Alexa
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

যান চলাচল নিয়ে দ্বন্দ্বে বাস ও অটোশ্রমিকেরা

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:৫০

বাস চলাচল বন্ধের দাবিতে অটোচালকেরা গতকাল অবরোধকালে কাকিনা-মহিপুর সড়কে শুয়ে পড়েন। ছবি: আজকের পত্রিকা লালমনিরহাটের কাকিনা থেকে রংপুরের মহিপুর সড়কে যান চলাচল নিয়ে পাল্টাপাল্টি আন্দোলনে নেমেছেন অটোরিকশা ও বাসের শ্রমিকেরা। তিস্তা নদীর শেখ হাসিনা সেতুর এ সংযোগ সড়কে যেকোনো মূল্যে বাস চালাতে চান মালিকেরা। অন্যদিকে তা বন্ধ করতে বদ্ধপরিকর অটোচালকেরা।

রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার মহিপুরে নির্মিত শেখ হাসিনা সেতু চার বছর আগে উদ্বোধন করা হলেও এর সংযোগ সড়কটি বাস-ট্রাকের মতো ভারী যান চলাচলের জন্য বন্ধ ছিল। এসব গাড়ি আটকাতে কালীগঞ্জে ব্যারিকেড দিয়ে রেখেছিল স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর। গত ১১ ডিসেম্বর সেই ব্যারিকেড খুলে দিলে ট্রাক ও বাস চলাচল শুরু হয়।

এখন সড়কে পুনরায় ব্যারিকেড দিয়ে ভারী যান বন্ধের দাবিতে গত বুধবারের পর গতকাল বৃহস্পতিবারও সড়ক অবরোধ করেন অটোচালকেরা। এর পাল্টা হিসেবে পাটগ্রাম থেকে রংপুরে বাস চলাচলের দাবিতে অবরোধ করেন বাসশ্রমিকেরা। উভয় পক্ষ গতকাল সকাল ৭টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এই অবরোধ দেয়।

বাসশ্রমিকেরা সড়কে এলোপাতাড়ি গাড়ি রেখে অবরোধ করেন। আজকের পত্রিকা লালমনিরহাট ও রংপুর বাস মালিক সমিতি গত বুধবার ঘোষণা দেয়, বৃহস্পতিবার (গতকাল) সকাল থেকে দুই জেলার মধ্যে বাস চলাচল করবে। তা ঠেকাতে থ্রি-হুইলার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সদস্যরা সকাল থেকে সড়কে অটোরিকশা রেখে ও শুয়ে অবরোধ করেন। অপর দিকে পাটগ্রাম ও রংপুর থেকে ছেড়ে আসা বাসগুলো নির্দিষ্ট গন্তব্যে যেতে না পেরে সড়কে এলোপাতাড়ি রেখে ব্যারিকেড দেয়। পরে বাস চলাচল আগামী শনিবার পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়ে কর্মসূচি শেষ হয়।

কালীগঞ্জ থ্রি-হুইলার এলপিজি মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হযরত আলী ও সম্পাদক নুর নবী ইসলাম দাবি করেন, কাকিনা-মহিপুর সড়কটি ছোট। এই সড়কে বাস চলাচল করতে দিলে তাঁদের পরিবার নিয়ে না খেয়ে থাকতে হবে।

তবে লালমনিরহাট জেলা বাস মালিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ রেজাউল করিম বাবু বলেন, ‘এই সড়কে যেকোনো মূল্যে আমরা বাস চালাব।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জহির ইমাম বলেন, ‘উভয় গ্রুপের সঙ্গে আলোচনা করে আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি। শনিবার বাস ও থ্রি-হুইলার সমিতির সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    আলহামদুলিল্লাহ বলার ফজিলত

    ‘সবকিছুর দাম বাড়লে গরিবের হইবেটা কী’

    মাঠে সক্রিয় হচ্ছেন আব্বাস

    রোহিঙ্গা নীতি-কৌশল আমূল পাল্টানো দরকার

    লোভের হাত থেকে ছাড় পেল না হজও

    সংস্কৃতকে হটিয়ে বাংলা সাহিত্য

    সিলেটে মিছিল থেকে ফেরার পথে শিবিরের ৯ নেতা-কর্মী গ্রেপ্তার

    তুরস্কে এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিখোঁজ 

    থানা হাজত থেকে ছাড়ার পর সড়কে মৃত্যু, গাফিলতির কথা স্বীকার করল পুলিশ

    নারী ইউপি সদস্যর নামে ৩ সহায়তার কার্ড! 

    নারী ইউপি সদস্যকে জুতাপেটা, বিচার দাবিতে সড়ক অবরোধ

    হিরো আলমকে তাচ্ছিল্য করা রাজনৈতিক শিষ্ঠাচার বহির্ভূত ও বৈষম্যমূলক: টিআইবি