Alexa
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

বশেফমুবিপ্রবিতে ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের ‘সমঝোতা’ হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৩৫

বশেফমুবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের অন্তঃকোন্দল সমাধান হওয়া প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেফমুবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের অন্তঃকোন্দল সমাধান হওয়া প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। আজ সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফারেন্স রুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কমিটির নেতৃস্থানীয় একটি গ্রুপের দাবি, এখনো কোনো সমঝোতা হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাউসার আহমেদ স্বাধীন বলেন, ‘ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে কয়েক দিন আগে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনাটি দুই পক্ষ মিলে সমঝোতা হয়েছে।’

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরা জান্নাত অভিযোগ করেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কোনো সমঝোতা হয়নি। মারামারির ঘটনায় মূল ভুক্তভোগী বিদ্যালয়ের যুগ্ম আহ্বায়ক ইরফান সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত ইরফান সমঝোতার ঘটনায় কিছুই জানেনা। তাহলে কীভাবে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সমঝোতা হলো?’

দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় আহত শাকিল আহমেদ ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সদস্য। ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে একটি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় আমরা সমঝোতা করেছি।’

সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্যে ইনতিসার আহমেদ সান বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের মাঝে কিছু ভুল-বোঝাবুঝির কারণে অন্তঃকোন্দল সৃষ্টি হয়। যার প্রেক্ষিতে একে অন্যের প্রতি নানা ধরনের মিথ্যা অভিযোগে লিপ্ত হয়। অভ্যন্তরীণ অন্তঃকোন্দলের দরুন বিগত সময়ে ক্যাম্পাসে নানা ধরনের কর্মসূচি-পাল্টা কর্মসূচি এবং গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে বঙ্গমাতা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। যা মোটেও কাম্য নয়।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, ‘ভবিষ্যতে বঙ্গমাতা ছাত্রলীগে যেন এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় ও কোনো অন্তঃকোন্দল না থাকে, এ লক্ষ্যে বঙ্গমাতা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে একটি সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যে বৈঠকের মধ্যে বঙ্গমাতা ছাত্রলীগের ভুল বোঝাবুঝি ও অন্তঃকোন্দলের অবসান ঘটে।’

উল্লেখ্য, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেফমুবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের ৬৩ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি রয়েছে। তাদের মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ১৮ নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে বড় ভাই খুন 

    সম্মেলনের আগেই উৎসবে আ. লীগ নেতা-কর্মীরা

    তিন মাস বন্ধ থাকবে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন যোগাযোগ 

    উত্তরায় পুলিশ হেফাজতে এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগ

    ডাকাতি ঠেকাতে পুলিশ-জনতার সতর্ক পাহারা

    কমিউটার ট্রেন-ট্রলির সংঘর্ষ, প্রাণে বাঁচলেন শত শত যাত্রী

    স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে বড় ভাই খুন 

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    পোল্যান্ডকে নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনা

    অর্থায়ন কমায় রোহিঙ্গাদের দক্ষতা উন্নয়নে জোর

    এনডিটিভির মালিকানা চলে গেল আদানির হাতেই

    সম্মেলনের আগেই উৎসবে আ. লীগ নেতা-কর্মীরা

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    ফ্রান্সকে হারিয়েও শেষ ষোলোয় যাওয়া হলো না তিউনিসিয়ার