বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

সেকশন

 

৮ মাসে ৩৬১ শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা, অভিমান থেকেই বেশি: আঁচল

আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৬:৫৬

প্রতীকী ছবি চলতি বছরের প্রথম আট মাসে ৩৬১ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। এর মধ্যে পুরুষ শিক্ষার্থী ১৪৭ জন এবং নারী শিক্ষার্থী ২১৪ জন। এর মধ্যে অভিমানে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন ৩১ দশমিক ৬০ শতাংশ শিক্ষার্থী।  

দেশের ১০৫টি জাতীয়, স্থানীয় পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালের আত্মহত্যার সংবাদ বিশ্লেষণ করে একটি সমীক্ষা প্রকাশ করেছে সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আঁচল ফাউন্ডেশন। আজ শনিবার সমীক্ষার ফল ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ করা হয়। 

সমীক্ষার ফলাফল বলছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে আগস্ট পর্যন্ত, অর্থাৎ গত আট মাসে আত্মহত্যা করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুলশিক্ষার্থী ১৬৯ জন, কলেজ শিক্ষার্থী ৯৬ জন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ৬৬ জন ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ৩০ জন। ২০২২ সালে প্রথম আট মাসে আত্মহত্যা করেছিল ৩৬৪ জন শিক্ষার্থী। আর বছর শেষে এই সংখ্যা দাঁড়ায় ৫৩২। 

আত্মহত্যার কারণ বিশ্লেষণ করে আঁচল ফাউন্ডেশনের সভাপতি তানসেন রোজ বলেন, আগের আত্মহত্যার ঘটনায় প্রেমঘটিত সম্পর্কের দায় বেশি ছিল। এবার আত্মহত্যার ঘটনায় মূল ভূমিকা রাখছে অভিমান। অভিমানের কারণে আত্মহত্যার ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় পরিবারের সঙ্গে সন্তানদের সম্পর্ক কতটুকু মজবুত তা নিয়ে চিন্তার উদ্রেক করে। 

তিনি আরও বলেন, গত বছর আত্মহত্যার পেছনে করোনা একটা বড় ধরনের ভূমিকা রেখেছিল। এ বছর করোনা না থাকলেও আত্মহত্যার সংখ্যায় খুব একটা হেরফের হয়নি। 

সমীক্ষার ফলাফল থেকে জানা যায়, চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে ঢাকা বিভাগে। এ বিভাগে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে ৩১ দমশিক ৩০ শতাংশ। আর খুলনা বিভাগে ১৩ শতাংশ, চট্টগ্রামে ১৪ দমশিক ১০ শতাংশ, রংপুরে ৮ দমশিক ৯০ শতাংশ, ময়মনসিংহে ১০ শতাংশ, রাজশাহীতে ১১ দমশিক ৯০ শতাংশ, বরিশালে ৮ দমশিক ৩০ শতাংশ। এ ছাড়া সিলেটে আত্মহত্যা করেছে ২ দমশিক ৫ শতাংশ। বিশেষজ্ঞদের ধারণা ঢাকা শহরে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা ও বেড়ে ওঠার সহায়ক পরিবেশ না থাকায় আত্মহত্যার ঘটনা বেশি ঘটছে। 

সমীক্ষায় আরও বলা হয়, নারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা বেশি। ৩৬১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে নারী শিক্ষার্থী ৫৯ দমশিক ৩০ শতাংশ এবং পুরুষ ৪০ দমশিক ৭০ শতাংশ। নারী শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার কারণ হিসেবে সমীক্ষা প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৬ দমশিক ৬০ শতাংশ নারী শিক্ষার্থী অভিমান, ১৮ দমশিক ৭০ প্রেমঘটিত, ৮ দমশিক ৪০ শতাংশ মানসিক ভারসাম্যহীনতা, ৯ দমশিক ৮০ পারিবারিক বিবাদ, ৫ দমশিক ১০ শতাংশ যৌন হয়রানি এবং ১২ দমশিক ৬০ শতাংশ শিক্ষার্থী পড়াশোনার চাপ ও ব্যর্থতার কারণে আত্মহত্যা করেছে। 

সমীক্ষায় দেখা যায়, আত্মহত্যার ঘটনায় স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বেশি। এদের বয়স ১৩ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে। ৬৭ দমশিক ৩ শতাংশ শিক্ষার্থী ছিল এই বয়সী। এদের মাঝে নারী শিক্ষার্থী ছিল ১৫৯ জন। অন্যদিকে পুরুষ শিক্ষার্থী ৮৪ জন। 

সংবাদ সম্মেলনে আত্মহত্যা প্রতিরোধে আঁচল ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে কয়েকটি প্রস্তাবনা দেওয়া হয়। এগুলো হলো টাস্কফোর্স গঠন; টোল ফ্রি জাতীয় হটলাইন নম্বর চালু; আবেগীয় অনুভূতি নিয়ন্ত্রণের কৌশল ও ধৈর্যশীলতার পাঠ শেখানো; স্ট্রেস ম্যানেজমেন্ট এবং মানসিক বুদ্ধিমত্তা সম্পর্কে শেখানো; শিক্ষার্থীদের সহানুভূতি এবং বোঝার সঙ্গে সাড়া দেওয়া; আত্মহত্যা সতর্কতা চিহ্ন সম্পর্কে ধারণা বিস্তৃত করা; বিভিন্ন ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা; মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা ইনস্যুরেন্স বিমার আওতায় আনা; গণমাধ্যমে দায়িত্বপূর্ণ প্রতিবেদন লেখা ও প্রকাশ; মানসিক দূরত্ব কমাতে উদ্যোগ গ্রহণ এবং মানসিক স্বাস্থ্য স্ক্রিনিং বাধ্যতামূলক করা। 

সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি ফরিদা ইয়াসমিন, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. হেলাল উদ্দীন আহমদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক ব্যাধি নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মো. শহীদুল ইসলামসহ আরও অনেকে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ঈদের ছুটির পর অফিস খুলল, নতুন সময়সূচি ৯টা-৫টা

    সেক্টর কমান্ডার কে এম সফিউল্লাহ গুরুতর অসুস্থ

    দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

    সারা দেশে ঈদুল আজহায় কোরবানি ১ কোটি ৪ লাখের বেশি

    নিষিদ্ধ হেলোসিন পাওয়া গেলে কঠোর আইনি ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

    ঈদযাত্রা

    বাস টার্মিনালগুলোতে বাড়ছে ভিড়, বিক্রি হচ্ছে সুপারভাইজারের সিটও 

    এবারও কি চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা নাকি অন্য কেউ

    বিদেশি ফলে ভরছে দেশের মাঠ, ৫টির চাষ সবচেয়ে বেশি

    বাংলাদেশের সুপার এইটের ম্যাচ দেখবেন কোথায় 

    রোহিঙ্গাদের কারণে এনআইডি পেতে ৩২ উপজেলার মানুষের ভোগান্তি

    রাজধানীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

    ম্যাচসেরা

    ইংলিশ সল্টের ঝাঁজ ভালোই টের পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ