Alexa
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

‘নৌপথকে গুরুত্ব দেওয়ার সময় এসেছে’

আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০২২, ১৬:১৩

নৌপথকে রক্ষায় পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নের জন্য সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ। ছবি: আজকের পত্রিকা নৌপথকে রক্ষায় গুরুত্ব দিয়ে পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নের জন্য সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ। আজ বুধবার ডেমরার ইটখোলায় বালু নদীর তীরে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘যোগাযোগের জন্য নদী’ শীর্ষক নবম নদী আলোচনায় এ আহ্বান জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশের সমন্বয়ক শরীফ জামিল বলেন, ‘আমাদের নদীগুলো উত্তর দক্ষিণে, আর সড়কপথ তৈরি হয়েছে পূর্ব পশ্চিমে। আর নিচু করে সেতু তৈরির মতো অপরিকল্পিত কর্মকাণ্ডের কারণে নৌপথগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। সড়কপথকে যতটা গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে নৌপথকে ততটা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। এখন এই বিষয়টিতে গুরুত্ব দেওয়ার সময় এসেছে। এ জন্য দায়িত্বশীলদের জবাবদিহি নিশ্চিত করার পাশাপাশি নদীতীরবর্তী মানুষকে সম্পৃক্ত করেই কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করতে হবে।’

নোঙর বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সুমন সামস বলেন, নদীর পাশে বসে এই আয়োজন ও আলোচনার মাধ্যমে নদীর ভাষাকে বোঝার চেষ্টা করা হয়েছে। নদীপথে যাতায়াত সাশ্রয়ী, নিরাপদ, আরামদায়ক ও স্বাস্থ্য সম্মত হওয়ার পরও পরিকল্পিতভাবে নৌপথকে গুরুত্বহীন করা হয়েছে। সড়ক পথে যানজটসহ নানা সমস্যা ও নৈরাজ্য প্রমাণ করে নৌ যোগাযোগকে গুরুত্ব দিয়ে নতুন পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে।

সুন্দরবন ও উপকূল রক্ষা আন্দোলনের আহ্বায়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্র বলেন, নদীতে ড্রেজিং করা নিয়ে যতগুলো প্রকল্প নেওয়া হয়েছে সেগুলোতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির অভাব ছিল। ফলে নদীর এই ড্রেজিং কোনো কাজে আসেনি। নদী রক্ষা ও নদী পথের যাতায়াত সক্রিয় করতে হলে রাজনৈতিক দলগুলোর অঙ্গীকার ও সম্পৃক্ততা জরুরি।

১২ গ্রাম বালু নদী মোর্চার আহ্বায়ক মোহাম্মদ সুরুজ মিয়া বলেন, ‘এই বালু নদীর পানি দুই দশক আগেও আমরা পান করতাম। কিন্তু ঢাকার কেমিক্যাল, শিল্প বর্জ্য, ড্রেন-নর্দমার পানি বালু নদীতে ফেলার কারণে আজ এই নদী আমাদের তেমন কোনো কাজে আসছে না। ২০০১ সাল থেকে এই নদীতে বর্জ্য না ফেলার জন্য আমরা আন্দোলন করে আসছি। এই নদীর মাছ নদী পথেই যেত, মানুষও যাতায়াত করত। কিন্তু দূষণের কারণে নৌপথের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। এই দূষণ বন্ধ করা গেলে এই যোগাযোগ ও যাতায়াত ব্যবস্থা আবারও চালু করা সম্ভব।’

‘যোগাযোগের জন্য নদী’ শীর্ষক এই আলোচনা অনুষ্ঠানের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ছিল ইউএস এইড, কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ, স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগ।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    সারা দেশে বাড়বে রাতের তাপমাত্রা, কমবে শৈত্যপ্রবাহ

    ১ হাজার বছরের মধ্যে গ্রিনল্যান্ডে গরম সবচেয়ে বেশি

    আগামী ২ দিন কমবে শীতের প্রকোপ 

    জানেন কি

    বন–জঙ্গল নয়, পৃথিবীকে বেশির ভাগ অক্সিজেন দেয় সমুদ্র

    রেকর্ড ৭ ডিগ্রি তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়, সারা দেশের আকাশ থাকবে মেঘলা

    আগামী ৩ দিন কয়েক জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা, জেঁকে বসবে শীত

    তরুণীকে কুপ্রস্তাব: সেই প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাকে বদলি

    ক্ষমতার অপপ্রয়োগ যেন না হয়: ডিসিদের প্রতি রাষ্ট্রপতির নির্দেশ

    ঢাকায় কসক্যাপের সভা অনুষ্ঠিত, আঞ্চলিক সহযোগিতা বৃদ্ধির আশা

    উপাচার্যের আশ্বাসে স্থগিত মৈত্রী হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগের আন্দোলন 

    আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যাত্রা শুরু করল ‘রুকাইয়াইসমাত ফ্যাশন ব্র্যান্ড’

    নরসিংদীতে বিএনপি নেতা খায়রুল কবীরের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ