পলাতক শিক্ষক, বেতন তুলছেন নিয়মিত

    দুর্গাসাগর দীঘিতে ধরা পড়ল ৩০ কেজির কাতলা মাছ

    দুর্গাসাগর দীঘিতে ধরা পড়ল ৩০ কেজির কাতলা মাছ

    মুলাদীতে সড়ক পরিণত হয়েছে খালে, ভোগান্তিতে স্থানীয়রা

    মুলাদীতে সড়ক পরিণত হয়েছে খালে, ভোগান্তিতে স্থানীয়রা

    খেয়াঘাটে নৈরাজ্য, অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে ভোগান্তিতে যাত্রীরা

    খেয়াঘাটে নৈরাজ্য, অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে ভোগান্তিতে যাত্রীরা

    বিজেপির দুইবারের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় যোগ দিলেন তৃণমূল

    বিজেপির দুইবারের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় যোগ দিলেন তৃণমূল

    দ্বিতীয়বারের মত গিনেস বুকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পার্থ

    দ্বিতীয়বারের মত গিনেস বুকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পার্থ

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    শিক্ষার্থীদের মাঠে ফেরাতে দুমকিতে শিক্ষকদের ফুটবল ম্যাচ

    নভেম্বরে ঢাকা থেকে মালে ফ্লাইট শুরু করবে ইউএস-বাংলা

    নভেম্বরে ঢাকা থেকে মালে ফ্লাইট শুরু করবে ইউএস-বাংলা

    যুবলীগে পদ বঞ্চিত হয়ে ঈর্ষা থেকে বন্ধুকে গুলি

    যুবলীগে পদ বঞ্চিত হয়ে ঈর্ষা থেকে বন্ধুকে গুলি

    ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী 

    ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী