শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

সেকশন

 

ভিজিডির চাল পাওয়ার পর প্রকাশ্যে বিক্রি

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২২, ১৪:২৮

ভিজিডির চাল পাওয়ার পর প্রকাশ্যে বিক্রি নওগাঁর বদলগাছীতে অসহায় ও দুস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির (ভিজিডি) চাল বিতরণে সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। উপকারভোগীদের মাঝে বিতরণ করা চাল পরিষদ চত্বরেই প্রকাশ্যে বেচাকেনা হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

গত সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদে। এসব অতিরিক্ত টাকা ইউপি চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানের প্রতিনিধি হিসেবে আশরাফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি আদায় করছেন বলে অভিযোগ।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার পাহাড়পুর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের ২৬০ জন ভিজিডি কার্ডধারীকে ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। চাল বিতরণের কক্ষের সামনে বসা আশরাফুল নামের এক ব্যক্তি অতিরিক্ত ৩০ টাকা এবং টিপসই নিয়ে উপকারভোগীদের চাল দিয়েছেন। পরিষদ চত্বরে প্রকাশ্যে স্থানীয় কয়েকজন চাল ব্যবসায়ী অনেক উপকারভোগীর কাছ থেকে চাল কিনে নিয়েছেন। প্রতি বস্তা চাল ১ হাজার ১২০ থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করেছেন উপকারভোগীরা।

এ ছাড়া চাল বিতরণের সময় একটি বেসরকারি ব্যাংকের একজন কর্মী উপকারভোগীদের কাছ থেকে ২০০ টাকা করে সঞ্চয় নিয়েছেন। কেউ কেউ ১০০ টাকা করেও সঞ্চয় জমা করেছেন। যদিও সঞ্চয়ের এই টাকা উপকারভোগীদের দুই বছর পর ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

চাল নিতে আসা জাহেদা বলেন, ‘চাল দেওয়ার সময় আগে ১৫ টাকা করে নিত, এখন আবার ৩০ টাকা করে নেয়। কেন টাকা নিচ্ছে জানা নেই। ওখানে এক ব্যক্তি চাইছে, তাই টাকা দিসি।’

আরেক উপকারভোগী শিউলী বেগম বলেন, ‘এসব চাল খাওয়া যায় না। এ জন্য বিক্রি করে দেই, আজও (সোমবার) ৩০ কেজি চাল ১ হাজার ১৭০ টাকায় বিক্রি করেছি। অনেকেই চাল বিক্রি করেছে।’

পরিষদ চত্বরে চাল কেনেন কয়েকজন ব্যবসায়ী। তাঁদের মধ্যে মো. খলিল নামের এক ব্যবসায়ী ১৫-২০ বস্তা চাল কিনেছেন। তিনি বলেন, প্রায়ই এখানে চাল বেচাকেনা হয়। গত সোমবার তিনি ১ হাজার ১৫০ থেকে ১ হাজার ১৭০ টাকা করে প্রতি বস্তা চাল কিনেছেন।

সঞ্চয়ের টাকা নেওয়া ওই বেসরকারি ব্যাংকের কর্মী সাগর হোসেন বলেন, ‘আমি সঞ্চয়ের টাকা তুলেছি এবং কার্ডে উঠিয়ে দিয়েছি। কেউ কেউ ২০০ টাকার বদলে ১০০ টাকাও সঞ্চয় দিয়েছেন।’

ইউপি সচিব কাজী শাহাব উদ্দীন বলেন, ‘সঞ্চয়ের টাকা জমার নিয়ম আছে। এটি উপকারভোগীদের সুবিধার জন্য করা হয়েছে। দুই বছর পর উপকারভোগীরা একবারে সঞ্চয়ের জমার টাকা ফেরত পাবেন। কিন্তু অতিরিক্ত আরও ৩০ টাকা নেওয়ার বিষয়টি জানা নেই।’

আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘চাল পরিষদে আনার জন্য যে খরচ হয়, ওই খরচের জন্য এসব টাকা নেওয়া হয়। আমি পরিষদের কেউ না, চেয়ারম্যান-মেম্বাররা আমাকে টাকা তুলতে বলেছেন।’

ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বলেন, ‘অতিরিক্ত ৩০ টাকা নেওয়ার কোনো নিয়ম নেই। আমি আশরাফুলকে টাকা তুলতেও বলিনি। কয়েকজনের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি জানার পর সেটি বন্ধ করেছি। আর পরিষদের ভেতরে কোনো চাল বেচাকেনা হয়নি। পরিষদ সীমানার বাইরে কেউ চাল বেচাকেনা করলে আমাদের করার কিছুই নেই।’

এ বিষয়ে বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিন আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ট্যাগ অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছি। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     

    আম উৎপাদন: বৈরী আবহাওয়ায় আম নেই বড় গাছে

    এক চেয়ারেই ১১ বছর পার মাউশি ডিডির

    দেড় হাজার কোটি টাকার লাইনে চলে একটি ট্রেন

    রবীন্দ্রজয়ন্তী আজ: মুগ্ধতা ছড়াবে রবীন্দ্রকর্ম

    দুষ্প্রাপ্য ডাকটিকিটে চিঠি পাবে প্রাপক

    বাজারে আসছে নতুন চাল, তবু দাম বাড়ছে

    অস্ট্রেলিয়া-ধাক্কার পরই বাংলাদেশের ভারত-পরীক্ষা

    যুক্তরাষ্ট্রকে উড়িয়ে দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দুশ্চিন্তা বাড়ল ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকারও