Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

২৫ কিমি সড়কে খানাখন্দ

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:২২

ময়মনসিংহ নগরীতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের রাস্তায় খানাখন্দের সৃষ্টি হয়ে চলাচলে ভোগান্তি। ছবি: আজকের পত্রিকা ময়মনসিংহ নগরীর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটিসহ ২৫ কিলোমিটার রাস্তা সড়ক ও জনপথ বিভাগের। কয়েক মাস ধরে এসব রাস্তায় খানাখন্দের সৃষ্টি হয়ে চলাচলে ভোগান্তি পোহাচ্ছে মানুষ। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, অচিরেই রাস্তা সংস্কারে কাজ শুরু করা হবে।

সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম মিঞা আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে কাঁচা-পাকা মিলে ১ হাজার ৮৬০ কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে। এর মধ্যে পাকা রাস্তা ৪০০ কিলোমিটার। প্রধান শহরে ২২৮ কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে সিটি করপোরেশনের। দুঃখের বিষয় হলো, শহরের মূল রাস্তাগুলো সড়ক ও জনপথ বিভাগের। এ জন্য রাস্তা ভাঙা থাকলেও তারা দ্রুত মেরামত করতে পারে না। তাদের রাস্তা মেরামতে দীর্ঘ সময় লাগায় মানুষ সিটি করপোরেশনকে ভুল বোঝে। আসলে সাধারণ মানুষ তো জানে না সেটি আমাদের রাস্তা নয়। যার ফলে বিপাকে পড়তে হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, তাদের কিছু রাস্তা ভাঙা আছে। প্রতিটি ওয়ার্ডে উন্নয়নকাজ চলমান রয়েছে। সরকারের বিশেষ বরাদ্দের ১ হাজার ৬০০ কোটি টাকার কাজ সম্পন্ন হলে জলাবদ্ধতা, যানজট এবং রাস্তার যে ভোগান্তি রয়েছে তা দূর হবে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর প্রধান শহর হচ্ছে গাঙ্গিনারপাড়। সেখানে প্রবেশ করতে হয় ব্রিজ, চরপাড়া, সানকিপাড়া, কলেজ রোড ও টাউন হল মোড় হয়ে। সড়ক ও জনপথ বিভাগের এসব রাস্তা খানাখন্দে ভরপুর। শহরে প্রবেশের প্রধান রাস্তাগুলোয় খানিকটা পরপর মাঝখানে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে পানি জমে রয়েছে। 
নগরীর সানকিপাড়া রেলক্রসিং মহল্লার বাসিন্দা হাসান মানিক জানান, নগরীর ব্যস্ততম কয়েকটি সড়কের মধ্যে জিলা স্কুল মোড় থেকে সানকিপাড়া শেষ মোড় রাস্তাটিও অন্যতম।

জনউদ্যোগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু বলেন, ‘উন্নয়নের প্রসঙ্গ আসলেই ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের মধ্যে বিভেদ দেখা দেয়। এই সমস্যাটি নতুন নয়, দীর্ঘদিনের। আমরা সাধারণ জনগণ হিসেবে কোন রাস্তা কার সেটি দেখতে চাই না, শুধু চাই উন্নয়ন। আমরা সিটি করপোরেশনের মধ্যে বসবাস করছি, কর দিচ্ছি, তাহলে ধরে নেব সব রাস্তাই সিটি করপোরেশনের।’

ময়মনসিংহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলী মোহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান আজকের পত্রিকাকে বলেন, সিটি করপোরেশনের আওতায় ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ২৫ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। রাস্তা ভাঙার কারণ হচ্ছে ওইসব জায়গায় ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো নয়, পানি জমে রাস্তা ভাঙছে।

তিনি আরও বলেন, ‘অনেক জায়গায় মার্কেটের সামনের সড়কে পানি জমে থাকায় ভাঙনের সৃষ্টি হয়। সেখানে বারবার মেরামত করলেও স্থায়িত্ব হয় না। কয়েকটি সড়কে প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে কাজ করা হয়েছিল। এরপর আর কোনো কাজ হয়নি। তবে মোবাইল মেরামতের মাধ্যমে কিছু কিছু জায়গায় সংস্কার অব্যাহত রাখা হয়েছে। বড় ধরনের কাজ করার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। অনুমতি মিললেই কাজ শুরু করা হবে।’ 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অরোরার লোভের ফাঁদে নিঃস্ব ২০০ পরিবার

    প্যানা-পোস্টার বিলবোর্ডে নষ্ট নগরের সৌন্দর্য

    পণ্য বিতরণে অনিয়ম, কার্ডধারীদের ভোগান্তি

    শীর্ষ পদপ্রত্যাশীদের নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ

    ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

    ১৩৪ বিদ্যালয়ের ৫৩টিতে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য

    যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগের পেছনে আমাদের এক সাংবাদিক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    রাজনৈতিক সহিংসতায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের উদ্বেগ

    লাবুশেন-হেডের জোড়া সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন অস্ট্রেলিয়ার

    ভাইয়ের শোকে কান্না করতেও ভয় পাচ্ছি: মকবুলের বড় ভাই

    অনেকের ইচ্ছা একটা লাশ পড়ুক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    নয়াপল্টনের সড়ক ছাড়ল পুলিশ, মিছিল করল আওয়ামী লীগ