Alexa
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

কুলাউড়ায় কলেজশিক্ষিকাকে মারধর, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৫:৫৪

শিক্ষিকাকে মারধরের ঘটনায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করে। ছবি: আজকের পত্রিকা মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ভাড়া বাসার মালিকের বিরুদ্ধে এক কলেজশিক্ষিকাকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং বাসার মালিককে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ করে ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিক্ষোভ করে উপজেলার পৃথিমপাশার লংলা আধুনিক ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ওই কলেজের মোছা. নাজমা বানুকে (৪৮) মারধর করেন ভাড়া বাসার মালিক রাশেদ চৌধুরী (৩৪)। নাজমা বানু ওই কলেজের যুক্তিবিদ্যা শাখার সহকারী অধ্যাপক।

কলেজশিক্ষক, শিক্ষার্থী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষিকা নাজমা বানু কলেজের বিপরীত পাশে মনরাজ গ্রামের একটি ভবনের ফ্ল্যাটে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন। এই বাসার মালিক রাশেদ চৌধুরী ও তাঁর ভাইয়েরা। সম্প্রতি বাসার মালিক রাশেদের সঙ্গে নাজমা বানুর ভাড়া সংক্রান্ত জটিলতা সৃষ্টি হয়। এর জেরে শিক্ষিকার বাসায় পানি সরবরাহ বন্ধসহ নানা প্রতিবন্ধকতা শুরু করেন রাশেদ। বিষয়টি রাশেদের বড় ভাইদের অবগত করেন ভুক্তভোগী শিক্ষিকা। এতে ক্ষিপ্ত হোন রাশেদ। শুক্রবার ওই শিক্ষিকার বাসায় গিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। এ সময় বাগ্‌বিতণ্ডার সৃষ্টি হলে নাজমা বানু ও তাঁর স্বামী এবং উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা (এলপিআরে থাকা) আব্দুল মতলিবের ওপর চড়াও হয়ে মারধর শুরু করেন রাশেদ। এতে শিক্ষিকা নাজমার নাক ও মুখ ফেটে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের আশ্বাসের পর ক্লাসে ফিরে যায় শিক্ষার্থীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা এদিকে বিষয়টি জানাজানি হলে কলেজের শিক্ষার্থীরা আজ সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ঘটনার প্রতিবাদে কলেজের সামনে কুলাউড়া-রবিরবাজার সড়কে অবস্থান নেয়। এ সময় বাসার মালিক রাশেদকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানায় তাঁরা। এতে ওই সড়কে প্রায় আড়াই ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পৃথিমপাশার বাসিন্দা ও সাবেক সাংসদ অ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাছ খান এবং কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলামসহ পুলিশ কলেজে যান। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তাঁরা। পরে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে কলেজর ভেতর অবস্থান নেন। পুলিশ রাশেদ চৌধুরীকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম বলেন, বাসার মালিক রাশেদের সঙ্গে ভাড়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে শিক্ষিকার নাজমা বানুর কয়েক দিন ধরে ঝামেলা চলছিল। এ জন্য বাসার মালিক পানি সরবরাহ বন্ধ করে দিতেন। এর জেরেই শুক্রবার রাতে শিক্ষিকাকে মারধর করেন রাশেদ। এ ঘটনায় শিক্ষিকা থানায় অভিযোগ করেছেন। রাশেদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। কলেজের সম্মুখে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভের খবর পেয়ে সেখানে যাই। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা শান্ত হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক, ইউপি সদস্য আটক

    নয়াপল্টনে ‘পুলিশি হামলার’ প্রতিবাদে ডিইউজের একাংশের বিক্ষোভ 

    ধান কাটার মেশিনের চাপায় মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

    বিএনপির সমাবেশ: সিলেট থেকে বাসে ঢাকায় যেতে ‘পদে পদে বাধা’

    সিলেটে যাত্রীবাহী বাসে মিলল বাক্সভর্তি শটগানের গুলি

    প্রবীণ রাজনীতিবিদ ধীরেন সিংহ আর নেই 

    বিভিন্ন স্থানে জয়িতা সম্মাননা

    পল্টনে মোড়ে মোড়ে পুলিশের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা–কর্মীরা 

    উপহারের ১৬ ঘরে বসত নেই, বারান্দায় বিচালি

    ‘জনসচেতনতা ছাড়া আইন করে দুর্নীতি বন্ধ হবে না’

    ময়মনসিংহে শিশু ধর্ষণের মামলায় দোকানি গ্রেপ্তার

    চায়না কমলালেবু চাষ করে বাজিমাত শিক্ষক দম্পতির