Alexa
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

প্রেমিকাকে নিয়ে পালানোর সময় বাধা দেওয়ায় হত্যা, ১৮ বছর পর আসামি গ্রেপ্তার

আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০২৩, ২২:২৭

রংপুরে দীর্ঘ ১৮ বছর পর হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার। ছবি: সংগৃহীত রংপুরে দীর্ঘ ১৮ বছর পর হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ওয়াহেদুল ইসলামকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। আজ রোববার বিকেলে তথ্যটি নিশ্চিত করেন র‍্যাব-১৩–এর রংপুর সদর দপ্তরের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাহমুদ বশির আহমেদ। 

ওয়াহেদুল ইসলাম রংপুর মহানগরীর জলছত্র শেখটারী এলাকার বাসিন্দা। 

র‍্যাব জানায়, ২০০৪ সালের ২৪ ডিসেম্বর প্রেমিকাকে নিয়ে পালাতে গিয়ে পথে বাধা পান ওয়াহেদুল ইসলাম। পথিমধ্যে মেট্রোপলিটন পরশুরাম থানাধীন গজঘণ্টা ওমর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে পৌঁছালে মইনুল ইসলাম নামে স্থানীয় একজন তাঁদের বাধা দেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওয়াহেদুল ও তাঁর সহযোগীরা ওই ব্যক্তিকে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মইনুল মারা যান। 

এ ঘটনায় মইনুল ইসলামের বাবা বাদী হয়ে গঙ্গাচড়া থানায় ওই বছরের ২৫ ডিসেম্বর হত্যা মামলা করেন। ঘটনার পরপরই ওয়াহেদুল ইসলাম পালিয়ে যান।

২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর অতিরিক্ত দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক পলাতক ওয়াহেদুল ইসলামকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেন।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ওয়াহেদুল ইসলাম দীর্ঘ ১৮ বছর বিভিন্ন স্থানে আলাদা পরিচয়ে আত্মগোপনে ছিলেন। তাঁর সন্ধানে র‍্যাব মাঠে নামলে আধুনিক প্রযুক্তি ও গোয়েন্দা অনুসন্ধানের মাধ্যমে অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়। গতকাল শনিবার রাতে র‍্যাব-১৩, ব্যাটালিয়ন সদর ও র‍্যাব-১ উত্তরার যৌথ অভিযানে রাজধানীর উত্তরা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

র‍্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে বুকে উপর্যুপরি আঘাত করে মইনুল ইসলামকে হত্যা করা হয় বলে আসামি ওয়াহেদুল ইসলাম স্বীকার করেছেন। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আজ সকালে আসামিকে মেট্রোপলিটন পরশুরাম থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ঝিনাইদহে আগুনে পুড়ে নারীর মৃত্যু

    সাটুরিয়ায় সড়কের কাজে ধীর গতি, জনদুর্ভোগ চরমে

    বাকি খাইয়ে প্রায় দেউলিয়া, ঢাবির জসীমউদ্দিন হলের ক্যানটিন বন্ধ

    বাঘায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এক যুবক গ্রেপ্তার

    সংবাদ প্রকাশের পর চট্টগ্রামে রেলের সেই কর্মচারীর অবৈধ দোকান উচ্ছেদ

    মাছ কাটা নিয়ে ঝগড়া, গায়ে আগুন দিয়ে গৃহবধূর ‘আত্মহত্যা’

    ভবিষ্যৎ স্মার্ট বাংলাদেশের জন্য

    শিল্পের পথ রুদ্ধ করা যায় না

    অন্তরের দৃষ্টি

    বাহাদুর শাহ পার্ক

    ঝিনাইদহে আগুনে পুড়ে নারীর মৃত্যু

    যৌতুক অভিশপ্ত ও ঘৃণিত প্রথা