রোববার, ১৯ মে ২০২৪

সেকশন

 

কিশোরীর সঙ্গে ছদ্মবেশে পুলিশ, গ্রেপ্তার ধর্ষণ মামলার আসামি 

আপডেট : ১৬ মার্চ ২০২৩, ২০:৫০

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে কিশোরী ধর্ষণ মামলার আসামি ইফাত (২০)। ছবি: আজকের পত্রিকা নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলার পর পালিয়ে যান ইফাত (২০) নামের এক যুবক। এরপর সম্প্রতি তিনি ধর্ষণের শিকার অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটিকে ঢাকায় নিয়ে বিয়ে করবেন বলে নেত্রকোনা রেলস্টেশনে আসতে বলেন। কিন্তু মেয়েটির সঙ্গে সাদাপোশাকে পুলিশ রেলস্টেশনে গিয়ে গ্রেপ্তার করে ইফাতকে। 

গতকাল বুধবার রাত ১২টার দিকে নেত্রকোনা রেলস্টেশনে থাকা ঢাকাগামী ‘মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস’ আন্তনগর ট্রেন থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 

ইফাত বারহাট্টা উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা। আর ভুক্তভোগী ওই কিশোরী মোহনগঞ্জ পৌর শহরের বাসিন্দা। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহনগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শেখ রাসেল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

পুলিশ জানান, মামলার পর ঢাকা পালিয়ে গিয়ে আত্মগোপনে ছিল ইফাত। তাঁকে ধরতে কৌশলের আশ্রয় নেওয়া হয়। ইফাত ওই কিশোরীকে ঢাকা নিয়ে গিয়ে বিয়ে করবে বলে মোবাইল ফোনে জানান। সেই লক্ষ্যে রাতে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস আন্তনগর ট্রেনে করে নেত্রকোনা স্টেশন পর্যন্ত ওই কিশোরীকে যেতে বলে ইফাত। ট্রেনের টিকিট কেটে বগির নম্বরও জানান কিশোরীকে। এ খবর পায় পুলিশ। 

একজন পুলিশ নারী সদস্য সাদাপোশাকে ওই কিশোরীকে সঙ্গে নিয়ে নেত্রকোনা স্টেশনে যান। ট্রেন স্টেশনে থামার পর নির্দিষ্ট সিটে কিশোরীর সঙ্গে বসে ওই নারী পুলিশ। পাশে সাদাপোশাকে এসআই শেখ রাসেলসহ আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য ইফাতকে ধরতে প্রস্তুত থাকে। 

একপর্যায়ে ইফাত ট্রেনে উঠে ওই কিশোরীকে ট্রেন থেকে নামিয়ে নিতে চাইলে তাঁকে ধরে ফেলেন নারী পুলিশ সদস্য। তখনই ইফাতকে ১০-১৫ জন সঙ্গী ইফাতকে ছাড়াতে পুলিশের ওপর ছড়াও হয়। কিন্তু সাদাপোশাকে থাকা অন্য পুলিশ সদস্যরা ইফাতের সঙ্গীদের তাড়া করলে তাঁরা পালিয়ে যান। পরে তাঁকে থানায় নিয়ে আসা হয়। 

ভুক্তভোগী কিশোরী আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘আমাকে ঢাকা নিয়ে বিয়ে করবে বলে ফোনে জানায় ইফাত। বুধবার রাতে নেত্রকোনা থেকে নিয়ে যাবে। ট্রেনের টিকিটও কেটে রেখেছে বলে জানায়। সে বিয়ে করতে রাজি নয়। বাচ্চা নষ্ট করতে চাপ দিচ্ছিল। তাই বিষয়টি পুলিশকে জানাই। পুলিশও তাকে ধরতে এই কৌশলটি ব্যবহার করে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    শরীয়তপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ১০ 

    মাকে হত্যার আসামি হওয়ার পর জানলেন তিনি আসলে পালিত কন্যা

    চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

    ঢাবি শিক্ষকের স্ত্রীর মৃত্যু: ময়নাতদন্তে শ্বাসরোধে হত্যা, পিবিআইয়ের তদন্তে আত্মহত্যা

    রাজধানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের র‍্যালিতে হাতাহাতি, ছাত্রলীগ কর্মী খুন

    অসমসাহস দেখাতে গিয়েই শ্রমিকের মৃত্যু, বলছে পল্লী বিদ্যুৎ

    ৭২ লাখ টাকা জরিমানা দিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর ছাড়ল বিদেশি জাহাজ

    শরীয়তপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ১০ 

    মাকে হত্যার আসামি হওয়ার পর জানলেন তিনি আসলে পালিত কন্যা

    চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

    কিরগিজস্তানে বিদেশি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নেপথ্যে

    ইরানে দুই নারীসহ সাতজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর, ফাঁসিতে ঝুলতে পারে আরেক ইহুদি