Alexa
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

বিচ্ছেদের পর স্ত্রীকে হত্যা, সাবেক স্বামী গ্রেপ্তার

আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৫:৫৩

গ্রেপ্তারকৃত সাবেক স্বামী ইসলাম গাজী। ছবি: আজকের পত্রিকা

যশোরের মনিরামপুরে ছুরিকাঘাতে হীরা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার জয়নগর এলাকার একটি কলা খেত থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত নারী উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়ন চাকলা গ্রামের ভাঙাড়ি ব্যবসায়ী সুমন হোসেনের স্ত্রী।

এ ঘটনায় নিহতের সাবেক দ্বিতীয় স্বামী উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর (চাকলা) ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইসলাম গাজীকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৬ যশোরের একটি দল। আজ বৃহস্পতিবার সকালে র‍্যাব-৬ এক সংবাদ বিজ্ঞাপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানায়।

নিহতের বর্তমান স্বামী সুমন হোসেন বলেন, ‘১৫ বছর আগে হীরার সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। আমাদের দুটি সন্তান আছে। ৫ মাস আগে আমাকে তালাক দিয়ে আমার প্রতিবেশী ইউপি সদস্য ইসলাম গাজীকে বিয়ে করে হীরা। এটি মেম্বরের দ্বিতীয় বিয়ে। ১ মাস আগে মেম্বরকে তালাক দিয়ে নড়াইলে বাবার বাড়ি চলে যায় হিরা। এরপর গত বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) পারিবারিকভাবে আবার আমাদের বিয়ে হয়। ঝামেলা এড়াতে আমি নড়াইল শহরে ঘর ভাড়া নিই। গত সোমবার (৩ অক্টোবর) শ্বশুর বাড়ি থেকে ছেলে আবু তালেবকে (৯) নিয়ে আমার বাসার উদ্দেশে বের হয় হীরা। পরে বাসায় না গিয়ে ছেলেকে নিয়ে ইসলামের সঙ্গে মনিরামপুরে চলে আসে।’

নিহতের ৯ বছরের ছেলে আবু তালেব বলে, ‘মেম্বর আমাদের মনিরামপুর বাজারে একটা বাসায় নিয়ে আসে। রাতে আমার মা বাথরুমে ঢুকলে মেম্বর জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে আমাকে খেতে বলে। আমি খেতে রাজি না হলে সে মুখ টিপে ধরে জুস আমার মুখে ঢুকিয়ে দেয়। এরপর আমি অজ্ঞান হয়ে গেলে আমারে মনিরামপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে ডাক্তার ওয়াশ করে আমার বিষ বের করে।’

সুমন হোসেন আরও বলে, ‘অবস্থা খারাপ হওয়ায় মঙ্গলবার সকালে ছেলেকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। সেখানে স্ত্রী ও ছেলেকে রেখে টাকা আনতে বুধবার আমি নড়াইলে বাসায় যাই। বিকেলে ইসলাম হাসপাতাল থেকে আমার স্ত্রী হীরাকে জোর করে তুলে নিয়ে আসে।’

সুমন আরও বলেন, বুধবার রাত ৮টায় আমার স্ত্রীর মোবাইলে কল করলে ইসলাম মেম্বর মোবাইল ধরে বলেন হীরা নড়াইলে চলে গেছে। তার কিছুক্ষণ পরে শুনি হীরা খুন হয়েছে।

র‍্যাব-৬ যশোরের কোম্পানী কমান্ডার লেফটেন্যান্ট নাজিউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, মনিরামপুরে গৃহবধূ খুনের পর জানতে পারি যশোরের বেজপাড়ায় খুনি আত্মগোপনে আছে। এরপর বৃহস্পতিবার ভোরে সেখানে অভিযান চালিয়ে নিহতের সাবেক স্বামী ইসলাম গাজীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এম নাজিউর রহমান বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে ইসলাম ছুরি দিয়ে হীরাকে হত্যা করেছে বলে স্বীকার করেছে। গ্রেপ্তার হওয়া ইসলামকে মনিরামপুর থানায় সোপর্দ করা হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গ্রেপ্তারকৃত ইসলাম মেম্বরকে থানায় সোপর্দ করা হয়নি বলে জানা গেছে।

মনিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গাজী মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘বুধবার রাতে মনিরামপুরের জয়নগরের একটি কলাবাগান থেকে হীরা বেগম নামে এক নারীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের দেহে একাধিক ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। আমরা মরদেহ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি।’

মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর-ই-আলম সিদ্দীকি বলেন, র‍্যাবের আসামি আটকের বিষয়ে আমাদের দাপ্তরিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। হীরা বেগম নিহতের ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    রাঙামাটির দুর্গম অঞ্চলে ‘জেএসএস সমর্থককে’ গুলি করে হত্যা

    গ্রেপ্তার আতঙ্কে ঘর ছাড়া বিএনপির নেতারা

    রাজশাহীতে ৮ শর্তে গণসমাবেশের অনুমতি পেল বিএনপি

    বগুড়া রেলস্টেশনে লাইন ভেঙে যাওয়ায় ১২ ঘণ্টা পর সচল 

    চৌকির ওপর স্ত্রী ও নিচে পড়ে ছিল স্বামী মরদেহ

    চট্টগ্রামের ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ ম্যাক্সনের ভারতে মৃত্যু, জানাল পরিবার

    রাঙামাটির দুর্গম অঞ্চলে ‘জেএসএস সমর্থককে’ গুলি করে হত্যা

    গ্রেপ্তার আতঙ্কে ঘর ছাড়া বিএনপির নেতারা

    দিনটা অস্ট্রেলিয়ার করে রাখলেন লাবুশেন

    আয়াত হত্যাকাণ্ড: মরদেহের অংশবিশেষ উদ্ধারের দাবি পিবিআইয়ের

    রাজশাহীতে ৮ শর্তে গণসমাবেশের অনুমতি পেল বিএনপি

    এসইউবি মানসম্মত শিক্ষা প্রদানের ক্ষেত্রে বদ্ধ পরিকর: শিক্ষামন্ত্রী