Alexa
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসবাদ রুখতে জো বাইডেনের আহ্বান

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৪৯

জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রে সম্প্রতি নানা ধরনের সামাজিক অপরাধ বেড়েছে। অশ্বেতাঙ্গদের প্রতি ঘৃণা, হামলা—এসব অপরাধের মধ্যে অন্যতম। এ অবস্থায় শ্বেতাঙ্গ ‘আধিপত্য ও সন্ত্রাস’ রুখতে দলমত-নির্বিশেষে সব নাগরিকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে এক ভাষণে তিনি এই আহ্বান জানান।

আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘ইউনাইটেড উই স্ট্যান্ড’ শিরোনামের ওই ভাষণে জো বাইডেন বলেছেন, ‘আমাদের সমাজে শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদই শেষ কথা নয়। এই বিষ ও সন্ত্রাসকে আমাদের সময়ের গল্প হতে দেওয়া যাবে না। কয়েক বছর ধরে আমাদের দেশে সংখ্যালঘুদের প্রতি ঘৃণা বাড়ছে। এর জন্য দায়ী রাজনীতি ও কিছু গণমাধ্যম। মিলেমিশে আমাদের এসব রুখতে হবে।’

বাইডেনের ভাষণ অনুষ্ঠানে নিজ দল ডেমোক্রেটিক পার্টির আইনপ্রণেতাদের পাশাপাশি বিরোধী দল রিপাবলিক পার্টির আইনপ্রণেতা এবং সারা দেশের কমিউনিটি লিডাররাও উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের উদ্দেশে বাইডেন বলেন, ঘৃণা বক্তব্য ছড়ানোর জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে জবাবদিহির আওতায় আনতে হবে। বিশেষ গণমাধ্যমকে বিশেষ বিবেচনায় ক্ষমা করা যাবে যাবে না। সবার জন্য একই ধরনের স্বচ্ছ শক্তিশালী আইন প্রয়োগ করতে হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই ঘোষণাকে সবাই দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে সম্মতি জানান।

তবে, নিজেদের ‘কমিউনিকেশন ডিসেনসি অ্যাক্ট’ নিয়ে কিছু বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। আইনটির ১৩০ ধারায় সামাজিক গণমাধ্যমগুলোকে তৃতীয় পক্ষের তথ্য প্রকাশের জন্য শাস্তি থেকে সুরক্ষার কথা বলা হয়েছে। অর্থাৎ টুইটার বা অন্য কোনো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে কেউ আপত্তিকর কিছু করলে, এ জন্য সেই মাধ্যমকে দায়ী করা যাবে না। এটা নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক রয়েছে।

বাইডেনের আগে সুসান ব্রো নামের এক নারী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ভাষণ দেন। সুসানের মেয়ে হেদার হেয়ার ২০১৭ সালে শ্বেতাঙ্গবাদীদের হাতে নিহত হন। যুক্তরাষ্ট্রে ঘৃণা বক্তৃতা ক্রমশ বাড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    সেই আনন্দে এখনো চোখ ভিজে যায়

    স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যের বিদ্যুৎ চুরি

    রহস্য উদ্ঘাটন হয়নি ৩ বছরেও

    জেগে ওঠা চর থেকে বালু তোলা চলছেই

    সোনা পাচার হয় ভারতে, মাদক-গরু আসে দেশে

    ৮ বছরে এসএসসি ১৭-তে এমবিবিএস!

    বিএনপি নেতা সোহেলসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

    কেউ নৌকায় কেউবা ঘোড়ায় চড়ে যাচ্ছেন কক্সবাজারের সমাবেশে 

    দোনেৎস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় রুশ সৈন্যসহ ১৬ জন নিহত

    আপনারা মানুষের পর্যায়ে নেই: শ্যামলী-এনআর ট্রাভেলসের এমডিকে হাইকোর্ট

    শীর্ষ পদপ্রত্যাশীদের নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ

    ‘ঘুষ নেওয়ায়’ দুই বনপ্রহরী বরখাস্ত ৫ জনকে শোকজ