Alexa
রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

উত্তরণ

মনের কষ্ট ডায়রিতে লিখে রাখুন

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:৩২

নাঈমা ইসলাম অন্তরা প্রশ্ন: আমি একজন নারী। একটা করপোরেট অফিসে কর্মরত আছি। পাঁচ বছর আগে আমি একজনকে পছন্দ করতাম। কিন্তু পরিবার মেনে নেবে না বলে তাকে বিয়ে করিনি। কয়েক দিন আগে শুনলাম সে মানসিক হতাশা থেকে আত্মহত্যা করেছে। যদিও আমার সঙ্গে তার দীর্ঘ সময় যোগাযোগ ছিল না এবং আমরা আলাদা আলাদা সংসারে বসবাস করতাম।

কিন্তু তার মৃত্যুর কথা শোনার পর থেকে আমি ভেতরে-ভেতরে ভেঙে পড়ছি। না পারছি ঘুমাতে, না পারছি ঠিকমতো খাওয়াদাওয়া করতে। সবকিছুতেই মনে হচ্ছে আমি কেন তার কোনো খোঁজ নিইনি। বছরখানেক আগে সে আমার সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিল। তখন রূঢ়ভাবে নিষেধ করে দিয়েছিলাম। নিজেকে কেমন জানি অপরাধী মনে হচ্ছে। নিজেকে কীভাবে সেলফ কাউন্সেলিং করব—একটু জানাবেন। 
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, শরীয়তপুর

উওর:  প্রিয় কোনো মানুষের মৃত্যুর কথা আমাদের অনেক আবেগতাড়িত করে, তখন আমরা শোকে কাতর হয়ে পড়ি। আগের কথাগুলো বারবার মনে পড়ে। এমন অবস্থায় ওই ব্যক্তির সঙ্গে যদি সম্পর্ক না থাকে বা তার সঙ্গে কোনো মনোমালিন্য হয়, তখন আমরা অপরাধবোধে ভুগে থাকি। আপনি বর্তমানে সে রকম একটি অবস্থায় আছেন, তা আপনার লেখায় স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। তবে এ অবস্থায় অপরাধবোধে না থেকে তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করুন। কোন কারণে আপনার কষ্ট বেশি হচ্ছে, আগের কোনো স্মৃতি মনে পড়ে থাকলে সেগুলো একটি ডায়েরিতে লিখে নিজের মনকে শান্ত করার চেষ্টা করতে পারেন। তা ছাড়া কথাগুলো শেয়ার করা যায় এমন ব্যক্তি, বন্ধু বা নিজের পরিবারের কারও সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন। এ সময় নিজের যত্ন নেবেন, যে কাজ করলে প্রশান্তি পাবেন, তেমন কাজে নিজেকে যুক্ত করবেন। এরপরও যদি এ অবস্থা থেকে বের হতে না পারেন, তাহলে একজন প্রফেশনাল মনোবিজ্ঞানী বা সাইকোথেরাপিস্টের সহায়তা নিতে পারেন।

প্রশ্ন: আমি একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছি। আমার নিজেকে নিয়ে অনেক সমস্যা। আমার ধৈর্য অনেক কম। কোনো কাজ ঠিকমতো করতে পারি না। পড়ালেখা ভালোভাবে করতে চাই। কিন্তু আমার নিজের ভেতরের অস্থিরতার জন্য সেটা আর হয়ে উঠছে না। মনে হয়, একজন মনের মতো পার্টনার থাকলে আমার জন্য ভালো হতো। যার সঙ্গে অনেক সুন্দর সময় কাটানো যায় এবং কথা বলা যায়, তেমন একজন পার্টনার। আবার হঠাৎ মনে হয়, কখনো বিয়েই করব না। একা থাকব। কী লাভ অন্যকে নিজের জীবনে জড়িয়ে। আমি একটা নির্মল সুন্দর জীবন চাই, যেখানে কোনো কিছুর তাড়া কাজ করবে না। নিজের মনকে স্থির করার জন্য কী করতে পারি?
নাবিলা, ডেমরা

উওর: আপনি আপনার সমস্যাগুলো চিহ্নিত করতে পেরেছেন এবং সে অবস্থা থেকে মুক্তি চান, এটি খুবই ইতিবাচক বিষয়। এ জন্য চেষ্টা করবেন নিজের শরীর ও মনের যত্ন নিতে। প্রতিদিন কিছু হালকা ব্যায়াম, যেমন ইয়োগা, গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম ইত্যাদি করা শুরু করতে পারেন। এতে আপনার কাজে মনোযোগ বাড়বে। যেহেতু সমস্যাগুলো থেকে আপনি বের হতে চাইছেন কিন্তু পারছেন না, এ জন্য আপনি একজন প্রফেশনাল মনোবিজ্ঞানী বা সাইকোথেরাপিস্টের সহায়তা নিতে পারেন।

পরামর্শ দিয়েছেন: নাঈমা ইসলাম অন্তরা, সাইকোলজিস্ট ও ট্রেইনার

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    আজকের রাশিফল

    ক্যাম্পাসের বইপাগলেরা

    বিতর্কের জাদুকর

    ইংরেজি ভয়, করব জয়

    আন্তর্জাতিক অ্যাফিলিয়েশনে গ্রিন ইউনিভার্সিটি

    ‘আদর্শ শিক্ষক’ সম্মাননা পেলেন দেশের ১১ শিক্ষক 

    রাজশাহীর জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

    রাস্তা পার হওয়ার সময় অটোরিকশার ধাক্কায় শিশু নিহত 

    দুই দিনের কর্মবিরতিতে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা 

    ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে গ্যাস ট্যাবলেট সেবন, চিকিৎসাধীন যুবকের মৃত্যু

    চট্টগ্রামে আসবাব মেলা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি

    নির্জন স্থানে ডেকে নিয়ে মুক্তিপন আদায় করতেন তাঁরা