Alexa
রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

মানবাধিকার কমিশনে ৪৪ দিনে ১৯০ অভিযোগ

আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৯:৪৪

রাজধানীর একটি হোটেলে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। ছবি: আজকের পত্রিকা গত ১০ ডিসেম্বর ষষ্ঠ জাতীয় মানবাধিকার কমিশন দায়িত্ব নেয়। এরপর থেকে গত ১ মাস ১৪ দিন অর্থাৎ মোট ৪৪ দিনে এই কমিশন মানবাধিকার লঙ্ঘন সংক্রান্ত ১৯০টি অভিযোগ পেয়েছে। এই সময়ে কমিশনের পক্ষ থেকে দুটি জেলায় কারাগার ও হাসপাতাল পরিদর্শন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ‘মানবাধিকার সুরক্ষায় গণমানুষের প্রত্যাশা: গণমাধ্যম ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সমন্বিত প্রয়াশ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানানো হয়। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের আয়োজনে রাজধানীর হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সিনিয়র সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল বলেন, ‘সাগর-রুনি হত্যা মামলায় ৯৫ বার সময় নিয়েও তদন্ত শেষ করতে পারে না আমাদের সংস্থা। এখানে মানবাধিকার কমিশন কী করেছে। মানবাধিকার কমিশন সুপারিশ করল। কিন্তু সুপারিশের ফলোআপ হলো না। তাহলে মানুষ কমিশনের ওপর আস্থা রাখবে কী করে?’

বক্তারা জানান, অধ্যাপক মিজানুর রহমানের নেতৃত্বাধীন প্রথম মানবাধিকার কমিশনের কিছু কার্যক্রম মানুষের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। কিন্তু এরপরের কমিশনগুলোর কার্যক্রম সেভাবে দেখা যায়নি।

সিনিয়র সাংবাদিক জ ই মামুন বলেন, ‘যার যত ক্ষমতা তার মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা সবচেয়ে বেশি। ক্ষমতাবানদের বাইরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নেই। আমরা আশা করব, কমিশন এই ক্ষমতাবানদের ভয় পাবে না। অন্য কমিশনের মতো মানবাধিকার কমিশনকেও যেন মানুষ নখদন্তহীন প্রতিষ্ঠান মনে না করে। আমাদের প্রত্যাশা থাকবে মানবাধিকার কমিশন যেন উদাহরণ সৃষ্টি করতে পারে।’

নতুন কমিশনের কার্যক্রম উল্লেখ করে জাতীয় মানবধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইনের আলোকে কমিশন স্বপ্রণোদিত হয়ে অভিযোগ গ্রহণ ও তদন্ত করতে পারে। এ পরিপ্রেক্ষিতে গণমাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা প্রকাশিত হওয়ায় সঙ্গে সঙ্গে কমিশন সেই স্বপ্রণোদিত হয়ে আমলে নেয় ও পদক্ষেপ গ্রহণ করে।’

সম্প্রতি ‘ডায়ালাইসিসের খরচ জোগানো একমাত্র ছেলেটি কারাগারে, দিশেহারা মা’ শীর্ষক গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের আলোকে কমিশন ভুক্তভোগী ছেলেটিকে আইনি সহায়তা দিয়ে জামিনে মুক্ত করেছে এবং মামলায় তাঁকে আইনি সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে বলে জানান মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান।

ডায়ালাইসিসের মতো চিকিৎসা সহায়তার গুরুত্ব বিচারে এর মূল্যবৃদ্ধি বিষয়ে যথাযথ সরকারি দপ্তরের দৃষ্টিআকর্ষণ করার পর মূল্য বৃদ্ধি স্থগিত করা হয়। গাজীপুরে হাতকড়া ও ডান্ডাবেড়ি পরা অবস্থায় মায়ের জানাজা পড়ানোর ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশের পাশাপাশি দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে মানবাধিকার কমিশন। 

সভায় জানানো হয়, গণমাধ্যমে প্রকাশিত রাঙ্গুনিয়ার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার সাংবাদিক; নিরাপদ সড়কেরদাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিকদের ওপর হামলা, বিএসএমএমইউতে ভালো কিডনি অপসারণে রোগীর মৃত্যুসহ এ ধরনের অনেক ঘটনা কমিশন স্বপ্রণোদিত হয়ে আমলে নিয়েছে এবং সরকারি কর্তৃপক্ষের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করেছে। 

জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘শুধু বাংলাদেশ নয়, সারা বিশ্বেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটে। গণতন্ত্র না থাকলে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নাই। আবার সংবাদপত্রের স্বাধীনতা না থাকলে ভালো গণমাধ্যম পাওয়া যায় না। সারা বিশ্বে মাত্র ১৩ ভাগ মানুষ সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ভোগ করে।’

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য সেলিম রেজার সভাপতিত্বে সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. কামাল উদ্দিন আহমদ, প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ডিবির বিরুদ্ধে গুম ও নির্যাতনের অভিযোগের তদন্ত চায় এইচআরডব্লিউ

    ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারির ফল চলতি মাসের শেষে

    আষাঢ়ে নয়

    সনির বাবার অমূল্য সম্পদ

    ২২ বছরে নিপাহ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে দেশের ৩৩ জেলায়

    যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার পদক পেলেন আসকের নূর খান

    সোমবার বাংলাদেশে আসছেন বেলজিয়ামের রানি 

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি

    বিদেশে উচ্চশিক্ষা: নিড ব্লাইন্ড স্কলারশিপের আদ্যোপান্ত

    গাইবান্ধায় ট্রাকচাপায় অটোরিকশার যাত্রী নিহত, আহত চালক

    গাংনীতে যাত্রীবাহী বাস উল্টে আহত ৩০ 

    উচ্ছ্বসিত ফেরদৌস

    ‘গ্ল্যামার’-এর প্রথম অতিথি পূজা চেরি