Alexa
রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড

বিচার বিভাগ দায়িত্ব পালন করলে ৩৪ বছর অপেক্ষা করতে হতো না: মৎস্যমন্ত্রী

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০২

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। ফাইল ছবি  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘বিচার বিভাগ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞরা যথাযথ দায়িত্ব পালন করলে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার পেতে জাতিকে ৩৪ বছর অপেক্ষা করতে হতো না।’

আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসানের স্মরণসভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন। বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি এই স্মরণসভার আয়োজন করে। সিনিয়র আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুনের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আরও বক্তব্য দেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন, সিনিয়র আইনজীবী জেড আই খান পান্না, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোমতাজ উদ্দিন ফকির ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুন নূর দুলাল প্রমুখ। 

মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর জিয়াউর রহমানের সময় ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ সংসদে পাস হয়েছিল। এটিকে সংবিধানের একটি অংশে পরিণত করে নাম রাখা হয় পঞ্চম সংশোধনী। সুপ্রিম কোর্ট বহু ক্ষেত্রে সুয়োমোটো রুল ইস্যু করেন। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট সুয়োমোটো রুল ইস্যু করে কেন বলেনি যে, সংবিধানের মূলনীতি অনুযায়ী এটা কোন আইন নয়? কেননা খুনিদের বিচার করা যাবে না–এমন সিদ্ধান্ত সংবিধান পরিপন্থী। ইনডেমনিটি যে সংবিধানের অংশ হতে পারে না, দেশের সংবিধান বিশেষজ্ঞরা কেউ কোনদিন কেন বলেনি? বিচার বিভাগ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞরা যথাযথ দায়িত্ব পালন করলে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার পেতে জাতিকে ৩৪ বছর অপেক্ষা করতে হতো না।’ 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, ‘অসাংবিধানিক উপায়ে ক্ষমতা দখলের চেষ্টা রাষ্ট্রদ্রোহিতা। দেশের সর্বোচ্চ আইন হলো সংবিধান। সেখানে বলা হয়েছে সবকিছু পরিচালিত হবে সাংবিধানিকভাবে, আইনসংগতভাবে। কীভাবে সরকার গঠন হবে তাও সেখানে বলা হয়েছে। সংবিধান পরিপন্থীভাবে যদি কেউ কিছু অর্জন করতে চায় বা তাতে উসকানি দেয় তাহলে সংবিধান অনুযায়ী তার কৃতকর্ম হবে রাষ্ট্রদ্রোহিতা। আর সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রদ্রোহিতার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ‘তুর কলিজায় এতবল আসে কোত্থেকে, সামনাসামনি আয়’

    আগারগাঁওয়ের চাপ কমাতে ঢাকায় পাসপোর্ট অফিসের সীমানা পুনর্নির্ধারণ

    মধুপুরে সালিস বৈঠকে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবকের মৃত্যু

    বিদেশে পালানোর সময় বিমানবন্দরে ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেপ্তার

    নিপাহ ভাইরাসের চিকিৎসা নেই, নিজেদের সাবধান হতে বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

    সন্তানদের খোঁজে ঢাকায় এসে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার নারী

    ৫ ইউনিটের চেষ্টায় পাহাড়তলী বাজারের আগুন নিয়ন্ত্রণে

    ‘তুর কলিজায় এতবল আসে কোত্থেকে, সামনাসামনি আয়’

    শিবগঞ্জে ট্রাক-প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ, ভাই-বোন নিহত

    ‘হিরোকে যারা জিরো বানাতে এসেছে, তারাই জিরো হয়েছে’

    আঙিনায় জোড়া বাঘ, বনরক্ষীদের শ্বাসরুদ্ধকর ২০ ঘণ্টা

    আগারগাঁওয়ের চাপ কমাতে ঢাকায় পাসপোর্ট অফিসের সীমানা পুনর্নির্ধারণ