Alexa
রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

২৭ শিক্ষার্থীর সবাই পেলেন ৩৭ নম্বর, শিক্ষককে শোকজ

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২২, ১৭:১৭

২৭ শিক্ষার্থীর সবাই পেলেন ৩৭ নম্বর, শিক্ষককে শোকজ ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের মার্কেটিং বিভাগের এক ব্যাচের সব শিক্ষার্থীকে সমান নম্বর দিয়ে বিপাকে পড়েছেন এক শিক্ষক। ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আজ বৃহস্পতিবার উপাচার্যের দপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, মার্কেটিং বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ‘ইন্ট্রোডাকশন টু বিজনেস’ (কোর্স কোড-১১১) কোর্সটির কোর্স শিক্ষক ছিলেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক হিল্লোল ফৌজদার। এই কোর্সের সর্বমোট ৪০ নম্বরের ইন্টারনাল একজামে ২৭ শিক্ষার্থীকেই ৩৭ নম্বর করে দিয়েছেন তিনি।

ফলাফল বিশ্লেষণে আরও জানা যায়, প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে প্রেজেন্টেশনে ১০ নম্বর এবং ক্লাসে উপস্থিতিতে পূর্ণ ১০ নম্বর করে দেওয়া হয়েছে। যেখানে সবার ক্লাস উপস্থিতি নিয়মিত ছিল না। এ ছাড়া দুটি মিডটার্ম মিলিয়ে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ২০ নম্বরের মধ্যে ১৭ নম্বর করে দিয়েছেন কোর্স শিক্ষক হিল্লোল ফৌজদার।

এ ঘটনায় বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিরাজ করছে চাপা ক্ষোভ। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিভাগটির ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, তাঁরা ভালো পরীক্ষা দিয়েও যে নম্বর পেয়েছেন, অনেকে পরীক্ষায় খারাপ করেই একই নম্বর পেয়েছেন। এ ছাড়া ক্লাসে উপস্থিত না থেকেও পূর্ণ ১০ নম্বর পেয়েছেন অনেকে। এটি কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এতে প্রমাণ হয়, স্যার পরীক্ষার খাতা সমানভাবে মূল্যায়ন করেননি, ক্লাস উপস্থিতিও বিবেচনা করেননি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হিল্লোল ফৌজদার বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের কল্যাণের কথা চিন্তা করেই এমনটি করা হয়েছে। তারা যেন উৎসাহ না হারায় এবং ভালো রেজাল্ট করায় উদ্বুদ্ধ হয় সেই কারণে আমি সবাইকে ভালো নম্বর দেওয়ার চেষ্টা করেছি।’

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, ‘প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় শ্রেষ্ঠ প্রার্থীকে নির্বাচনের জন্য পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। তাই পরীক্ষার ফলাফলে এ ধরনের মানবিকতা দেখানোর কোনো সুযোগ নেই।’

জানতে চাইলে উপাচার্য ও মার্কেটিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, ‘ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তিনি কারণ দর্শিয়েছেন। আমরা পরবর্তীতে এটি নিয়ে কমিটিতে আলোচনা করে দেখব। আমরা মূলত এর মাধ্যমে সব শিক্ষককে একটি বার্তা দিতে চাই যে, এ রকম হওয়াটা কখনোই কাম্য নয়।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় বসেছে মরিয়ম

    অটোরিকশাচালককে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা, আটক ১ 

    মেলান্দহে তথ্য কর্মকর্তা ও তাঁর স্ত্রীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ 

    মোটরসাইকেলের সঙ্গে অটোরিকশার ধাক্কা, চালককে পিটিয়ে হত্যা

    জামালপুরে রিকশাচালককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

    নান্দাইলে মধ্যরাতে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, পুলিশ দেখে ককটেল বিস্ফোরণ

    মরদের রাস্তায় এনে গ্রামবাসীর মানববন্ধন, আসামি গ্রেপ্তারের হুঁশিয়ারি

    মরিয়ম মান্নানকে অনলাইনে ‘হেনস্তাকারীরা’ সিআইডির নজরে

    হাসপাতালে চিকিৎসকের অপেক্ষায় থেকে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ, চিকিৎসকসহ আটক ২ 

    মেয়ের জিম্মায় বাড়ি ফিরলেন রহিমা বেগম

    টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, নেই তাসকিন

    স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ড বয়ের বিরুদ্ধে রোগীকে ধর্ষণের অভিযোগ