Alexa
রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

প্রেমের ফাঁদ পেতে মোটরসাইকেল ছিনতাই, স্ত্রী গ্রেপ্তার

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৮:০০

গ্রেপ্তার হওয়া তরুণী বৃষ্টি আখতার। ছবি: আজকের পত্রিকা প্রেমের ফাঁদ মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের অভিযোগে বৃষ্টি আখতার (২০) নামে এক তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার অপর অভিযুক্ত ওই তরুণীর স্বামী সিরাজুল ইসলাম সেতুকে এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের জন্য তারা প্রেমের ফাঁদ পেতেছিলেন বলে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ও মিডিয়া মুখপাত্র শরাফত ইসলাম। গ্রেপ্তার হওয়া বৃষ্টি আখতার বগুড়া সদরের তেল ধাপ গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সেতুর স্ত্রী। গত রোববার রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে শিবগঞ্জ থানা–পুলিশ। সেই সঙ্গে ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেলটিও উদ্ধার করা হয়। 

উদ্ধার হওয়া মোটরসাইকেল। ছবি: আজকের পত্রিকা গ্রেপ্তার বৃষ্টির বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা শরাফত ইসলাম জানান, কিছুদিন আগে বগুড়া সদর থানার দাড়িয়াল গ্রামের আব্দুল ওয়াহাব লটারিতে একটি অ্যাপাচি ফোরভি ১৬০ সিসি মোটরসাইকেল পান। ওয়াহাব ও তাঁর ছেলে রবিন (১৭) মোটরসাইকেলটি চালায়। পার্শ্ববর্তী তেল ধাপ গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সেতু মোটরসাইকেলটি ছিনতাই করার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী সিরাজুল তাঁর স্ত্রী বৃষ্টিকে রবিনের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে দেন এবং তাঁর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করতে বলেন। স্বামীর পরামর্শে বৃষ্টি রবিনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করেন। এরপর রবিনের সঙ্গে দেখা করার প্রস্তাব দেন বৃষ্টি। সেই অনুযায়ী গত মঙ্গলবার দুপুরের পর রবিন তার বন্ধু তাশরাফত ইসলাম নিরবকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেলে শিবগঞ্জ উপজেলার ভাসুবিহার নরপতির ধাপ এলাকায় যান।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, সেখানে বৃষ্টি আগে থেকেই রবিনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। রবিন তাঁর বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে ভাসুবিহার নরপতির ধাপে পৌঁছে বৃষ্টির সঙ্গে দেখা করেন। পরে তারা দুজনে নির্জন স্থানে বসে গল্প শুরু করেন। এই সুযোগে বৃষ্টি তাঁর স্বামীকে মোবাইল ফোনে ম্যাসেজ দিয়ে তাঁদের অবস্থান জানিয়ে দেন। গল্প করার সময় আগে থেকেই নিয়ে আসা চেতনানাশক মেশানো কোমল পানীয় রবিনকে পান করান বৃষ্টি। কিছুক্ষণের মধ্যে রবিন অসুস্থবোধ করেন। এমন সময় বৃষ্টির স্বামী তাঁর এক সহযোগীকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে পৌঁছে নিরব এবং বৃষ্টিকে সেখানে বসে প্রেম করার অপরাধে চড় থাপ্পড় দিয়ে নিরবকে মোটরসাইকেলসহ তুলে নিয়ে যান। কিছু দুর গিয়ে ফাঁকা স্থানে নিরবকে মারপিট করে রাস্তায় ফেলে রেখে মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায় সিরাজুল।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম জানান, এ ঘটনায় গত রোববার ভুক্তভোগী রবিনের মা রোজিনা আখতার শিবগঞ্জ থানা-পুলিশকে জানালে পুলিশ অভিযান শুরু করে। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় পুলিশ বৃষ্টি আখতারের অবস্থান শনাক্ত করে এবং তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় বৃষ্টির হেফাজত থেকে মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশ বৃষ্টির দেওয়া তথ্যমতে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর থানা এলাকা থেকে ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করেছে।’

পুলিশ শরাফত কর্মকর্তা শরাফত ইসলাম জানান,  বৃষ্টি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন আদালতে। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত বৃষ্টির স্বামী সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    যাবজ্জীবনের প্রথম রায় দিলেন বান্দরবান নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব‍্যুনাল

    আশুলিয়া থেকে ঈশ্বরদী গিয়ে ধর্ষণের শিকার ২ তরুণী, গ্রেপ্তার ৪

    জাপানি নাগরিক হত্যা: ইছাহাকের খালাস স্থগিত

    দ্বিতীয় স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীকে হত্যার অভিযোগ

    মরিয়ম মান্নানের মাকে খুলনা আদালতে হাজির করা হয়েছে  

    শেরপুরে মহিলা কলেজের অধ্যক্ষকে স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে মানববন্ধন

    টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, নেই তাসকিন

    স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ড বয়ের বিরুদ্ধে রোগীকে ধর্ষণের অভিযোগ

    ‘উপাত্ত সুরক্ষা আইন’ ঢেলে সাজানোর দাবি টিআইবির

    মরীচিকা পড়া সেতুর কাজ পুনরায় শুরু, অনিয়ম নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ 

    সেনাবাহিনীতে যুক্ত হলো নতুন সামরিক বিমান

    সরকারের সব লেনদেন ‘নগদে’ করার পরামর্শ সংসদীয় কমিটির