মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

সেকশন

 
ফিরে দেখা

বছরজুড়ে নতুন শিল্পীদের রাজত্ব

আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:০৬

(বাঁ থেকে) হাশিম মাহমুদ, আতিয়া আনিসা, আলী হাসান ও মাশা ইসলাম প্রযুক্তির আধুনিকায়নের কারণে সিনেমা ও অডিও গানে বিরাট পরিবর্তন এসেছে। পরিবর্তনের এই সময়ে গান প্রকাশের ক্ষেত্রে আধিপত্য দেখাচ্ছেন তরুণ শিল্পীরা। এ বছর মৌলিক গানে সবচেয়ে বেশি ভিউ হয়েছে রাসেল রহমান ও নাফিসা উপমার ‘টিডিং টিডিং পম পম’ গানটি। এর পরের অবস্থানে সুমি শবনমের ‘ভাল্লাগে’। এরপর রয়েছে সুলতানা ইয়াসমিন লায়লার কণ্ঠে ‘অন্তরেতে দাগ লাগাইয়া’ ও আলী হাসানের র‍্যাপ গান ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’। এ ছাড়া আলোচনায় ছিল মাশার ‘টেকা পাখি,’ আনিকার ‘পালাবি কোথায়’, মোহাম্মদ মিলন ও কোনালের ‘পাই না তোকে’, হাবিব মুজার ‘বেণি খুলে’, ইমরান ও পড়শীর ‘দ্বিতীয় জীবন’, ইমরানের ‘ঘুম ঘুম চোখে’ গানগুলো।

আলোচনায় নতুন কণ্ঠ
‘হাওয়া’ সিনেমায় আরফান মৃধা শিবলুর গাওয়া ‘সাদা সাদা কালা কালা’ ছিল ২০২২ সালের সবচেয়ে আলোড়ন তোলা গান। এ গানের মাধ্যমে হাশিম মাহমুদ নামের এক মেধাবী গীতিকার ও সুরকারকে পেয়েছেন শ্রোতারা। খুব একটা পিছিয়ে ছিল না ‘পরাণ’ সিনেমার ‘চলো নিরালায়’ গানটিও। গেয়েছেন অয়ন চাকলাদার ও আতিয়া আনিসা। জনি হকের কথায় সুর ও সংগীত পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন নাভেদ পারভেজ। গান দুটি বিভিন্ন শ্রেণির মানুষকে পথে-ঘাটে গাইতে দেখা গেছে। এ ছাড়া নাটকের গান, কনসার্টেও রাজত্ব করেছেন তরুণেরা।

ফিউশন গানে সাড়া 
বছরজুড়ে সাড়া ফেলেছে বাংলা গানের ফিউশনধর্মী আয়োজন। এ বছর বিশ্বব্যাপী সমাদৃত সংগীত আয়োজন কোক স্টুডিওর বাংলা সংস্করণ ‘কোক স্টুডিও বাংলা’র গানগুলো আলোচিত হয়েছে। সেই আয়োজনের প্রথম গান ‘নাসেক নাসেক’ দিয়ে আলোচনায় আসেন গায়ক অনিমেষ রায়। এ ছাড়া ঋতুরাজ ও নন্দিতার ‘বুলবুলি’, তাহসান ও মধুবন্তি বাগচীর ‘দখিনা হাওয়া’ গানগুলো বেশ সাড়া ফেলে। এ ছাড়া ‘আইপিডিসি আমাদের গান’-এর নতুন মিউজিকে লোক গানগুলোও শ্রোতাদের মধ্যে প্রাণের সঞ্চার করেছে। কুমার বিশ্বজিতের গাওয়া ‘নয়া বাড়ি লইয়া রে বাইদ্যা’, নাদিয়া ডোরার ‘আমার অন্তরায় আমার কলিজায়’, অঙ্কন ও কামরুজ্জামান রাব্বির ‘ও বাবু সেলাম বারে বার’, নবনীতা চৌধুরীর ‘বন্ধু বিনে প্রাণ বাঁচে না’ গানগুলো ছিল আলোচনার কেন্দ্রে।

ব্যান্ড মিউজিকের জাগরণ 
চলতি বছর প্রাণ ফিরেছে ব্যান্ড মিউজিকে। প্রতিটি ব্যান্ড ও শিল্পীরা ব্যস্ত সময় পার করেছেন স্টেজে। পাশাপাশি ব্যস্ত ছিলেন নতুন গান প্রকাশেও। আইয়ুব বাচ্চুর স্বপ্ন ধারণ করে ডিসেম্বরে বছরের সবচেয়ে বড় কনসার্টের আয়োজন করে চ্যানেল আই ও বামবা। সেখানে পারফর্ম করে ১৬টি ব্যান্ড।

এ ছাড়া তিন বছর পর ঢাকার মঞ্চে ফিরেছেন ফুয়াদ আল মুক্তাদির। রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারের এক্সপো জোনে ‘ফুয়াদ লাইভ ইন ঢাকা ২.০’-এর আসরে গেয়েছেন তিনি। এই আয়োজনে ফুয়াদের সঙ্গে আরও ছিলেন ৩০ জন শিল্পী।

এ বছর ঢাকার মঞ্চে দর্শকদের সুরের মূর্ছনায় আচ্ছন্ন করেছেন ভারতের অস্কার বিজয়ী সংগীত তারকা এ আর রাহমান। দীর্ঘ ১৩ বছর পর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের মঞ্চে গান পরিবেশন করেন দুই বাংলার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও সুরকার কবীর সুমন। তিন দিন গানে-গল্পে শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন তিনি। এ বছর জলবায়ু ও নদীর ভালোবাসার টানে জনপ্রিয় সাতটি ব্যান্ড নিয়ে শুরু হয়েছে ‘নদী রক্স’। চিরকুট ব্যান্ডের শারমিন সুলতানা সুমির ভাবনায় নদী রক্স নামে একটি কনসার্টও হয়েছে। এ বছরই ম্যাডিসন স্কয়ারে বিশ্বখ্যাত ব্যান্ড স্করপিয়নসের সঙ্গেও মঞ্চ শেয়ার করে চিরকুট।

জেমসভক্তদের জন্য বছরটি ছিল অনেক স্পেশাল। কারণ, প্রায় এক যুগ পর নতুন গান প্রকাশ করেছেন রকস্টার জেমস। গান প্রকাশের খবরে চারদিকে তোলপাড় শুরু হয়। জেমসভক্তদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে উন্মাদনা। রোজার ঈদ উপলক্ষে জেমস প্রকাশ করেন নতুন গান ‘আই লাভ ইউ’।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    সিলেটে মেয়র-চেয়ারম্যানে বিভক্ত আওয়ামী লীগ

    উপজেলা নির্বাচনে কোটিপতি প্রার্থী এবার ১১৬ জন

    নিজ গৃহে চিকিৎসা পাবেন নির্বাচন কমিশনাররা

    ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য হ্রাসের নেপথ্যে

    ওয়েব সিরিজ দিয়ে অভিনয়ে ফিরছেন তাহসান

    কারচুপি

    চাঁদে যাচ্ছে ২৭৫টি ভাষার মেমোরি ডিস্ক

    এয়ারপডে পানি ঢুকলে

    দুঃস্বপ্ন দেখলে পাঁচ করণীয়

    ভূমধ্যসাগরে ভাসতে থাকা ৩৫ বাংলাদেশি উদ্ধার

    সিলেটে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, ৩টি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ

    রেইনড্যান্স চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের ছবি ‘ডেথ অ্যান্ড ল্যান্ডস্কেপ’