Alexa
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

অন্তঃসত্ত্বাকে পিটিয়ে হত্যার ২৭ বছর পর ননদ গ্রেপ্তার

আপডেট : ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৭:১৯

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে পিটিয়ে হত্যার ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত মোছা. শামসুন্নাহারকে (৫০) গ্রেপ্তার। ছবি: সংগৃহীত ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা নারীকে পিটিয়ে হত্যার ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ননদ মোছা. শামসুন্নাহারকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-১৪।

গ্রেপ্তার মোছা. শামসুন্নাহার জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার হুরবাড়ি গ্রামের জোবেদ আলীর মেয়ে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে র‍্যাব-১৪-এর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গতকাল সোমবার রাতে রাজধানীর পল্লবী থানা এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। 

এ বিষয়ে র‍্যাব-১৪-এর এএসপি বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘জেলার ফুলবাড়িয়া থানার হুরবাড়ী গ্রামের জোবেদ আলীর ছেলে মো. আব্দুল আউয়ালের সঙ্গে মনোয়ারা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুকের জন্য মনোয়ারা বেগমকে নির্যাতন শুরু করেন। ঘটনার দিন ১৯৯৪ সালের ১১ ডিসেম্বর রাত ৯টার দিকে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা মনোয়ারা বেগমকে স্বামী আব্দুল আউয়াল, তাঁর দুই বোন গ্রেপ্তার আসামি মোছা. সামছুন্নাহার ও হাফেজা খাতুন এবং তাঁদের ভাতিজা সাইফুল ইসলাম পরস্পর যোগসাজশে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেন। হত্যার পর ঘটনা ধামাচাপা দিতে মনোয়ারা বেগমের মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালান।’ 

‘মনোয়ারা বেগমের ভাই মো. শহিদুল্লাহর বিষয়টি সন্দেহ হলে তিনি হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত আসামি সামছুন্নাহারসহ এজাহারনামীয় সব আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।’

এএসপি বেলায়েত হোসেন আরও বলেন, ‘সম্প্রতি যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি শামসুন্নাহারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলে র‍্যাব-১৪ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে রাজধানীর পল্লবী থানা এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। শামসুন্নাহার দীর্ঘ ২৭ বছর দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ছদ্মবেশে ছিলেন। তাঁকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অসীম, ইশরাকসহ ৪ শতাধিক বিএনপি নেতা-কর্মীর আগাম জামিন 

    বিচার বিভাগ দায়িত্ব পালন করলে ৩৪ বছর অপেক্ষা করতে হতো না: মৎস্যমন্ত্রী

    ডাকাতি ঠেকাতে পুলিশ-জনতার সতর্ক পাহারা

    তদন্তে গিয়ে ভাত খাওয়া কর্মকর্তারা ৪ মাসেও প্রতিবেদন দেয়নি

    কক্সবাজারে পৃথক হত্যা মামলায় ৩ জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড 

    আয়াত হত্যাকাণ্ড: ‘আবির আমার মেয়েকে অনেক কষ্ট দিয়ে মেরেছে’

    স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে বড় ভাই খুন 

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    পোল্যান্ডকে নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনা

    অর্থায়ন কমায় রোহিঙ্গাদের দক্ষতা উন্নয়নে জোর

    এনডিটিভির মালিকানা চলে গেল আদানির হাতেই

    সম্মেলনের আগেই উৎসবে আ. লীগ নেতা-কর্মীরা

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    ফ্রান্সকে হারিয়েও শেষ ষোলোয় যাওয়া হলো না তিউনিসিয়ার