Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

পীরগাছায় বিদ্যুৎ অফিসও চলে জেনারেটরে!

আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:২৬

লোডশেডিংয়ের কারণে পল্লী বিদ্যুতের পীরগাছা বিভাগীয় অফিসে গতকাল জেনারেটর চালানো হচ্ছে। ছবি: আজকের পত্রিকা তীব্র শীতেও দফায় দফায় বিদ্যুতের অসহনীয় লোডশেডিং চলছে রংপুরের পীরগাছায়। শীতে বিদ্যুতের চাহিদা কম থাকলেও বেড়েছে লোডশেডিং। কয়েক দিন ধরে দিনে ৮-৯ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। এতে বোরো আবাদ বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অবস্থা এমন হয়েছে যে, বিদ্যুৎ অফিসেও ডিজেলচালিত জেনারেটর ব্যবহার করা হচ্ছে।

পল্লী বিদ্যুতের পীরগাছা বিভাগীয় অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় বিদ্যুতের মোট গ্রাহক রয়েছেন ৮৮ হাজার ৯৭৭ জন। এর মধ্যে আবাসিক ৮০ হাজার ২৪৩, বাণিজ্যিক ৪ হাজার ৮২১ এবং সেচ গ্রাহক রয়েছেন ২ হাজার ১৩০ জন। আর ১ হাজার ৭৮৩ জন গ্রাহক রয়েছেন কল-কারখানা, স্কুল-কলেজ ও দাতব্য প্রতিষ্ঠানের।

প্রতিদিন এসব গ্রাহকের বিপরীতে দিনে বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে ১৯ মেগাওয়াট। কিন্তু বরাদ্দ পাওয়া যাচ্ছে ১৩ মেগাওয়াট। ফলে প্রতিদিন ৬ মেগাওয়াট বিদ্যুতের লোডশেডিং করছে রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর পীরগাছা সাব-স্টেশন।

এদিকে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর পীরগাছা বিভাগীয় অফিসে গিয়ে দেখা গেছে, লোডশেডিংয়ের কবলে পড়ে জেনারেটর চালানো হচ্ছে। 

স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল শনিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ২০-২২ বার লোডশেডিং হয়েছে। বিদ্যুৎ আসা-যাওয়ার মধ্যেই ছিল।

স্থানীয় বাসিন্দা ফারুখ হোসেন ও আব্দুর রশিদ বলেন, ‘চলতি ইরি-বোরো মৌসুমের শুরুতেই যেভাবে লোডশেডিং হচ্ছে তা আগের রেকর্ড ছাড়িয়েছে। বিদ্যুৎ আসছে আর যাচ্ছে। একনাগাড়ে এক ঘণ্টাও বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে না। আমরা সেচ পাম্প নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় আছি।’

উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের বাসিন্দা মোরশেদ সরকার, লাবলু মিয়া বলেন, ‘লোডশেডিংয়ের মাত্রা শহরের চেয়ে গ্রামে বেশি। গত কয়েক দিন থেকে দিনে ও রাতে ঘন ঘন লোডশেডিং হচ্ছে। শীত মৌসুমে এমন লোডশেডিং আগে কখনো দেখিনি।’

উপজেলা সদরের সাইফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, রাজু মিয়া বলেন, ‘গরমের সময়ে তীব্র লোডশেডিংয়ের কারণে ব্যবসায় একেবারে মন্দা ছিল। এখন শীত মৌসুমেও লোডশেডিং চলছে। দিনের বেশির ভাগ সময় বিদ্যুৎ থাকছে না। এ কারণে কোনো কাজ করতে পারছি না।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর পীরগাছা বিভাগীয় অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. মোজাম্মেল হক বলেন, ‘চাহিদার চেয়ে বরাদ্দ কম থাকায় লোডশেডিং করতে হচ্ছে। উৎপাদন কম থাকায় বরাদ্দ কম বলে জানতে পেরেছি।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পা দিয়ে লিখে এইচএসসি পাস, হতে চান বিসিএস কর্মকর্তা

    না.গঞ্জে রেস্তোরাঁয় ঢুকে গুলির ঘটনায় মালিকদের বিক্ষোভ

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিচারপ্রার্থীরা অংশ নিচ্ছেন মামলার শুনানিতে

    ডেমরায় ফ্ল্যাট থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

    যশোরে বিএনপি কর্মীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ৪ পুলিশ আহত, আটক ৬ 

    ‘বিয়ে নিয়ে দ্বন্দ্বে’ নারীকে হত্যার অভিযোগ, গণধোলাই থেকে বাঁচতে ৯৯৯ ফোন

    ঢাকায় বিএনপির পদযাত্রা স্থগিত

    ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অন্তঃসত্ত্বা ‘প্রেমিকার’ ধর্ষণ মামলা

    রিংকুসহ ২২ বাংলাদেশিকে আঙ্কারায় আনা হচ্ছে: কনসাল জেনারেল

    পা দিয়ে লিখে এইচএসসি পাস, হতে চান বিসিএস কর্মকর্তা

    ভূমিকম্প: তুরস্কে তীব্র ঠান্ডায় উদ্ধার ব্যাহত, বাড়ছে ক্ষোভ

    না.গঞ্জে রেস্তোরাঁয় ঢুকে গুলির ঘটনায় মালিকদের বিক্ষোভ