Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

হবিগঞ্জে শ্রেণিকক্ষে হৃদরোগে আক্রান্ত শিক্ষক, হাসপাতালে মৃত্যু

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭:৫৪

আউশকান্দি রশিদিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মাঠে শিক্ষক মনসুর আলমের জানাজা। ছবি: আজকের পত্রিকা হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে আউশকান্দি রশিদিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষক মনসুর আলম। প্রতিদিন হেঁটেই আসতেন কলেজে। কিন্তু গতকাল রোববার দুপুরে ক্লাস চলাকালে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন। 

পরে তাঁকে সিলেটের একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এদিন রাতে শেষবারের মতো চিরচেনা ক্যাম্পাসে ফেরেন মনসুর আলম। কিন্তু লাশ হয়ে। 

জানা যায়, প্রতিদিন মনসুর আলম সকালে স্কুল ও কলেজে ক্লাস নিতেন। রোববার ক্লাস চলাকালে হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করেন। সঙ্গে সঙ্গে সহকর্মীরা তাঁকে সিলেট ইবনে সিনা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। 

খবরটি ছড়িয়ে পরলে নবীগঞ্জ উপজেলা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে। রোববার রাত ৮টায় শিক্ষক মনসুর আলমের মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স আউশকান্দি রশিদিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজ মাঠে নিয়ে আসলে অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী তাঁকে শেষ বারের মতো দেখতে ভিড় জমান। পরে রাত সাড়ে ৮টায় বিদ্যালয় মাঠেই তাঁর জানাজার নামাজ হয়। 

জানাজার নামাজের পূর্বে বক্তব্য দেন আউশকান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. দিলাওর হোসেন, অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান, প্রভাষক ইকবাল বাহার তালুকদার, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সুহুল আমিন, আবদুল হামিদ নিকছন, ইসলাম শিক্ষক জিয়াউর রহমান মির, শিক্ষক কায়ছার হামিদসহ আরও অনেকেই। 

নামাজে অনুষ্ঠিত নামাজে অংশ নেন নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুজিবুর রহমান সেফ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল, আউশকান্দি হীরাগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সভাপতি মুর্শেদ আহমদে, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডাইরেক্ট শাহ মুস্তাকিম আলী প্রিন্স, সাবেক ডাইরেক্ট শফিকুল আলম হেলাল, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম. এ আহমদ আজাদ, নির্বাহী সদস্য মুরাদ আহমদ, হাজী ফুল মিয়া, আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান হাবিব, দীঘলবাক স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবু সালেহ, নবীগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বুলবুল আহমেদসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। 

জানাজার নামাজে ইমামতি করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক জিয়াউর রহমান মীর। নামাজ শেষে শিক্ষকের রুহের আত্মার মাগফিরাত কামনায় মোনাজাত করেন অত্র প্রতিষ্ঠান জামে মসজিদের ঈমাম জিয়াউর রহমান। 

জানাজা শেষে শিক্ষক মনসুর আলমের জন্মস্থান ময়মনসিংহে লাশবাহী গাড়ি নিয়ে রওনা হন। সেখানে পরে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। 

উল্লেখ যে, ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার খারুয়া গ্রামের মৃত আবদুল মজিদ এর পুত্র এ. বি. এম মনসুর আলম। মৃত্যুকালে তিনি এক পুত্র সন্তান ও এক স্ত্রীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

তিনি বিগত ৩ নভেম্বর ১৯৯০ সালে ঘোলডুবা এম. সি উচ্চ বিদ্যালয়ে কর্মরত ছিলেন। পরে ১ ফেব্রুয়ারি ২০০০ সালে আউশকান্দি রশিদিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পা দিয়ে লিখে এইচএসসি পাস, হতে চান বিসিএস কর্মকর্তা

    না.গঞ্জে রেস্তোরাঁয় ঢুকে গুলির ঘটনায় মালিকদের বিক্ষোভ

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিচারপ্রার্থীরা অংশ নিচ্ছেন মামলার শুনানিতে

    ডেমরায় ফ্ল্যাট থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

    যশোরে বিএনপি কর্মীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ৪ পুলিশ আহত, আটক ৬ 

    ‘বিয়ে নিয়ে দ্বন্দ্বে’ নারীকে হত্যার অভিযোগ, গণধোলাই থেকে বাঁচতে ৯৯৯ ফোন

    মেলায় আছেন হ‌ুমায়ূনও

    ফারসি ভাষা শিখল কারা

    মাউশির প্রকল্প: কাজ শুরুর আগেই গচ্চা ১১৬ কোটি

    ঢাকায় বিএনপির পদযাত্রা স্থগিত

    ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অন্তঃসত্ত্বা ‘প্রেমিকার’ ধর্ষণ মামলা

    রিংকুসহ ২২ বাংলাদেশিকে আঙ্কারায় আনা হচ্ছে: কনসাল জেনারেল