Alexa
রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

পদ্মা তীরের মাটি লুট

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১৩:৩৬

ফরিদপুর সদরের ডিক্রির চর ইউনিয়নে ধলার মোড়ের পদ্মার তীরে। ছবি: আজকের পত্রিকা ফরিদপুরে পদ্মা নদীর তীরসংলগ্ন এলাকা থেকে বালুর পর এবার মাটি কেটে বিক্রি করে দিচ্ছেন প্রভাবশালীরা। সদর উপজেলার ডিক্রির চর ইউনিয়নের ধলার মোড় এলাকায় প্রতি রাতে পাঁচটি খননযন্ত্র (এক্সকাভেটর) দিয়ে অবাধে মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছে। বর্ষা মৌসুমে পদ্মার তীর সংরক্ষণ বাঁধ ও এলাকার বসতবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।

গত সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, ধলার মোড় থেকে উত্তরে সিঅ্যান্ডবি ঘাট পর্যন্ত আনুমানিক আড়াই শ মিটার, মদনখালী এলাকায় কুমার নদের উৎসমুখ এলাকা এবং পূর্ব দিকে পদ্মা নদীর পানি পর্যন্ত অন্তত দু শ মিটার অংশজুড়ে চলছে মাটি কাটার কাজ। দুটি খননযন্ত্র দিয়ে মাটি কাটা হচ্ছে।

মাটি কাটার সঙ্গে জড়িত একটি এক্সকাভেটরের চালক মো. রমজান জানান, মাটি কাটার বিনিময়ে তিনি ও তাঁর সহযোগী প্রতি ঘণ্টায় ২০০ টাকা হারে বেতন পান। প্রতি রাতে পাঁচটি এক্সকাভেটর দিয়ে মাটি কাটা হয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, এ মাটি কাটার জন্য প্রধান ভূমিকা পালন করছেন ডিক্রির চর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আজম মিয়া। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন শের আলী, শহীদ মীর, দুলাল মিয়া, রব মিয়া, কমির মিয়া, পান্নু মিয়া, মো. মোকলেস, স্বপন, রুহুল, আসাদ মীর, রাজীব, মিলন, মো. বাবু ও মো. হাবিব।

তবে আজম মিয়া বলেন, ‘আমি মাটি কাটি না। যাঁরা মাটি কাটছেন, তাঁরা জমির মালিকদের কাছ থেকে এক বছর চুক্তিতে ইজারা নিয়ে কাটছেন।’

এদিকে মাটি কাটার সঙ্গে ডিক্রির চর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান মিন্টু ও তাঁর চাচাতো ভাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু ফকিরের জড়িত থাকার কথাও বলছেন স্থানীয় কয়েকজন।

এ ব্যাপারে মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় আবু ফকিরের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে কথা হয় তাঁর চাচাতো ভাই মেহেদী হাসান মিন্টুর সঙ্গে।

মেহেদী হাসান মিন্টু বলেন, ‘আমি এ মাটি কাটার সঙ্গে জড়িত নই।’ ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার বলেন, ‘ধলার মোড়ে বালু কাটা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তবে মাটি কাটার বিষয়টি আমার জানা নেই।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    ভোটের মাঠে

    নিজের ঘরের দ্বন্দ্বে আওয়ামী লীগ

    সিসিক: কারসাজিতে করের বাইরে ছিল দুই হাজার হোল্ডিং

    ‘অস্ত্রবাজ’ নিয়াজুলের পদোন্নতি

    সাজেনি লিটলম্যাগ চত্বর

    প্রলোভন দেখিয়ে তামাক চাষ

    পথের পাশে টিউলিপের শোভা

    আড়াই ঘণ্টা পর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ চলাচল স্বাভাবিক

    সন্তানদের খোঁজে এসে ধর্ষণের শিকার নারী, গ্রেপ্তার ৫ 

    পুঠিয়ায় চালককে কুপিয়ে অটোরিকশা ছিনতাই

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি

    বিদেশে উচ্চশিক্ষা: নিড ব্লাইন্ড স্কলারশিপের আদ্যোপান্ত

    গাইবান্ধায় ট্রাকচাপায় অটোরিকশার যাত্রী নিহত, আহত চালক